বান্দা জেলা, উত্তরপ্রদেশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বান্দা জেলা
উত্তরপ্রদেশের জেলা
উত্তরপ্রদেশে বান্দা জেলার অবস্থান
উত্তরপ্রদেশে বান্দা জেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক (বান্দা জেলা, উত্তরপ্রদেশ|বান্দা জেলা): ২৫°৩০′ উত্তর ৮০°৩০′ পূর্ব / ২৫.৫০০° উত্তর ৮০.৫০০° পূর্ব / 25.500; 80.500স্থানাঙ্ক: ২৫°৩০′ উত্তর ৮০°৩০′ পূর্ব / ২৫.৫০০° উত্তর ৮০.৫০০° পূর্ব / 25.500; 80.500
দেশভারত
রাজ্যউত্তরপ্রদেশ
বিভাগচিত্রকূট
সদর দপ্তরবান্দা জেলা
সরকার
 •  লোকসভা কেন্দ্রবান্দা
আয়তন
 • মোট৪,৪১৩ বর্গকিমি (১,৭০৪ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১৭,৯৯,৪১০
 • জনঘনত্ব৪১০/বর্গকিমি (১,১০০/বর্গমাইল)
জনসংখ্যার উপাত্ত
 • সাক্ষরতা৬৮.১১%
 • যৌন অনুপাত৮৬৩
সময় অঞ্চলআইএসটি (ইউটিসি+০৫:৩০)
ওয়েবসাইটhttp://www.banda.nic.in/

বান্দা জেলা হল ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের জেলা এবং বান্দা শহর হল জেলা সদর। এটি চিত্রকূট বিভাগের একটি অংশ।

ঐতিহাসিক বুন্দেলখণ্ড অঞ্চলে অবস্থিত, বান্দা এখানকার শজর পাথরের জন্য বিখ্যাত, যা গহনা তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। এখানকার ঐতিহাসিকভাবে এবং স্থাপত্যগতভাবে উল্লেখযোগ্য অঞ্চলগুলি হল খাজুরাহো এবং কালিনজরখাজুরাহো একটি বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান, যা বিস্তৃতভাবে খোদাই করা মন্দিরগুলির জন্য বিখ্যাত। কালিনজরের দুর্গটি, যুদ্ধের ইতিহাস এবং এর গৌরবময় শিলা ভাস্কর্যগুলির জন্য খ্যাতিমান। [১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালে, পূর্বে বান্দা জেলার অংশ, কারভি এবং মৌ তহসিলগুলি মিলিয়ে নতুন চিত্রকূট জেলা তৈরি হয়। ব্রিটিশ ভারতে, বান্দা সংযুক্ত প্রদেশের এলাহাবাদ বিভাগের একটি শহর ও জেলা ছিল।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালে এখানকার জনসংখ্যা ছিল ১,৭৯৯,৪১০। এটি আগে সামরিক সেনানিবাস ছিল, কিন্তু এখন আর তা নেই। [২]

তহশিল, ব্লক ও থানা[সম্পাদনা]

বান্দায় নারায়ণী, বাবেরু, পালানী এবং আতরা নামে চারটি তহশিল রয়েছে, এবং বদোখর-খুরদ, পৈলাণী, জসপুরা, তিনদ্বারী, নারায়ণী, মহুয়া, বাবেড়ু, বিসান্দা ও কামাসিনফ্রম নামে আটটি ব্লক রয়েছে।

এই জেলায় কোতয়ালী সিটি, কোতোয়ালি দেহাত, মাতুন্ধ, তিনদ্বারী, পৈলাণী, চিল্লা, নারায়ণি, আতারা, গিরওয়া, কালিনজর, বদৌসা, বিসেনদা, বাবেরু, কামাসিন, ফতেগঞ্জ, জসপুরা ও মার্কা নামে সতেরোটি থানা রয়েছে।

পাহাড়[সম্পাদনা]

এই জেলার পাহাড়গুলি বিন্ধ্য মালভূমির অংশ নিয়ে গঠিত যা মৌ এবং কার্বি তহশিলের দক্ষিণতম প্রান্তে অবস্থিত (এখন চিত্রকুট জেলা হিসাবে পরিচিত)। বিন্ধ্য পর্বতের উত্তর দিক বিন্ধ্যাচল শ্রেণী হিসাবে পরিচিত, মৌ তহশিলের পূর্বতম প্রান্তে যমুনার কাছ থেকে শুরু হয়েছে। এটি দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে যমুনা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ধীরে ধীরে উঁচু হয়েছে, যদিও গড় উচ্চতা সমুদ্র তল থেকে ৪৫০ মিটারের উপরে নেই। এটি পবিত্র অনুসূয়া পাহাড়ের কাছে জেলা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে এবং আবার জেলার সঙ্গে মিলেছে নারায়ণী তহশিলের দক্ষিণ-পূর্ব অংশে গোধরামপুরে। এই প্রান্ত থেকে পশ্চিম দিকে কালিনজর পর্যন্ত পাহাড়টি জেলার সীমানা প্রদান করেছে।

ভূগোল[সম্পাদনা]

জেলাটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অনিয়মিত উচ্চ ভূখণ্ডের মিশ্রিত শিলার সঙ্গে নিম্নভূমি নিয়ে গঠিত। নিম্নভূমি অংশটি বর্ষাকালে প্রায়ই জলের নিচে থাকে। বাঘেইন নদীটি জেলার দক্ষিণ-পশ্চিম থেকে উত্তর-পূর্ব দিকে বয়ে গেছে। অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নদীগুলি হল পূর্বে কেন নদী এবং উত্তরে যমুনা। এই অঞ্চলের প্রভাবশালী সম্প্রদায়গুলি হল ক্ষত্রিয়, প্যাটেল, চান্দ্রৌল, চান্ডেলা, বুন্দেলা প্রভৃতি।

অবস্থান এবং সীমানা[সম্পাদনা]

জেলাটি উত্তরপ্রদেশের চিত্রকূটধাম বিভাগে অবস্থিত এবং এর সদর দপ্তর বান্দা। এটি ২৪º৫৩' থেকে ২৫º৫৫' উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮০º০৭' থেকে ৮১º৩৪' পূর্ব দ্রাঘিমাংশের মধ্যে অবস্থিত।। এর উত্তরে ফতেপুর জেলা, পূর্বে চিত্রকুট জেলা, পশ্চিমে হামিরপুর ও মহোবা জেলা এবং দক্ষিণে মধ্যপ্রদেশের সাতনা, পান্না এবং ছাতারপুর সংলগ্ন জেলাগুলি রয়েছে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [Banda District]
  2. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]