২০১২ ওএফসি নেশন্স কাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০১২ ওএফসি নেশন্স কাপ
ওএফসি নেশন্স কাপের লোগো
টুর্নামেন্টের বিবরণ
স্বাগতিক দেশ SOL
তারিখসমূহ ১-১০ জুন, ২০১২
দলসমূহ ৮ (১টি কনফেডারেশন থেকে)
ভেন্যু(সমূহ) ১ (১টি আয়োজক শহরে)
শীর্ষস্থানীয় অবস্থান
চ্যাম্পিয়নসমূহ  তাহিতি (১ম শিরোপা)
রানার-আপ  নিউ ক্যালিডোনিয়া
তৃতীয় স্থান  নিউজিল্যান্ড
চতুর্থ স্থান  সলোমন দ্বীপপুঞ্জ
প্রতিযোগিতার পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে ১৬
গোল সংখ্যা ৬৪ (ম্যাচ প্রতি ৪টি)
উপস্থিতি ১,৩৩,৭০০ (ম্যাচ প্রতি ৮,৩৫৬ জন)
শীর্ষ গোলদাতা নিউ ক্যালিডোনিয়া জ্যাকুয়েস হেইকো (৬)
সেরা খেলোয়াড় ফরাসি পলিনেশিয়া নিকোলাস ভলার

২০১২ ওএফসি নেশন্স কাপ (ইংরেজি: 2012 OFC Nations Cup) ওশেনিয়া ফুটবল কনফেডারেশন কর্তৃক আয়োজিত ওএফসি নেশন্স কাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার নবম আসর। ওশেনিয়া অঞ্চলে অবস্থিত প্রশান্ত মহাসাগরীয় সলোমন দ্বীপপুঞ্জে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে ফরাসি পলিনেশিয়ার অন্তর্ভূক্ত ও দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জ তাহিতির জাতীয় পর্যায়ে প্রতিনিধিত্বকারী ও তাহিতি ফুটবল ফেডারেশন কর্তৃক পরিচালিত তাহিতি জাতীয় ফুটবল দলটি জয়লাভ করে, যা তাদের এ প্রতিয়োগিতায় প্রথম শিরোপা অর্জন। লসন তামা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত চূড়ান্ত খেলায় নিউ ক্যালিডোনিয়া দলকে চং হিউ'র বিজয়সূচক গোলে ১-০ ব্যবধানে পরাজিত করে ও চ্যাম্পিয়ন হয়। এ জয়ের ফলে অস্ট্রেলিয়া (বর্তমানে ওএফসিতে নেই) ও নিউজিল্যান্ডের পর একমাত্র দলরূপে ওএফসি নেশন্স কাপ জয়ী হয়।[১] পাশাপাশি দলটি ওএফসি অঞ্চল থেকে ২০১৩ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য ফিফা কনফেডারেশন্স কাপে প্রতিনিধিত্ব করবে।

এছাড়াও, সেমি-ফাইনালে অংশগ্রহণকারী চারটি দল ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ফুটবলের যোগ্যতা নির্ধারণী খেলার তৃতীয় রাউন্ডে খেলবে। আন্তঃফেডারেশনের প্লে-অফ খেলায় সরাসরি অংশ নিবে।[২]

স্বাগতিক দেশ[সম্পাদনা]

৩০ জুলাই, ২০১১ তারিখে ব্রাজিলের রিউ দি জানেইরু'র মারিনা দা গ্লোরিয়ায় বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রাথমিক পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ফিজিকে ২০১২ সালের ৩-১২ জুনের মধ্যে ওএফসি নেশন্স কাপের স্বাগতিক দেশের মর্যাদাসহ খেলা পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়।[৩] কিন্তু ওএফসি সাধারণ সম্পাদক তাই নিকোলাস এবং ফিজি কর্তৃপক্ষের মাঝে আইনগত জটিলতার সৃষ্টি হয়।[৪] কেননা, জানুয়ারি, ২০১২ সালে ওএফসি'র পুরুষ ও মহিলাদের প্রাক-অলিম্পিক ফুটবল প্রতিযোগিতার যোগ্যতা নির্ধারণী প্রতিযোগিতা হবার কথা ছিল।[৪]

অতঃপর ২৮ মার্চ, ২০১২ তারিখে ফিজির কাছ স্বাগতিকের মর্যাদা কেড়ে নিয়ে সলোমন দ্বীপপুঞ্জকে দেয়া হয়।[৫] সেখানকার হোনিয়ারার লসন তামা স্টেডিয়ামে সকল খেলা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।[৬]

অংশগ্রহণকারী দেশসমূহ[সম্পাদনা]

দল ফিফা র‌্যাঙ্কিং
(৯ মে, ২০১২ মোতাবেক)
যোগ্যতা নির্ধারণ ওএফসি নেশন্স কাপে অংশগ্রহণ পূর্বেকার সেরা সাফল্য
 সলোমন দ্বীপপুঞ্জ ১৮৩ স্বাগতিক ৬ষ্ঠ রানার-আপ (২০০৪)
 নিউজিল্যান্ড ১৩০ স্বয়ংক্রিয় ৯ম বিজয়ী (১৯৭৩, ১৯৯৮, ২০০২২০০৮)
 নিউ ক্যালিডোনিয়া ১৫৫ স্বয়ংক্রিয় ৫ম রানার-আপ (২০০৮)
 ফিজি ১৬০ স্বয়ংক্রিয় ৭ম তৃতীয় স্থান (১৯৯৮২০০৮)
 ভানুয়াটু ১৭২ স্বয়ংক্রিয় ৮ম চতুর্থ স্থান (১৯৭৩, ২০০০, ২০০২২০০৮)
 তাহিতি ১৭৯ স্বয়ংক্রিয় ৮ম রানার-আপ (১৯৭৩, ১৯৮০১৯৯৬)
 পাপুয়া নিউ গিনি ১৯৩ স্বয়ংক্রিয় ৩য় ১ম রাউন্ড (১৯৮০২০০২)
 সামোয়া ১৫৬ ১ম রাউন্ড বিজয়ী ১ম নেই (অভিষেক)

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

গ্রুপ টেবিলে রঙের বিন্যাস
গ্রুপ বিজয়ী ও রানার্স-আপের উত্তরণ:
  • সেমিফাইনালে
  • ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপের তৃতীয় রাউন্ডে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।

যদি দলগুলোর পয়েন্ট সমান হয়, তাহলে দলের উত্তরণ ঘটবে:[৭]

  1. গোল পার্থক্য
  2. সর্বাধিকসংখ্যক গোল

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

দল
খেলা ড্র স্ব গো বি গো গো পা পয়েন্ট
 তাহিতি ১৮ +১৩
 নিউ ক্যালিডোনিয়া ১৭ +১১
 ভানুয়াটু −১
 সামোয়া ২৪ −২৩
  নিউ ক্যালিডোনিয়া সামোয়া ফরাসি পলিনেশিয়া ভানুয়াটু
নিউ ক্যালিডোনিয়া  ৯-০ ৩-৪ ৫-২
সামোয়া  ১-১০ ০-৫
তাহিতি  ৪-১
ভানুয়াটু 




গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

দল
খেলা ড্র স্ব গো বি গো গো পা পয়েন্ট
 নিউজিল্যান্ড +২
 সলোমন দ্বীপপুঞ্জ +১
 ফিজি −১
 পাপুয়া নিউ গিনি −২
  ফিজি নিউজিল্যান্ড পাপুয়া নিউ গিনি সলোমন দ্বীপপুঞ্জ
ফিজি  ০-১ ১-১ ০-০
নিউজিল্যান্ড  ২-১ ১-১
পাপুয়া নিউ গিনি  ০-১
সলোমন দ্বীপপুঞ্জ 




তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Glorious Tahiti claim maiden Oceania crown"FIFA.com। ১০ জুন ২০১২। সংগৃহীত ১২ জুন ২০১২ 
  2. "Preliminary Competition Format and Draw Procedures – Oceanian Zone"। ২০ মে ২০১১। সংগৃহীত ২৪ ডিসেম্বর ২০১১ 
  3. "Pacific Games no longer part of qualification"oceaniafootball.com। ২৯ জুলাই ২০১১। সংগৃহীত ২৪ ডিসেম্বর ২০১১ 
  4. ৪.০ ৪.১ "OFC takes tournaments away from Fiji"FijiLive.com। ১৭ জানুয়ারি ২০১২। সংগৃহীত ১৪ মার্চ ২০১২ 
  5. "OFC strip Fiji of Nation Cup hosting rights"FijiLive.com। ১৪ মার্চ ২০১২। সংগৃহীত ১৪ মার্চ ২০১২ 
  6. "Honiara to host OFC Nations Cup"Oceania Football Confederation। ২৮ মার্চ ২০১২। সংগৃহীত ২৮ মার্চ ২০১২ 
  7. "Regulations OFC Nations Cup 2012"। Oceania Football Confederation। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:2014 FIFA World Cup qualifiers