মতিয়া চৌধুরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
মতিয়া চৌধুরী
Matia Chowdhury at IRRI.jpg
জন্ম (১৯৪২-০৬-৩০) ৩০ জুন ১৯৪২ (বয়স ৭৫)
পিরোজপুর, ব্রিটিশ ভারত (এখন বাংলাদেশ)
বাসস্থান ঢাকা, বাংলাদেশ
শিক্ষা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
পেশা রাজনীতিবিদ
রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গী বজলুর রহমান
ওয়েবসাইট আওয়ামী লীগ

মতিয়া চৌধুরী (জন্ম: ৩০ জুন, ১৯৪২) পিরোজপুরে জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট বাংলাদেশী নারী রাজনীতিবিদ। বর্তমানে তিনি আওয়ামী লীগের একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য।[১] তাঁর রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় বামপন্থী রাজনীতি দিয়ে। তিনি ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ)-এর সদস্য ছিলেন। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগে যোগ দেন।

জন্ম ও পারিবারিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯৪২ সালের ৩০ জুন মতিয়া পিরোজপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। পিতা মহিউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ছিলেন পুলিশ কর্মকর্তা এবং মা নুরজাহান বেগম ছিলেন গৃহিণী। ব্যক্তিজীবনে ১৯৬৪ সালের ১৮ জুন খ্যাতিমান সাংবাদিক বজলুর রহমানের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

রাজনৈতিক ও কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ইডেন কলেজে অধ্য়নরত অবস্থায় ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন এবং এবং ১৯৬৩ সালে ছাত্র ইউনিয়নের সহ সভাপতি হন। ১৯৬৭ সালে "অগ্নিকন্যা" নামে পরিচিত মতিয়া পূর্ব পাকিস্তান ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টিতে যোগ দেন এবং এর কার্যকরী কমিটির সদস্য হন। ১৯৭০ ও ১৯৭১ এর মাঝামাঝি সময়ে তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম, প্রচারণা, তদবির এবং আহতদের শুশ্রুষায় সক্রিয় অংশগ্রহণকারী ছিলেন।

১৯৭১ সালে তিনি আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছিলেন। প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের সময়কালে তিনি বেশ কয়েকবার গ্রেফতার হন।[২]

১৯৯৬ ও ২০০৯ সালে আওয়ামীলীগ শাসনামলে কৃষিমন্ত্রির দায়িত্ব পালন করেন এবং বর্তমানেও এই মন্ত্রলায়ের দায়িত্বে আছেন।[৩] সাম্প্রতিক কোটা আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে বিতর্কিত মন্তব্য করে আলোচিত হন।[৪]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]