আব বন্দ জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আব ব্যান্ড
آب بند
জেলা
আব ব্যান্ড আফগানিস্তান-এ অবস্থিত
আব ব্যান্ড
আব ব্যান্ড
Location within Afghanistan
স্থানাঙ্ক: ৩২°৫৮′৫৯″ উত্তর ৬৭°৫৮′০১″ পূর্ব / ৩২.৯৮৩° উত্তর ৬৭.৯৬৭° পূর্ব / 32.983; 67.967
Country Afghanistan
Provinceগজনী প্রদেশ
জনসংখ্যা (২০০২)
 • মোট৪১,৩৪০

আব ব্যান্ড জেলা আফগানিস্তানের গজনী প্রদেশের একটি জেলা। ২০০২ সালে এই জেলার সংখ্যা গণনা করা হয় ৪১৩৪০ জন, যাদের অধিকাংশই পশতুন।[১] আব ব্যান্ড কাবুল থেকে কান্দাহার যাওয়ার প্রধান সড়কের পাশে অবস্থিত। আব ব্যান্ড উত্তর ও দক্ষিণ আব এই দুই অংশে বিভক্ত। এই দুইটির মধ্যে রয়েছে একটি মরুভূমি এবং একটি নদী যা দক্ষিণের একটি উপাত্যকার দিকে প্রআাহিত হয়েছে। এই জেলার অধিকাংশই এখন তালেবানদের দখলে, শুধুমাত্র জেলা সদরদপ্তরটি সরকারের অধীনে রয়েছে। এই জেলায় নির্মাণাধীন কোন প্রকল্প নেই, স্থানীয় লোকজন কাজের জন্য নিয়মিতভাবে পাকিস্তান এবং ইরান এ যায়। আব ব্যান্ড এ চার ধরনের জাতিগত গোষ্টী রয়েছে: বোদেন খাইল, না খাইল, মুল খাইল এবং সুরখাইল। আব ব্যান্ড সুমধুর আঙ্গুর এবং রজন এর জন্য বিখ্যাত যা বাণিজ্য ও বিনিময়ের জন্য গজনী শহর ও মুকুর জেলায় রপ্তানি করে থাকে। প্রতিবেশী গ্রাম এবং নিজেদের দৈনন্দিন জিনিসপত্র ক্রয় বিক্রয়ের জন্য এখানে একটি ছোট বাজার রয়েছে। বাজারটি বাজি ও চাউনাই গ্রামের মাঝে অবস্থিত। এই জেলার লোকজন খুবই গরীব; শীতকালে বেচেঁ থাকার জন্য তারা কৃষি ক্ষেতে টানা ৬ মাস কঠোর পরিশ্রম করে। কারিজ হচ্ছে এখানকার পানির উৎস। ২০০০ সালে খরার সময় অধিকাংশ পানির উৎসই শুকিয়ে যায়। যাহোক, এখানে পাম্প মেশিন বসানোর ব্যাপারে এখানকার লোকজন রাজি নয় কারণ তা কারিজের এই অঞ্চলের বাকি অংশ শুকিয়ে ফেলবে। এখানে কোন প্রধান সড়ক নেই, বিশেষ করে দক্ষিণাঞ্চলে শীতকালের প্রায় দুই থেকে আড়াই মাস বরফ দ্বারা রাস্তা আচ্ছাদিত হয়ে পড়ে, তখন লোকজন শুধুমাত্র পায়ে হেঁটে চলাচল করে।

পাহাড়-পর্বত[সম্পাদনা]

বাজারটি বাজি ও চাউনাই গ্রামের মাঝে অবস্থিত। এই জেলার লোকজন খুবই গরীব; শীতকালে বেচেঁ থাকার জন্য তারা কৃষি ক্ষেতে টানা ৬ মাস কঠোর পরিশ্রম করে। কারিজ হচ্ছে এখানকার পানির উৎস। ২০০০ সালে খরার সময় অধিকাংশ পানির উৎসই শুকিয়ে যায়। যাহোক, এখানে পাম্প মেশিন বসানোর ব্যাপারে এখানকার লোকজন রাজি নয় কারণ তা কারিজের এই অঞ্চলের বাকি অংশ শুকিয়ে ফেলবে। এখানে কোন প্রধান সড়ক নেই, বিশেষ করে দক্ষিণাঞ্চলে শীতকালের প্রায় দুই থেকে আড়াই মাস বরফ দ্বারা রাস্তা আচ্ছাদিত হয়ে পড়ে, তখন লোকজন শুধুমাত্র পায়ে হেঁটে চলাচল করে। আব ব্যান্ড জেলায় অনেক পাহাড় পর্বত রয়েছে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হল খাজা লাল পাহাড়, জারকা, লাকা তেগা, খার খোস্তা পর্বত, জেগাই পাহাড় সহ আরো অনেক পাহাড় পর্বত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "District Profile" (PDF)। UNHCR। ২৭ অক্টোবর ২০০৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]