আগ্রা জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আগ্রা জেলা
आगरा जिला
উত্তরপ্রদেশের জেলা
উত্তরপ্রদেশে আগ্রার অবস্থান
উত্তরপ্রদেশে আগ্রার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যউত্তরপ্রদেশ
প্রশাসনিক বিভাগআগ্রা
সদরদপ্তরআগ্রা
তহশিল
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্র১. আগ্রা (লোকসভা আসন) - ক্যান্টনমেন্ট, উত্তর, দক্ষিণ, এতমাদপুর
২। ফতেপুর সিক্রি (লোকসভা এলাকা) - গ্রামীণ, বাহ, ফাতেহাবাদ, ফতেপুর সিক্রি, খড়গড়
 • বিধানসভা আসন১. ক্যান্টনমেন্ট
২। উত্তর
৩। দক্ষিণ
৪.গ্রামীণ
৫। বাহ
৬। এতমদপুর
৭। ফাতেহাবাদ
৮। ফতেপুর সিক্রি
৯। খড়গড়
আয়তন
 • মোট৪,০২৭ বর্গকিমি (১,৫৫৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৪৪,১৮,৭৯৭[১]
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা69.৪৪%.[১]
প্রধান মহাসড়কজাতীয় সড়ক ২
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট
Kos Minar#793 at 12 mile on Agra-Fatehpur Sikri Road section of National Highway 21

আগ্রা জেলা; (হিন্দি: आगरा जिला, প্রতিবর্ণী. আগরা জিলা) ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের ৭৫ টি জেলার মধ্যে অন্যতম একটি জেলা। ঐতিহাসিক আগ্রা শহরে এই জেলার সদর দপ্তর অবস্থিত। জেলাটি আগ্রা বিভাগের অন্তর্গত।

ভৌগোলিক অবস্থান[সম্পাদনা]

আগ্রা জেলার উত্তরে রয়েছে মথুরা জেলা, দক্ষিণে রাজস্থানের ঢোলপুর জেলা, পূর্ব দিকে ফিরোজাবাদ জেলা এবং পশ্চিমে রাজস্থানের ভরতপুর জেলা। জেলাটির মোট আয়োতন ৪,০২৭।

বিভাগ[সম্পাদনা]

আগ্রার জেলায় ৬ টি তালুক রয়েছে। তালুকগুলি হল এটমপুর, আগ্রা, কিরাওলি, খড়গড়, ফতেহাবাদ ও বাহ। জেলা সদর হল আগ্রা শহর। এই জেলায় ১৫ টি ব্লক রয়েছে, যথা- এটাদপুর, খাঁদৌলি, শমশাবাদ, ফাতেহাবাদ, জগনার, খেরগড়, সাইয়াইন, আখেননার, আকলা, বিছপুরি, ফতেহপুর সিড়ি, বারৌলি আহির, বাহ, পিনহাট ও জয়তপুর কালান। [2]

এই বিভাগে ৩ টি লোকসভা নির্বাচনী এলাকার য়েছে। লোকসভা নির্বাচনী এলাকাগুলি হল জলেশ, ফিরোজাবাদ এবং আগ্রা। জেলায় ৯ টি বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে। এই ৯ টি বিধানসভা কেন্দ্র হল- বাহ, ফাতেহাবাদ, ইটমদপুর, দয়াল বাগ, আগড়া ক্যান্টনমেন্ট, আগরা পূর্ব, আগরা পশ্চিম, খেরগড় এবং ফতেহপুর সিড়ি।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

আগ্রা জেলার ধর্ম
ধর্ম শতাংশ
হিন্দুধর্ম
  
৮৮.৭৭%
ইসলাম
  
৯.৩১%
শিখ ধর্ম
  
০.২৭%
জৈনধর্ম
  
০.৪৯%
খ্রিস্টধর্ম
  
০.২৩%
বৌদ্ধধর্ম
  
০.০৯%
অন্যান্য†
  
০.৮৩%

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে আগ্রা জেলার জনসংখ্যা ৪৩,৮০,৭৯৩ জন,[১] যা মালদ্বীপ [২] বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকির রাজ্যের সমান।[৩] জেলাটি জনসংখ্যার হিসাবে ভারতের মধ্যে ৪১ তম স্থান পেয়েছে (মোট ৬৪০ টির মধ্যে)।[১] জেলার জনসংখ্যার ঘনত্ব (২৮১০ জন/বর্গ মাইল) ১,০৪৮ জন/প্রতি বর্গ কিলোমিটার।[১] আগ্রারা জেলায় হিন্দুরা ৮৮.৭৭% এবং মুসলমানরা ৯.৩০%।[৪] ২০০১-২০১১ দশকে জেলাটির জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ২১%।[১] আগ্রা জেলায় প্রতি ১০০০ পুরুষ প্রতি নারীর সংখ্যা ৮৫৯ জন[১] এবং সাক্ষরতার হার ৬৯.৪৪%।[১]

ভাষাসমূহ[সম্পাদনা]

এই জেলার মানুষ ব্রজ ভাষায় কথা বলেন। এই ভাষাটিকে হিন্দি ভাষার অন্তর্গত একটি গ্রামীণ ভাষা হিসাবে ধরা হয়, যা উত্তরপ্রদেশের মথুরা ও আগ্রার এবং রাজস্থানের ধৌলপুর ও ভারতপুর জেলা নিয়ে গঠিত ব্রজ অঞ্চলের প্রধান ভাষা। এটি গঙ্গা-যমুনা দোয়াব অঞ্চলের কেন্দ্রীয় প্রান্তের অন্যতম প্রধান ভাষা।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  2. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-০১Moldova 4,314,377 July 2011 est. 
  3. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। ২০১০-১২-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০Kentucky 4,339,367 
  4. "Muslim growth outsmarts Hindus for the first time in Mughal city Agra" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]