হিমন্ত বিশ্ব শর্মা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ডঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা
Himanta Biswa Sarma briefing media at his office dispur.jpg
অসম বিধানসভার সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২০০১
পূর্বসূরীভৃগু ফুকন
সংসদীয় এলাকাজালুকবাড়ী
শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও বিত্তীয়মন্ত্ৰী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২৪ মে, ২০১৬
শিক্ষা ও স্বাস্থ্য
কাজের মেয়াদ
২০১১ – ২০১৪
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২০০৬ – ২০১১
বিত্ত ও পরিকল্পনা উন্নয়ন বিভাগের মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
১ সেপ্টেম্বর ২০০৪ – জুন, ২০০৬
কৃষি ও পরিকল্পনা উন্নয়ন বিভাগের মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
৭ জুন, ২০০২ – ৩১ আগস্ট, ২০০৪
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1969-02-01) ১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ (বয়স ৫২)
গুয়াহাটি, আসাম, ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
রাজনৈতিক দলভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (১৯৯৬-২০১৫) ভারতীয় জনতা পার্টি (২০১৫-বৰ্তমান)
দাম্পত্য সঙ্গীরিণিকি ভুইয়া শর্মা
সন্তাননন্দীল, সুকন্যা
পিতামাতাস্বৰ্গীয় কৈলাশ নাথ শৰ্মা
বাসস্থানগুয়াহাটী
প্রাক্তন শিক্ষার্থীগুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়
পেশারাজনৈতিক নেতা
ওয়েবসাইটwww.himantabiswasarma.com

হিমন্ত বিশ্ব শর্মা (ইংরেজি: Himanta Biswa Sarma) (অসমীয়া: হিমন্ত বিশ্ব শৰ্মা) আসামের বর্তমান মূখ্যমন্ত্রী । তিনি আসাম বিধানসভার জালুকবাড়ি সমষ্টিতে ২০০১ সন থেকে ২০১৫ সন পর্যন্ত ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস ও ২০১৬ সনে ভারতীয় জনতা পার্টির বিধায়ক রূপে নির্বাচিত হয়েছেন [১]।তিনি প্রথম জীবনে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের নেতৃত্ব করেছিলেন কিন্তু মতভেদের জন্য ২০১৫ সন থেকে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছেন [২]। ২০১৬ সনের আসাম বিধানসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি জয়লাভ করে ও তিনি কেবিনেট মন্ত্রীরূপে শপথ গ্রহণ করেন। তাঁর রাজনৈতিক দক্ষতার স্বীকৃতি স্বরূপ বিজেপির নেতৃত্বে নব গঠিত উত্তর-পূর্ব গণতান্ত্রিক মর্চার আহ্বায়ক রুপে তাঁকে নিযুক্ত করা হয়। উত্তর-পূর্ব ভারতের সার্বাঙ্গীণ উন্নতিসাধন ও ভারতের কে্ন্দ্রের সাথে সুসংযোগ স্থাপন করা হচ্ছে এই মর্চার প্রধান উদ্দেশ্য[৩]

জন্ম[সম্পাদনা]

১৯৬৯ সালের ০১ ফেব্রুয়ারি তারিখে আসামের গুয়াহাটি মহানগরে কৈলাশ নাথের ঔরসে মৃণালিনী দেবীর গর্ভে ডঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মার জন্ম হয়। তিনি রিণিক ভুইয়াকে বিবাহ করেছেন । বর্তমানে তাঁদের নন্দীল ও সুকন্যা নামে দুইটি সন্তান আছে[৪]

শিক্ষা জীবন[সম্পাদনা]

ডঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা ১৯৮৫ সনে কামরূপ অ্যাকাডেমী থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে উচ্চ শিক্ষার জন্য কটন মহাবিদ্যালয়ে নামভর্ত্তি করেন । ১৯৯১-৯২ সন পর্যন্ত তিনি কটন মহাবিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি কটন মহাবিদ্যালয় থেকে রাজনীতি বিজ্ঞানে ১৯৯০ সনে স্নাত্ক ও ১৯৯২ সনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি গুয়াহাটি আইন মহাবিদ্যালয় থেকে আইনে স্নাতক ও গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রী লাভ করেছেন । ১৯৯৬ সন থেকে ২০০১ সন পর্যন্ত তিনি গুয়াহাটি উচ্চ ন্যায়ালয়ে অধিবক্তা রূপে কার্যনির্বাহ করেছিলেন ।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

অন্যান্য[সম্পাদনা]

ডঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা আসাম ব্যাডমিন্টন সন্থার সভাপতি । ২০১৬ সালের ইংরেজি জুন মাসে তিনি আসাম ক্রিকেট সন্থার সভাপতি ছিলেন[৫][৬][৭][৮] । ২০১২ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত তিনি এর উপ সভাপতি পদে নিযুক্ত ছিলেন ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "I told Rahul Gandhi you will not cross 25 seats, he said we will win: BJP MLA Himanta Biswa Sarma" 
  2. "Himanta Biswa Sarma: In 2016 Assam election, Bangladeshi immigrants want their own CM too"  line feed character in |শিরোনাম= at position 22 (সাহায্য)
  3. "Former Gogoi close aide Himanta Biswa Sarma named convener of NDA's northeast alliance | Latest News & Updates at Daily News & Analysis"dna (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০৫-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৫-২৪ 
  4. "Dr. Himanta Biswa Sarma" (PDF)। Government of Assam। সংগ্রহের তারিখ ৩০ আগস্ট ২০১২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. Himanta Biswa Sarma becomes ACA chief
  6. Himanta Biswa Sarma set to be new Assam CA prez
  7. "High voltage AGM at Barsapara today"। ২০১৬-০৮-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-০১ 
  8. Himanta Biswa Sarma Set To Become New Assam Cricket Association Chief