প্রফুল্ল কুমার মহন্ত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
প্রফুল্ল কুমার মহন্ত
অসমের মুখ্যমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৪ ডিসেম্বর, ১৯৮৫ – ২৭ নভেম্বর, ১৯৯০
পূর্বসূরীহিতেশ্বর শইকীয়া
উত্তরসূরীহিতেশ্বর শইকীয়া
অসমের মুখ্যমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
১৫ মে', ১৯৯৬ – ১৭ মে', ২০০১
পূর্বসূরীহিতেশ্বর শইকীয়া
উত্তরসূরীতরুন গগৈ
বিধায়ক
নগাওঁ
পূর্বসূরীমুকুট শর্মা
বিধায়ক
বঢ়মপুর
কাজের মেয়াদ
১৯৯১ – বর্তমান পর্যন্ত
পূর্বসূরীগিরিন্দ্র কুমার বরুয়া
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯৫২
রাজনৈতিক দলঅসম গণ পরিষদ
অসম গণ পরিষদ (প্রগতিশীল)
দাম্পত্য সঙ্গীজয়শ্রী গোস্বামী মহন্ত
ধর্মহিন্দু ধর্ম

প্রফুল্ল কুমার মহন্ত (অসমীয়া: প্রফুল্ল কুমার মহন্ত) অসমের একজন প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী। তিনি অসম আন্দোলন-এর অন্যতম নেতা ও অসম গণ পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি ছিলেন। ১৯৮৫ সনে তিনি অসমের মূ্খ্যমন্ত্রী পদে নিযুক্তি হয়েছিলেন।[১] ১৯৯৬ তিনি দ্বিতীয়বার অসমরে মূখ্যমন্ত্রী পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০০৫ সনে প্রফুল্ল কুমার মহন্তকে অসম গণ পরিষদ (অগপ) থেকে বহিস্কার করা হয়েছিল ফলে তিনি ২০০৫ সনের ১৫ সেপ্টেম্বরে অসম গণ পরিষদ প্রগিতিশীল নামক একটি নতুন রাজনৈতিক দলের গঠন করেছিলেন। ২০০৯ সনের সাধারণ নির্বাচনে তিনি অসম গণ পরিষদে পুনরায় যোগদান করছিলেন। ১৯৯৮ সন থেকে ২০০১ সনে আলফা সদস্যের পরিবারকে গুপ্তহত্যার জন্য শইকীয়া কমিশন সেই সময়ের গৃহমন্ত্রী প্রফুল্ল কুমার মহন্তকে অভিযোগ করেছিলেন।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

প্রফুল্ল কুমার মহন্তকে অসমের একজন প্রভাবশালী নেতা হিসেবে গন্য করা হয়। সদৌ অসম ছাত্র সন্থার সভাপতি পদে থাকার সময় তিনি অসম আন্দোলনের অন্যতম নেতা ছিলেন। অসম আন্দোলনের কয়েকজন বিশিষ্ট নেতাদের নিয়ে তিনি অসম গণ পরিষদ গঠন করেছিলেন। তিনি এই রাজনৈতিক দলের সভাপতি পদে নিযুক্ত ছিলেন। ১৯৮৫ সনে তিনি নগাও বিধানসভার প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তারপর থেকে তিনি বঢ়মপুর বিধানসভা থেকে বিধায়ক পদে নির্বাচিত হয়ে আসছেন। ১৯৯৮ সন থেকে ২০০১ সনে সংঘটিত আলফা পরিবার গুপ্তহত্যায় শইকীয়া কমিশন প্রফুল্ল কুমার মহন্তকে হত্যাকান্ডের সহিত জড়িত থাকা বলে অভিযোগ করে ফলে ২০০৫ সনে প্রফুল্ল কুমার মহন্তকে অসম গণ পরিষদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছিল। দল থেকে বহিস্কার করার পর তিনি ২০০৫ সনের ১৫ সেপ্টেম্বর তারিখে অসম গণ পরিষদ প্রগিতিশীল নামক একটি নতুন রাজনৈতিক দলের গঠন করেছিলেন। ২০০৯ সনের নির্বাচনে অসম গণ পরিষদে অভিজ্ঞ সভাপতির প্রয়োজন হয়েছিল ফলে চন্দ্রমোহন পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে প্রফুল্ল কুমার মহন্ত অসম গণ পরিষদ প্রগিতিশীল দল ভঙ্গ করেন ও পুনরায় অসম গণ পরিষদের সভাপতি হন।

সময়কাল[সম্পাদনা]

১৯৮৫ সনে নগাও বিধানসভা সমষ্টি থেকে প্রফুল্ল কুমার মহন্ত প্রথমবার মূখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৮৫ সনের ২৪ ডিসেম্বর থেকে ১৯৯০ সনের ২৭ নভেম্বর তিনি মূখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন। তারপর তিনি ১৯৯৬ সনে বঢ়মপুর বিধানসভা থেকে দ্বিতীয়বার মূখ্যমন্ত্রী পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৯৬ সনের ১৫ মে থেকে ২০০১ সনের ১৭ মে পর্যন্ত তিনি দ্বিতীয়বার মূ্খ্যমন্ত্রীর পদে ছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]