খগড়িয়া জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
খগড়িয়া জেলা
खगडिया जिला
বিহারের জেলা
বিহারে খগড়িয়ার অবস্থান
বিহারে খগড়িয়ার অবস্থান
দেশ ভারত
রাজ্য বিহার
প্রশাসনিক বিভাগ মুঙ্গের
সদরদপ্তর খগড়িয়া
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্র খগড়িয়া
আয়তন
 • মোট ১৪৮৫ কিমি (৫৭৩ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট ১৬,৫৭,৫৯৯
 • ঘনত্ব ১১০০/কিমি (২৯০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা ৬০.৮৭%
 • লিঙ্গানুপাত ৮৮৩
প্রধান মহাসড়ক ৩১ নং জাতীয় সড়ক, ১০৭ নং জাতীয় সড়ক
গড় বার্ষিক বৃষ্টিপাত ১১৮২ মিমি
ওয়েবসাইট দাপ্তরিক ওয়েবসাইট

খগড়িয়া জেলা হল ভারতের বিহার রাজ্যের ৩৯টি জেলার অন্যতম। এই জেলার সদর শহর খগড়িয়া। খগড়িয়া জেলা মুঙ্গের বিভাগের অন্তর্গত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

খগড়িয়া জেলার ভূখণ্ড ফরকিয়া নামেও পরিচিত। কিংবদন্তি অনুসারে, মুঘল সম্রাট আকবর তাঁর রাজস্ব মন্ত্রী টোডরমলকে সাম্রাজ্যের মানচিত্র প্রস্তুত করতে বলেছিলেন। টোডরমল দুর্গম খগড়িয়া এলাকার মানচিত্র তৈরি করতে পারেননি। তাই তিনি এই জায়গাটির নাম দিয়েছিলেন ‘ফরকিয়া’ (হিন্দিতে ‘ফরক’ শব্দের অর্থ পৃথক)।

ভূগোল[সম্পাদনা]

খগড়িয়া জেলার আয়তন ১,৪৮৬ বর্গকিলোমিটার (৫৭৪ মা)।[১] এই জেলার আয়তন গ্রিনল্যান্ডের নারেস দ্বীপের আয়তনের প্রায় সমান।[২] গঙ্গা, কমলা বালান, কোশি, বুড়ি গণ্ডক, কারেহ, কালী কোশি ও বাগমতী – এই সাতটি নদী দিয়ে এই জেলা পরিবেষ্টিত রয়েছে। প্রতি বছর এই নদীগুলিতে বন্যা হয়।

বিভাগ[সম্পাদনা]

খগড়িয়া জেলা দুটি মহকুমায় বিভক্ত। এগুলি হল: খগড়িয়া ও গোগারি।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে ভারত সরকারের পঞ্চায়েত মন্ত্রক দেশের ২৫০টি সর্বাধিক অনগ্রসর জেলার তালিকায় খগড়িয়া জেলার নাম নথিভুক্ত করেছে।[৩] বিহারের যে ৩৬টি জেলা অনগ্রসর অঞ্চল অনুদান তহবিল কর্মসূচির অধীনে অনুদান পেয়ে থাকে, এই জেলা তার মধ্যে অন্যতম।[৩]

জনপরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে, খগড়িয়া জেলার জনসংখ্যা ১,৬৫৭,৫৯৯।[৪] এই জেলার জনসংখ্যা গিনি-বিসসাউ রাষ্ট্র[৫] বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইডাহো রাজ্যের জনসংখ্যার প্রায় সমান।[৬] জনসংখ্যার হিসেবে ভারতের ৬৪০টি জেলার মধ্যে এই জেলার স্থান ৩০০তম।[৪] এই জেলার জনঘনত্ব ১,১১৫ জন প্রতি বর্গকিলোমিটার (২,৮৯০ জন/বর্গমাইল)।[৪] ২০০১-২০১১ দশকে এই জেলায় জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ২৯.৪৬%।[৪] খগড়িয়া জেলায় লিঙ্গানুপাতের হার প্রতি ১০০০ পুরুষে ৮৮৩ জন মহিলা[৪] এবং সাক্ষরতার হার ৬০.৮৭%।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Srivastava, Dayawanti et al. (ed.) (২০১০)। "States and Union Territories: Bihar: Government"। India 2010: A Reference Annual (54th সংস্করণ)। New Delhi, India: Additional Director General, Publications Division, Ministry of Information and Broadcasting (India), Government of India। পৃ: 1118–1119। আইএসবিএন 978-81-230-1617-7 
  2. "Island Directory Tables: Islands by Land Area"United Nations Environment Program। ১৯৯৮-০২-১৮। সংগৃহীত ২০১১-১০-১১। "Nares Land 1,466km2" 
  3. Ministry of Panchayati Raj (সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৯)। "A Note on the Backward Regions Grant Fund Programme"। National Institute of Rural Development। সংগৃহীত সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১১ 
  4. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগৃহীত ২০১১-০৯-৩০ 
  5. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগৃহীত ২০১১-১০-০১। "Guinea-Bissau 1,596,677 July 2011 est." 
  6. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। সংগৃহীত ২০১১-০৯-৩০। "Idaho 1,567,582" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Districts of Bihar টেমপ্লেট:Munger Division

স্থানাঙ্ক: ২৫°৩০′০০″ উত্তর ৮৬°২৮′১২″ পূর্ব / ২৫.৫০০০০° উত্তর ৮৬.৪৭০০০° পূর্ব / 25.50000; 86.47000