যামিনী রায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
যামিনী রায়
জন্ম(১৮৮৭-০৪-১১)১১ এপ্রিল ১৮৮৭[১]
মৃত্যু২৪ এপ্রিল ১৯৭২(1972-04-24) (বয়স ৮৫)
জাতীয়তাভারতীয়
পরিচিতির কারণচিত্রকলা
পুরস্কারপদ্মভূষণ
১৯৫৪

যামিনী রায় (১১ এপ্রিল ১৮৮৭ - ২৪ এপ্রিল ১৯৭২) ছিলেন একজন বাঙালি চিত্রশিল্পী। তিনি বাংলার বিখ্যাত লোকচিত্র কালীঘাট পটচিত্র শিল্পকে বিশ্বনন্দিত করে তোলেন। তিনি নিজে পটুয়া না হলেও নিজেকে পটুয়া হিসেবে পরিচয় দিতেই তিনি পছন্দ করতেন।

জন্ম[সম্পাদনা]

বাঙালি চিত্রশিল্পী যামিনী রায় ১৮৮৭ খ্রিষ্টাব্দের ১১ এপ্রিল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাঁকুড়া জেলার বেলিয়াতোড় গ্রামের এক মধ্যবিত্ত জমিদার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম রামতরণ রায়।[১]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

১৯০৬ থেকে ১৯১৪ সাল পর্যন্ত তিনি কলকাতা গভর্নমেন্ট আর্ট স্কুলে ইউরোপীয় অ্যাকাডেমিক রীতিতে পড়াশোনা করেন। আর্ট স্কুলে ইতালীয় শিল্পী গিলার্দি ও পরে অধ্যক্ষ পার্সি ব্রাউনের সংস্পর্শে এসে তিনি প্রাচ্য-প্রতীচ্যের উভয় শিল্পের কলা-কৌশলের সাথে পরিচিত হন। ইউরোপীয় অ্যাকাডেমিক রীতি শিখলেও শেষ পর্যন্ত দেশজ সরল রীতিতে চিত্র নির্মাণ করেন।[২]

লোকশিল্পে উৎসাহ[সম্পাদনা]

বিদেশি ভাবধারায় প্রথম দিকে ছবি আঁকলেও পরবর্তীতে সম্পূর্ণ দেশীয় তথা গ্রামবাংলার প্রতিরূপ তার ছবিতে ফুটে উঠেছে। নিজস্ব বৈশিষ্ট্য ও স্বকীয়তার লক্ষ্যে তিনি লোক ও নৃগোষ্ঠীদের সংস্কৃতি বেছে নেন। নিজস্ব বাঙালি সংস্কৃতি ও ভাবধারার জন্য তিনি গর্বিত ছিলেন। তিনি বহুবার বিদেশ থেকে আমন্ত্রণ পেলেও কখনও বিদেশে যাননি।-

দেশীয় উপকরণ ব্যবহার[সম্পাদনা]

বাংলার লোকজ পুতুল, শিশু, গ্রাম বাংলার সরল মানুষের দৈনন্দিন জীবনের সুখ-দুঃখর চিত্র ইত্যাদি তিনি তার ছবির ‘ফর্ম’ হিসেবে গ্রহণ করেন।

চিত্ররূপ[সম্পাদনা]

  • সাঁওতাল জননী ও শিশু,
  • মাদলবাদনরত সাঁওতাল,
  • নৃত্যরত সাঁওতাল,
  • মা ও শিশু,
  • রাঁধা-কৃষ্ণ,
  • যীশু[২]

খ্যাতি ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

চিত্রশিল্প[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Eibela.Com। "চিত্রকর ও পটুয়া শিল্পী যামিনী রায়ের জন্মদিন আজ"এইবেলা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-০৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. সেলিনা হোসেন ও নুরুল ইসলাম সম্পাদিত; বাংলা একাডেমী চরিতাভিধান; দ্বিতীয় সংস্করণ: ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৭; পৃষ্ঠা: ৩৩৪৩-৩৩৫, আইএসবিএন ৯৮৪-০৭-৪৩৫৪-৬