মউ জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মৌ জেলা
উত্তর প্রদেশের জেলা
উত্তর প্রদেশের মৌ জেলার অবস্থান
উত্তর প্রদেশের মৌ জেলার অবস্থান
দেশ ভারত
রাজ্যউত্তর প্রদেশ
বিভাগআজমগড়
সদর দপ্তরমৌ
তহশিলমৌ ঘৌসি
সরকার
 • লোকসভাঘৌসি
 • বিধানসভাঘৌসি, মধুবন, মৌনাথ ভঞ্জন (সদর), মোহাম্মদবাদ গোহানা
আয়তন
 • মোট১৭১৩ কিমি (৬৬১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট২২,০৫,১৭০
 • জনঘনত্ব১৩০০/কিমি (৩৩০০/বর্গমাইল)
জনমিতি
 • সাক্ষরতা৭৫.১৬ শতাংশ
 • লিঙ্গ অনুপাত৯০
সময় অঞ্চলআইএসটি(+০৫:৩০)
প্রধান মহাসড়কNH-29
ওয়েবসাইটhttp://mau.nic.in/

মৌ বা মউ জেলা আরতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের একটি অন্যতম জেলা। মৌ শহর হচ্ছে জেলা সদর যা পূর্ব উত্তর প্রদেশের তাঁত শাড়ি উৎপাদনের অঞ্চলগুলোর মধ্যে একটি। ১৯৮৮ সালের ১৯ নভেম্বর মৌ জেলা আজমগড় থেকে আলাদা জেলা হিসাবে উৎকীর্ণ হয়। এটি রাজ্যের দক্ষিণ-পূর্বাংশে অবস্থিত এবং সদর দপ্তর মৌনাথ ভঞ্জনে অবস্থিত। জেলাটি দক্ষিণে গাজীপুর জেলা, পূর্বে বালিয়া জেলা, পশ্চিমে আজমগড় জেলা এবং উত্তরে গোরখপুর ও দেওরিয়া জেলা দ্বারা বেষ্টিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ঐতিহাসিক জনসংখ্যা
বছরজন.ব.প্র. ±%
১৯০১৪,৮৬,৯৪৯—    
১৯১১৪,৬৪,৪৭২−০.৪৭%
১৯২১৪,৭৩,৯৩৫+০.২%
১৯৩১৪,৯০,০৫২+০.৩৩%
১৯৪১৫,৬৭,৮৫১+১.৪৮%
১৯৫১৬,৫৪,২০৮+১.৪৩%
১৯৬১৭,৬৮,১৫৭+১.৬২%
১৯৭১৯,২৬,২৬৩+১.৮৯%
১৯৮১১১,২৬,৮৭৯+১.৯৮%
১৯৯১১৪,৪৬,৫৫৩+২.৫৩%
২০০১১৮,৫৪,৯৫০+২.৫২%
২০১১২২,০৫,৯৬৮+১.৭৫%
উৎস:[১]

ঐতিহাসিক এবং প্রত্নতাত্ত্বিক দৃষ্টিকোণ থেকে অঞ্চলের মধ্যে মৌ হচ্ছে একমাত্র প্রাচীনতম জায়গা। প্রাচীন মানব সাংস্কৃতিক এবং প্রত্নতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ একাধিক স্থানে পাওয়া যায় যা এই অঞ্চলে মানুষের বসবাসের দীর্ঘ ইতিহাসের যথেষ্ট প্রমাণ দেয়। মৌ এর পরিচিত প্রত্নতাত্ত্বিক ইতিহাস প্রায় ১৫০০ বছর পুরনো, যখন পুরো অঞ্চলটি ঘন ঘন বনে ঢাকা ছিল। যারা তমসা নদীর তীরে বসবাস করত, তারা প্রাচীনতম বাসিন্দা এবং এই অঞ্চলের শাসক হিসাবে বিবেচিত হয়।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]