উমাইর ইবনে ওয়াহাব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

উমাইর ইবনে ওয়াহাব (আরবী عمير بن وهب) মুহাম্মদ এর একজন সাহাবা ছিলেন । তিনি কুরাইশদের মধ্যে সন্মানিত ও গভীর দৃষ্টি সম্পন্ন ব্যাক্তি ছিলেন ।

নাম ও বংশ পরিচয়==[সম্পাদনা]

উমাইর ইবনে ওয়াহাব এর মূলনাম নাম উমাইর এবং উপনাম/কুনিয়াত আবু উমাইয়া । পিতার নাম ওয়াহাব ইবনে খালাফ ও মাতার উম্মু সাখীলা । উমাইর কুরাইশদের অন্যতম বীর নেতা ছিলেন ।

ইসলাম পূর্ব জীবন==[সম্পাদনা]

মক্কার কুরাইশদের মধ্যে উমাইর ইবনে ওয়াহাব ছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি । তিনি কুরাইশদের যুদ্ধের ব্যপারে গুপ্তচর ও পরামর্শ দাতা হিসাবে কাজ করতেন । বদরের যুদ্ধের সময় তাকে মুসলমানদের সৈন্য ও যাবতীয় অবস্থা জেনে আসার জন্য বদর প্রান্তে পাঠায় । উমাইর সকল তথ্য বিশ্লেষণ করে কুরাইশদের এই যুদ্ধে লিপ্ত হতে নিষেধ করেন এবং মক্কায় ফিরে যেতে নিষেধ করেন । তার কথায় অনেক কুরাইশ প্রভাবিত হলেও আবু জেহেল এর ইচ্ছায় কুরাইশরা বদর যুদ্ধে জড়িয়ে পরেন ।[১]

পরে যুদ্ধ শেষে অনেক কুরাইশদের সাথে [[উমাইর ইবনে ওয়াহাব]] এর ছেলে ওয়াহাবও বন্ধী হন। এতে উমাইর খুব কষ্ট পান । [[সাফওয়ান ইবনে উমাইয়া]] (মক্কা বিজয়ের পরে ইসলাম গ্রহণ করেন ) এর প্ররোচনায় উমাইর আরো ক্ষেপে যান । সাফওয়ান মক্কার তার সকল কিছুর দায়িত্ব নিলে উমাইর মুহাম্মদ(সঃ) কে হত্যা তার ছেলেকে মুক্ত করতে মদিনায় রওনা হন ।

ইসলাম গ্রহণ[সম্পাদনা]

[[উমাইর ইবনে ওয়াহাব]] মুহাম্মদ(সঃ) কে হত্যা করতে এসে ইসলাম ও মুহাম্মদ(সঃ) এর প্রতি বিমুগ্ধ হয়ে ইসলাম গ্রহণ করেন । এবং মক্কাতেই অবস্থান করতে শুরু করেন । [২] তার পুত্র ওয়াহাবকেও মুক্ত করে দেওয়া হয় ।

এদিকে সাফওয়ান উমাইরের জন্য মক্কায় অধীর আগ্রহে বসে আছেন,কবে মুহাম্মদের মৃত্যুর সংবাদ আসবে ?এভাবে অপেক্ষা করতে করতে একদিন মদিনা হতে মক্কার একটা কাফেলা থেকে জানতে পারে উমাইর ইসলাম গ্রহণ করেছেন। এতে সাফওয়ান উমাইরের প্রতি রাগে ফেটে পরেন ।

পরে একদিন উমাইর মুহাম্মদ(সঃ) থেকে অনুমতি নিয়ে মক্কায় আসেন মক্কার নিজে গোত্রের লোকদের মধ্যে দাওয়াতি কাজ করার জন্য । এভাবে উমাইর মক্কায় প্রচুর দাওয়াতি কাজ করতে সক্ষম হন এবং বহু মানুষ উমাইরের হাতে মুসলমান হয় । তিনি উহুদ যুদ্ধের পূর্বে মক্কা থেকে এই বিশাল কাফেলা নিয়ে মদিনায় উপস্থিত হন ।

যুদ্ধে অংশগ্রহন[সম্পাদনা]

উহুদ, খন্দক ও মক্কা বিজয় সহ সকল অভিযানে তিনি মুহাম্মদ(সাঃ) সাথে অংশগ্রহণ করেন ।মক্কা বিজয়ের দিন সে তার বন্ধু সাফওয়ান ইবনে উমাইয়া কে খুজতে থাকেন এবং উমাইয়ার সাহায্যে সাফওয়ান ইসলাম গ্রহণ করেন ।[৩]

খিলাফতের আমলে[সম্পাদনা]

আবু বকরের খিলাফতকালে উমাইর ইবনে ওয়াহাব(রাঃ) সকল গুরুত্বপূর্ণ কাজে খলীফাকে সহযোগিতা করেন। হযরত উমারের খিলাফতকালে আমর ইবনুল আস মিসর অভিযান পরিচালনা করেন।

মিশর অভিযানের ইসকান্দারিয়া বিজয়ে যখন তার বিলম্ব ঘটছিল তখন হযরত উমার আমর ইবনুল আস সাহায্যার্থে মদীনা থেকে চারজন সেনা কমান্ডারের নেতৃত্বে ১০ হাজার সৈন্য পাঠান। এই চার কমান্ডারের একজন ছিলেন হযরত উমাইর ইবনে ওয়াহাব(রাঃ)

মৃত্যু[সম্পাদনা]

হযরত উমারের খিলাফতের শেষ দিকে তিনি ইনতিকাল করেন ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. (বইঃ আসহাবে রাসূলের জীবনকথা – দ্বিতীয় খন্ড) 
  2. [রিজালুন হাওলার রাসূল-৩২৫] 
  3. [রিজালুন হাওলার রাসূল ৩২৫, হায়াতুস সাহাবা-১]