সুশান্ত সিং রাজপুত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুশান্ত সিং রাজপুত
Sushant Singh Rajput.jpg
২০১৩ সালে শুধ দেশী রোমান্সের প্রচারণায় সুশান্ত
জন্ম(১৯৮৬-০১-২১)২১ জানুয়ারি ১৯৮৬[১]
মৃত্যু১৪ জুন ২০২০(2020-06-14) (বয়স ৩৪)[৩]
মৃত্যুর কারণআত্মহত্যা[৪]
জাতীয়তাভারতীয়
পেশা
কর্মজীবন২০০৮–২০২০
উচ্চতা১.৮৩ মিটার (৬ ফুট ০ ইঞ্চি)

সুশান্ত সিং রাজপুত (হিন্দি: सुशांत सिंह राजपूत; ২১ জানুয়ারি ১৯৮৬ – ১৪ জুন ২০২০) একজন সুখ্যাতিমান, দক্ষ, প্রতিভাবান ভারতীয় চলচ্চিত্রটেলিভিশন অভিনেতা, নৃত্যশিল্পী, টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব,[৫] উদ্যোক্তা[৬] এবং একজন লোকহিতৈষী ছিলেন।[৭][৮][৯] সুশান্ত, টেলিভিশন ধারাবাহিকে কাজ করার মধ্যে দিয়ে তাঁর অভিনয় জীবন শুরু করেছিলেন। ২০০৮ সালে স্টার প্লাস চ্যানেলে প্রচারিত প্রণয়ধর্মী টেলিভিশন ধারাবাহিক কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল-এ প্রীত জুনেজা চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে টেলিভিশন জগতে অভিষেক করেছিলেন। অতঃপর তিনি জি টিভিতে প্রচারিত জনপ্রিয় টেলিভিশন ধারাবাহিক পবিত্র রিশতা-তে মানব দেশমুখ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন; যার জন্য তিনি বেশ কয়েকটি পুরস্কার জয়লাভ করেছিলেন।

২০১৩ সালে, সুশান্ত বন্ধুকেন্দ্রিক নাট্য-চলচ্চিত্র কাই পো ছে!-তে ইশান ভট্ট চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে জগতে পদার্পণ করেছিলেন; যার জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার এবং শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেতা বিভাগে জি সিনে পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন গ্রহণ করেছিলেন। অতঃপর ২০১৩ সালে, তিনি প্রণয় ও কৌতুকধর্মী চলচ্চিত্র শুধ দেশী রোমান্স রঘু রাম এবং ২০১৫ সালে অ্যাকশন ও গোয়েন্দা ভিত্তিক চলচ্চিত্র ডিটেকটিভ ব্যোমকেশ বক্সী-তে গোয়েন্দা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তার অভিনীত চলচ্চিত্রের মধ্যে সর্বাধিক অর্থ-উপার্জন করা চলচ্চিত্র, ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র পিকে; যেখানে তিনি আমির খান, অনুষ্কা শর্মা এবং বোমান ঈরানীর মতো অভিনয়শিল্পীদের সাথে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। অতঃপর ২০১৬ সালে, তিনি ভারতীয় ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিংহ ধোনির জীবনী নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র এম.এস. ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি-তে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন; যার জন্য তিনি প্রথমবারের মতো শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন গ্রহণ করেছিলেন।[১০][১১] অতঃপর সুশান্ত ২০১৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত কেদারনাথ এবং ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছিছোড়ের মতো বাণিজ্যিকভাবে সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[১২][১৩][১৪]

ভারত সরকারের নীতিনির্ধারক ধারণা নীতি আয়োগ, মহিলা উদ্যোক্তা মাধ্যম (ডাব্লিউইপি) প্রচার করার জন্য তার সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল।[১৫][১৬] অভিনয় এবং চলমান ইনসায়েই উদ্যোগ ছাড়াও,[১৭] তরুণ শিক্ষার্থীদের সহায়তার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে তিনি সুশান্ত৪এডুকেশন-এর মতো বিভিন্ন কার্যক্রমের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন।[১৮][১৯]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সুশান্ত ১৯৮৬ সালের ২১শে জানুয়ারি তারিখে ভারতের বিহারের পাটনায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন,[২] সেখানে তার বাবা সরকারি কর্মচারী ছিলেন।[২০][২১][২২][২৩] তাঁর পৈতৃক বাড়ি বিহারের পূর্ণিয়া জেলায় অবস্থিত।[২৪][২৫] তার এক বোন, মিতু সিং রাজ্য পর্যায়ের একজন ক্রিকেটার।[২][২৬] ২০০২ সালে তার মায়ের মৃত্যু সুশান্তকে বিধ্বস্ত করে দেয় এবং একই বছর তিনি তার পরিবারের সাথে পাটনা থেকে নতুন দিল্লিতে চলে আসেন।[২][২৭]

সুশান্ত পাটনার সেন্ট কারেন উচ্চ বিদ্যালয় এবং নতুন দিল্লির কুলাচি হাঁসরাজ মডেল স্কুল হতে তার স্কুল জীবনের শিক্ষা সম্পন্ন করেছিলেন। পড়াশোনা করেছেন।[২৮] সুশান্তের তথ্য মতে, তিনি ২০০৩ সালে ডিসিই প্রবেশিকা পরীক্ষায় সপ্তম স্থান অর্জন করেছিলেন[২৯] এবং তিনি দিল্লি প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের যন্ত্র প্রকৌশল বিভাগে ভর্তি হন।[২] এছাড়াও তিনি পদার্থবিজ্ঞানে জাতীয় অলিম্পিয়াড বিজয়ীও ছিলেন।[৩০] সর্বোপরি তিনি ভারতীয় খনি বিদ্যাপীঠের জন্য প্রায় ১১টি প্রকৌশল প্রবেশিকা পরীক্ষা দিয়েছিলেন; যার সবগুলোতে তিনি উত্তীর্ণ হয়েছিলেন।[২] মঞ্চ এবং নৃত্যে অংশগ্রহণ করার ফলে, তিনি তার পড়াশুনার জন্য খুব কমই সময় পেতেন, যার ফলস্বরূপ তিনি বেশ কয়েকটি ব্যাকব্লগের সম্মুখীন হয়েছিলেন, যার ফলে শেষ পর্যন্ত তাকে ডিসিই ছেড়ে দিতে হয়েছিল।[২৯] অভিনয়ের জীবনে প্রবেশ করার পূর্বে, তিনি তার চার বছরের কোর্সের শুধুমাত্র তিন বছর পূর্ণ করেছিলেন।[২] তিনি নাট্যপরিচালক ব্যারি জনের নাটকের ক্লাসেও অংশগ্রহণ করেছিলেন।[২৩]

অভিনয় জীবন[সম্পাদনা]

প্ৰারম্ভিক সময়[সম্পাদনা]

সুশান্ত সিং রাজপুত দিল্লী কলেজ অফ ইঞ্জিনীয়ারিং-এ পড়তে থাকা অবস্থায় শ্যামক দাবরের নৃত্যদলে যোগদান করেছিলন। পরিচালক বেরী জনের নাটকের দলে তিনি অভিনয়ের প্ৰতি আগ্রহী হন ও অভিনয়ে যোগদান করে।

টেলিভিশন (২০০৮–১২)[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে রাজপুত বালাজি টেলিফিল্মস প্রযোজিত কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল ধারাবাহিকে প্রিত জুনেজার চরিত্রে অভিনয় করেন। ২০০৯ সালে তিনি পবিত্র রিস্তা ধারাবাহিকে মানব দেশমুখের চরিত্রে অভিনয় করেন। ২০১০ সালে তিনি ড্যান্স রিয়েলিটি শো ঝলক দিখলা জা ২-এ মস্ত কলন্দর বয়েজ টিমে অংশগ্রহণ করেন।[৩১]

২০১০ সালে তিনি ঝলক দিখলা যা ৪-এ অংশগ্রহণ করে “মোস্ট কনসিস্টেন্ট পারফর্মার” পুরস্কার পান।[৩২] ২০১১ সালে তিনি পবিত্র রিস্তা ধারাবাহিকের কাজ ছেড়ে দেন চলচ্চিত্রে অভিনয় করবেন বলে।[৩৩]

চলচ্চিত্র (২০১৩–২০২০)[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের 'কই পো চে!' চলচিত্রের প্ৰচারণায় : সুশান্ত সিং রাজপুত, রাজকুমার রাও, অভিষেক কাপুর, অমিত সাধ। (বাম থেকে ডানে)

২০১৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাওয়া অভিষেক কাপুর পরিচালিত কই পো চে! রাজপুতের প্রথম চলচ্চিত্র। এই ছবিটি সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসিত হয় এবং বাণিজ্যিকভাবেও সফল হয়।[৩৪] এরপর রাজপুত মনীষ শর্মা পরিচালিত শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স ছবিতে পরিণীতি চোপড়া ও বাণী কাপুরের বিপরীতে অভিনয় করেন। এই ছবিটিও বাণিজ্যিকভাবে সফল হয়।[৩৫] রাজকুমার হিরানি পরিচালিত পিকে চলচ্চিত্রে রাজপুত একটি ছোটো চরিত্রে অভিনয় করেন।[৩৬][৩৭]

দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচালিত ডিটেকটিভ ব্যোমকেশ বক্সী! ছবিতে রাজপুত বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত গোয়েন্দা রচিত্র ব্যোমকেশ বক্সীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।[৩৮]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

রাজপুত তার সহশিল্পী অঙ্কিতা লোখন্ডের সাথে ৬ বছর ধরে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন, যার সমাপ্তি ঘটে ২০১৬ সালে তাদের বিচ্ছেদের মাধ্যমে।[৩৯][৪০]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

সুশান্ত সিং রাজপুত

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

চাবি
Films that have not yet been released সেই ছবিগুলো নির্দেশ করে যা এখনো মুক্তির অপেক্ষায় আছে
বছর চলচ্চিত্র চরিত্র টীকা
২০১৩ কই পো চে ঈশান ভাট ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের জন্য মনোনীত
২০১৩ শুধ দেশী রোমান্স রঘু রাম মুক্তিপ্রাপ্ত
২০১৪ পিকে সরফরাজ ইউসুফ সহশিল্পী
২০১৫ ডিটেকটিভ ব্যোমকেশ বক্সী! ব্যোমকেশ বক্সী মুক্তিপ্রাপ্ত
২০১৬ এম.এস. ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি মহেন্দ্র সিং ধোনি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারে সেরা অভিনেতার জন্য মনোনয়নপ্রাপ্ত
২০১৭ রাবতা বৈভব মুক্তিপ্রাপ্ত
২০১৮ কেদারনাথ মনছুর খান মুক্তিপ্রাপ্ত
২০১৯ ছিছোড়ে আন্নি মুক্তিপ্রাপ্ত
ড্রাইভ সমর কাপুর মুক্তিপ্রাপ্ত
২০২০ দিল বেচারা ম্যানি পোস্ট-প্রোডাকশন

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

বছর পুরস্কার বিভাগ কাজ ফল
২০০৯ ইন্ডিয়ান ট্যালি অ্যাওয়ার্ডস সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা পবিত্র রিস্তা মনোনীত[৪১]
২০১০ জি গোল্ড পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিজয়ী [৪২]
ইন্ডিয়ান ট্যালি অ্যাওয়ার্ডস সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা বিজয়ী [৪২]
এক্সপ্লোর ইন্টারন্যাশানাল অ্যাওয়ার্ডস শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিজয়ী [৪২]
বিগ স্টার এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাওয়ার্ডস বিগ স্টার টেলিভিশন অ্যাক্টর (মেল) বিজয়ী [৪২]
জি রিস্তে পুরস্কার অঙ্কিতা লোখণ্ডের সঙ্গে শ্রেষ্ঠ জুড়ি বিজয়ী [৪২]
মোস্ট পপুলার ফেস (মেল) মনোনীত[৪২]
২০১১
লাওনস গোল্ড অ্যাওয়ার্ডস[৪২] ফেভারিট পপুলার টেলিভিশন অ্যাক্টর (মেল) বিজয়ী
দ্য গ্লোবাল ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন অনরস অ্যাওয়ার্ডস শ্রেষ্ঠ টেলিভিশন অভিনেতা বিজয়ী[৪২]
এফআইসিসিআই ফ্রেমস এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস শ্রেষ্ঠ টেলিভিশন অভিনেতা বিজয়ী[৪৩]
২০১৩ স্টার গিল্ড পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পুরুষ অভিনেতা (প্রথম অভিনয়) কাই পো চে! বিজয়ী[৪৪]
স্টার গিল্ড পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (প্রধান চরিত্র) মনোনীত[৪৫]
স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডস শ্রেষ্ঠ পুরুষ অভিনেতা (প্রথম অভিনয়) বিজয়ী[৪৬]
জি সিনে পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পুরুষ অভিনেতা (প্রথম অভিনয়) মনোনীত[৪৭]
আইবিন-লাইভ মুভি অ্যাওয়ার্ডস শ্রেষ্ঠ অভিনেতা মনোনীত[৪৮]
আইআইএফএ পুরস্কার প্রধান চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা মনোনীত[৪৯]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

৩৪ বছর বয়সী রাজপুতকে ২০২০ সালের ১৪ জুন মুম্বাই এর বান্দ্রা তে তাঁর বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। [৫০][৫১][৫২] পুলিশের দাবি যে ইতিপূর্বে তিনি প্রায় ছয় মাস ধরে অবসাদে ভুগছিলেন এবং সে'কারণে তার চিকিৎসা চলছিল।যদিও সুশান্তের অগণিত ভক্তগণ এই তথ্য মানতে নারাজ। তাদের দাবি যে অভিনেতা কে হত্যা করা হয়েছে। [৫৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Shruti Shiksha (২১ জানুয়ারি ২০১৮)। "'Happy Birthday, Sushant Singh Rajput. Keep That Childlike Smile Always Alive,' Tweets Kriti Sanon"NDTV। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  2. Gupta, Priya (২০ জানুয়ারি ২০১৩)। "Madhuri wanted to learn dance from me: Sushant"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৬ 
  3. "Sushant Singh Rajput commits suicide at Mumbai home"India Today। ২০২০-০৬-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-১৪ 
  4. https://www.indiatoday.in/movies/celebrities/story/sushant-singh-rajput-commits-suicide-at-mumbai-home-1688886-2020-06-14
  5. "All you need to know about Shuddh Desi Romance star Sushant Singh Rajput- Entertainment News, Firstpost"Firstpost। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  6. "Kedarnath actor Sushant Singh Rajput turns entrepreneur with Innsaei"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৮ 
  7. "Sushant Singh Rajput donates Rs 1 crore as aid for Kerala on behalf of a fan. Read details"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ আগস্ট ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  8. "After Donating 1 Crore to Kerala, Sushant Singh Rajput Gives Rs 1.25 Crore for Nagaland Relief Fund"News18। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  9. "Sushant Singh Rajput visits blind school in Ranchi, embraces kid after his singing act—Watch"Zee News (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ আগস্ট ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  10. "Not Trying To Glorify MS Dhoni: Sushant Singh Rajput Opens Up About His Upcoming Film"CNN-News18Indo-Asian News Service। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  11. Express Web Desk (৩ অক্টোবর ২০১৬)। "MS Dhoni The Untold Story box office collection day 10: Sushant Singh Rajput-starrer mints Rs 66 cr"The Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  12. "Chhichhore box office collection: Sushant-Shraddha film crosses Rs 150 crore"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ অক্টোবর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  13. "Chhichhore achieves another milestone, Sushant Singh Rajput film crosses Rs 150 crore"India Today। ৭ অক্টোবর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  14. "Sushant's 'Chhichhore' Hits Rs 150 Cr at the Box Office in a Month"The Quint (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ অক্টোবর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  15. "NITI Aayog signs on Sushant Singh Rajput to promote the Women Entrepreneurship Platform (WEP)"pib.nic.in। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৮ 
  16. ANI (২৬ মে ২০১৮)। "NITI Aayog signs Sushant Singh Rajput to promote Women Entrepreneurship Platform"Business Standard India। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৮ 
  17. "Actor Sushant Singh Rajput launches Innsaei Ventures"Moneycontrol (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  18. "Sushant Singh Rajput gives wings to young astronaut's dreams"Mumbai Mirror। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  19. "Sushant gives wings to two young astronaut's dreams | Entertainment – Times of India Videos"timesofindia.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  20. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২৫ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৫ 
  21. http://www.hindustantimes.com/Brunch/Brunch-Stories/On-the-brink-Sushant-Singh-Rajput/Article1-1008672.aspx
  22. http://businessofcinema.com/news/exclusive-no-qualms-about-returning-to-tv-sushant-singh-rajput/96937
  23. http://www.filmfare.com/interviews/i-want-to-be-on-the-cover-of-filmfare-sushant-singh-rajput-3428.html
  24. "My Bihar, my Chhath"www.telegraphindia.com। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  25. "Sushant Visits Hometown After 17 Years To Fulfill His Late Mother's Wish, Gets A Warm Welcome"indiatimes.com (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 
  26. Subhash K Jha (২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Sushant's Singh Rajput sister inspires him"DNA। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৬ 
  27. "I am proud of all my mistakes: Sushant Singh Rajput"। ২১ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  28. "I am a selfish actor: Sushant Singh Rajput"। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  29. "Did you know that Sushant Singh Rajput scored an All India Rank of 7 in DCE engineering exams in 2003?"The Times of India। ২৩ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  30. Kaur, Aastha (১৮ আগস্ট ২০১৭)। "Converting dreams into reality"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯ – www.thehindu.com-এর মাধ্যমে। 
  31. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৫ 
  32. Gaurav Malani (৯ মার্চ ২০১১)। "Chang wins Jhalak Dikhhla Jaa 4"Times of India। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০১২ 
  33. "I'm leaving 'Pavitra Rishta' this week: Sushant Singh Rajput"[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  34. Taran Adarsh (২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Hit Che!" 
  35. http://www.boxofficeindia.com/boxdetail.php?page=shownews&articleid=6084&nCat=
  36. "Sushant Singh confirmed for Hirani's PK" Retrieved 16 October 2012
  37. ians। "New friendship brimeth? Anushka Sharma and Sushant Singh Rajput shoot for 'Peekay'"। ibnlive। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৪ 
  38. http://www.indiatimes.com/entertainment/bollywood/first-look-sushant-singh-rajput-in-and-as-detective-byomkesh-bakshi-126882.html
  39. "Is this why Sushant Singh Rajput and Ankita Lokhande reportedly broke up? - Sushant Singh Rajput and Ankita Lokhande's relationship"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০২০ 
  40. "Ankita Lokhande on ex-boyfriend Sushant Singh Rajput: He has always been good to me"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। ১৭ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০২০ 
  41. "Nominees of The 9th Indian Telly Awards"। ১৫ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৫ 
  42. "Sushant Singh Rajput's Biography"। koimoi। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০১৪ 
  43. http://www.bollywoodhungama.com/movies/features/type/view/id/1973/Winners+of+FICCI+FRAMES+Excellence+Honours+awards
  44. http://entertainment.oneindia.in/bollywood/news/2014/renault-star-guild-awards-2014-winners-list-129864.html
  45. http://www.bollywoodhungama.com/celebrities/features/type/view/id/6028
  46. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৩ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  47. http://zeenews.india.com/entertainment/zee-cine-awards-2014/zee-cine-awards-2014-complete-list-of-nominations_150384.html
  48. http://ibnlive.in.com/news/ibnlive-movies-awards-nominees-for-best-actor/447532-8-66.html
  49. "Nominations for IIFA Awards 2014"। Bollywood Hungama। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  50. "Bollywood actor Sushant Singh Rajput passes away at 34 - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-১৪ 
  51. "Actor Sushant Singh Rajput found hanging at home, suicide suspected"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৬-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-১৪ 
  52. "আত্মঘাতী বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত" 
  53. "বিষণ্নতাই কি কেড়ে নিল সুশান্তকে"দৈনিল প্রথম আলো। ১৪ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]