২০১৭ আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০১৭ আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স
Coupe d'Afrique des Nations 2017
আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স ২০১৭-এর লোগো.png
আনুষ্ঠানিক প্রতীক
বিবরণ
স্বাগতিক দেশগ্যাবন
তারিখ১৪ জানুয়ারি – ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
দল১৬ (১টি কনফেডারেশন থেকে)
মাঠ৪ (৪টি আয়োজক শহরে)
চূড়ান্ত অবস্থান
চ্যাম্পিয়ন ক্যামেরুন (৫ম শিরোপা)
রানার-আপ মিশর
তৃতীয় স্থান বুর্কিনা ফাসো
চতুর্থ স্থান ঘানা
পরিসংখ্যান
ম্যাচ৩২
গোল সংখ্যা৬৬ (ম্যাচ প্রতি ২.০৬টি)
শীর্ষ গোলদাতা Junior Kabananga
(৩ গোল)
সেরা খেলোয়াড় Christian Bassogog
ফেয়ার প্লে পুরষ্কার মিশর

২০১৭ আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স (সংক্ষেপে: এএফসিএন ২০১৭ বা সিএন ২০১৭) যা স্পন্সর এর কারনে টোটাল আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স হিসাবে পরিচিত, এটি আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স এর ৩১ তম সংস্করণ ছিল। এটি আফ্রিকার একটি আন্তর্জাতিক ফুটবল প্রতিযোগিতা যা আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশন (সিএএফ) দ্বারা গ্যাবনে আয়োজিত হয়েছিল। যদিও লিবিয়াতে এই প্রতিযোগিতাটি আয়োজিত হওয়ার কথা ছিল।[১] কিন্তু তৎকালীন সময়ে লিবিয়াতে চলমান গৃহযুদ্ধের কারণে সিএএফ তার স্বাগতিক অধিকারগুলি প্রত্যাহার করে নেয়।[২] তখন অনুষ্ঠানটি গ্যাবনে স্থানান্তর করা হয়েছিল।[৩] এ প্রতিযোগিতাটি আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স এর ৬০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর ও অংশ ছিল।

ফাইনালে ক্যামেরুন ২–১ গোলে সাতবারের চ্যাম্পিয়ন মিশরকে পরাজিত করে পঞ্চম বারের মত শিরোপা অর্জন করে।[৪] তৃতীয় স্থান নির্ধারণী খেলায় ঘানাকে ১-০ গোলে হারিয়ে তৃতীয় স্থান অর্জন করে বুর্কিনা ফাসো।

চ্যাম্পিয়ন হিসাবে, ক্যামেরুন রাশিয়ায় ২০১৭ ফিফা কনফেডারেশন্স কাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। প্রতিযোগিতাটির আয়োজক গ্যাবন এবং পূর্বের আসরের চ্যাম্পিয়ন আইভরি কোস্ট উভয়ই গ্রুপ পর্বের তিনটি ম্যাচের নএকটিও জিততে পারিনি এবং গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়।

স্বাগতিক নির্বাচন[সম্পাদনা]

প্রথম নিলাম[সম্পাদনা]

নিলাম সমূহ :

দল সর্বশেষ স্বাগতিক হয়েছিল
বোতসোয়ানা[৫] -
ক্যামেরুন[৬] ১৯৭২
ডিআর কঙ্গো[৭] -
গিনি[৮] -
মরক্কো[৯] ১৯৮৮
দক্ষিণ আফ্রিকা[১০] ২০১৩ [১১]
জাম্বিয়া[১২] -
জিম্বাবুয়ে[১৩] -

সিএএফ ৩০ সেপ্টেম্বর,২০১০ তারিখে তিনটি নিলাম গ্রহণ করেছিল‌। নিলাম গুলো ছিল ২০১৫ এবং ২০১৭ এই দুইটি আসরের জন্য। নিলাম গুলো ছিল কঙ্গো, মরক্কো এবং দক্ষিণ আফ্রিকার। তিনটি নিলামই মূলত একটি তালিকায় প্রকাশ করা হয়েছিল।[১৪] ২০১০ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বরে সিএএফ নিলাম ভুক্ত দেশগুলিতে পরিদর্শন করে স্টেডিয়াম-অবকাঠামো এবং ফুটবলের প্রতি দেশগুলোর আগ্রহ যাচাই করে। তারা প্রথমে ডিআর কঙ্গো পরিদর্শন করেছিল।[১৫] পরিদর্শন করার অল্প সময় পরে, ডিআর কঙ্গো তাদের নিলাম প্রত্যাহার করে নেয়।[১৬] নভেম্বরের শুরুর দিকে মরক্কো পরিদর্শন করা হয়েছিল[১৭] এবং ডিসেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকা পরিদর্শন করা হয়েছিল।

দল সর্বশেষ স্বাগতিক হয়েছিল
মরক্কো ১৯৮৮
দক্ষিন আফ্রিকা ২০১৩

২০১১ সিএএফ সুপার কাপ‌ চলাকালীন সময়ে সিএএফ নির্বাহী কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে মরক্কো ২০১৫ এর সংস্করণটি আয়োজন করবে এবং ২০১৩ সংস্করণটি দক্ষিণ আফ্রিকাতে অনুষ্ঠিত হবে। তবে, লিবিয়ার গৃহযুদ্ধের কারণে লিবিয়ার সাথে দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১৩ সালের স্বাগতিক অধিকার এবং ২০১৭ সালে স্বাগতিক অধিকারের বিনিময় করেছিল।[১]

দ্বিতীয় নিলাম[সম্পাদনা]

নিলাম সমূহ :

  • আলজেরিয়া
  • মিশর
  • গ্যাবন
  • ঘানা

২২ আগস্ট, ২০১৪ এ লিবিয়া স্বাগতিক হিসাবে প্রত্যাহার করার পর, সিএএফ ঘোষণা করেছিল যে তারা নতুন স্বাগতিকের জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করবে।[১৮] আলজেরিয়া, মিশর, গ্যাবোন এবং ঘানা সিএএফ দ্বারা আয়োজক মানদণ্ডের সাথে অনুগত হওয়ার জন্য সংকল্পবদ্ধ ছিল।[১৯] [২০] কিন্তু পরে মিশর সরে যায়।[২১] তবে কিছু কিছু দেশ যদিও আগ্রহ প্রকাশ করেছিল তবে দরপত্র দেয়নি তাদের মধ্যে রয়েছে ইথিওপিয়া,[২২] মালি,[২৩] এবং তানজানিয়া।[২৪] কেনিয়া তার প্রতিবেশী রুয়ান্ডা এবং উগান্ডার সাথে একটি যৌথ নিলাম নিয়ে আলোচনা করেছিল,[২৫] তবে শেষ পর্যন্ত একাই নিলামে অংশ নেয়। ৮ এপ্রিল ২০১৫,[২৬] সিএএফ প্রেসিডেন্ট গ্যাবনকে স্বাগতিক হিসেবে ঘোষণা করে। সিএএফ নির্বাহী কমিটি কর্তৃক নির্বাচনী ফলাফল নিম্নলিখিত তালিকায় উপস্থাপন করা হয়েছে।[৩]

ফলাফল
দেশ ভোট
গ্যাবন
আলজেরিয়া
ঘানা
মিশর প্রত্যাহার
মোট ভোট ১৩

বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

  যোগ্যতা অর্জনে সফল
  যোগ্যতা অর্জনে ব্যর্থ
  প্রত্যাহার অথবা অংশগ্রহণ করেনি
  সিএএফ এর অংশ নয়

স্বাগতিক দেশ নির্বাচনের পরপরই ৮ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছিল।[২৬] স্বাগতিক দলটিকেও একটি গ্রুপে স্থান দেওয়া হয়েছিল তবে স্বাগতিক দলের ম্যাচগুলো বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচ হিসেবে ধরা হয় এবং ম্যাচগুলো পয়েন্ট তালিকায় যুক্ত করা হয়নি। সর্বমোট ৫১ টি দেশ বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ করেছিল। তার তন্মধ্যে ইরিত্রিয়া এবং সোমালিয়া অংশগ্রহণ করতে অস্বীকার করে এবং চাদকে প্রত্যাহার করা হয়েছিল। অন্যদিকে, ২০১৫ সংস্করণে স্বাগতিক অধিকার অগ্রাহ্য করার কারণে মরক্কোকে পরবর্তী দুই আসরের অংশগ্রহণ করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।[২৭] কিন্তু পরবর্তীতে আরবিট্রেশন কোর্ট এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলে মরক্কোকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের অনুমতি দেওয়া হয়।[২৮] আবার তিনবারের চ্যাম্পিয়ন নাইজেরিয়া যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি।[২৯]

যোগ্য দলসমূহ[সম্পাদনা]

নিম্নলিখিত ১৬ টি দল চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার জন্য যোগ্যতা অর্জনে সফল হয়েছিল।[৩০]

দল যোগ্যতা অর্জনের মাধ্যম যোগ্যতা অর্জনের তারিখ সর্বমোট অংশগ্রহণ সর্বশেষ অংশগ্রহণ পূর্ববর্তী সেরা সাফল্য তৎকালীন ফিফা রেঙ্কিং
 গ্যাবন স্বাগতিক ৮ এপ্রিল ২০১৫ ৭তম কোয়াটার-ফাইনাল (১৯৯৬, ২০১২)
 মরক্কো গ্রুপ এফ বিজয়ী ২৯ মার্চ ২০১৬ ১৬তম বিজয়ী (১৯৭৬)
 আলজেরিয়া গ্রুপ‌ জে বিজয়ী ২ জুন ২০১৬ ১৭তম বিজয়ী (১৯৯০)
 ক্যামেরুন গ্রুপ এম বিজয়ী ৩ জুন ২০১৬ ১৮তম বিজয়ী (১৯৮৪, ১৯৮৮, ২০০০, ২০০২)
 সেনেগাল গ্রুপ কে বিজয়ী ৪ জুন ২০১৬ ১৪তম রানার-আপ (২০০২)
 মিশর গ্রুপ জি বিজয়ী ৪ জুন ২০১৬ ২৩rd বিজয়ী (১৯৫৭, ১৯৫৯, ১৯৮৬, ১৯৯৮, ২০০৬, ২০০৮, ২০১০)
 ঘানা গ্রুপ এইচ বিজয়ী ৫ জুন ২০১৬ ২১st বিজয়ী (১৯৬৩, ১৯৬৫, ১৯৭৮, ১৯৮২)
 গিনি-বিসাউ Group E বিজয়ী ৫ জুন ২০১৬ ১st Debut
 জিম্বাবুয়ে Group L বিজয়ী ৫ জুন ২০১৬ ৩rd Group stage (২০০৪, ২০০৬)
 মালি Group C বিজয়ী ৫ জুন ২০১৬ ১০তম রানার-আপ (১৯৭২)
 কোত দিভোয়ার Group I বিজয়ী ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ২২nd বিজয়ী (১৯৯২, ২০১৫)
 উগান্ডা Group D রানার-আপ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ৬তম রানার-আপ (১৯৭৮)
 বুর্কিনা ফাসো Group D বিজয়ী ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১১তম রানার-আপ (২০১৩)
 তিউনিসিয়া Group A বিজয়ী ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১৮তম বিজয়ী (২০০৪)
 গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র Group B বিজয়ী ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১৮তম বিজয়ী (১৯৬৮, ১৯৭৪)
 টোগো Group A রানার-আপ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ৮তম Quarter-finals (২০১৩)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "South Africa replace Libya as 2013 Nations Cup hosts"। BBC। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০১২ 
  2. "Libya stripped of right to host 2017 Nations Cup"। ২৩ আগস্ট ২০১৪। ২৬ আগস্ট ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "Gabon named hosts of 2017 Africa Cup of Nations after beating rival bids"The GuardianReuters। ৮ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  4. "Afcon 2017: Cameroon's Aboubakar wins final with late goal against Egypt"The Guardian। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  5. "BFA eyes new stadium to host 2015 AFCON"Mmegi। ১৪ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১০ 
  6. "Cameroon to host African Cup of Nations?"global post। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১০। ৯ অক্টোবর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১০ 
  7. "DR Congo name local committee to back 2015 nations cup bid"। Star Africa। ২০ আগস্ট ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২ অক্টোবর ২০১০ [অকার্যকর সংযোগ]
  8. "Guinea Wants To Host 2015 Africa Cup Of Nations"। goal.com। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১০ 
  9. "Morocco to host African Cup of Nations?"global post। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১০। ৯ অক্টোবর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১০ 
  10. "SA bids for 2015 Nations Cup"। KickOff Magazine। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১০। ২ অক্টোবর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১০ 
  11. At the time of bidding, 1996 was South Africa's previous time hosting. They would later step in to host the 2013 AFCON in place of war-torn Libya.
  12. "Zambia Bids to Host 2015 Africa Cup Of Nations"। Zambian Watchdog। ৫ নভেম্বর ২০১০। ৯ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১০ 
  13. "Zim's Afcon bid faces SA challenge"Zimbabwe Independent। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১০। ৫ ডিসেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১০ 
  14. "CAN 2015, 2017 bid applications closed"। CAF Online। ২ অক্টোবর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১০ 
  15. "Organisation de la Can 2015 : Une commission de la Caf en Rdc le 12 novembre prochain en visite d'inspection"। Groupelaviner। ২২ অক্টোবর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১০ 
  16. "DR Congo withdraws CAN 2015, 2017 bid"। CAF Online। ১৫ নভেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১০ 
  17. "AFCO 2015 and 2017/ Morocco: CAF for inspection in Casablanca"। Star Africa। ১০ নভেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১০ [অকার্যকর সংযোগ]
  18. "2017 Nations Cup: Seven countries bid to host finals"BBC Sport। ৭ অক্টোবর ২০১৪। 
  19. "Other Resolutions of the Executive Committee Meeting of 11-11-2015"। CAF। ১৬ নভেম্বর ২০১৪। 
  20. "2017 Nations Cup: Four nations left to bid to host tournament"। BBC। ১৭ নভেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  21. "Africa Cup of Nations: Egypt confirms 2017 bid withdrawal"। BBC। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  22. "Ethiopia to bid for 2017 African Cup"USA TodayAssociated Press। ২৮ আগস্ট ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  23. "Mali to bid for 2017 Africa Cup of Nations"Yahoo! NewsAgence France-Presse। ২৭ আগস্ট ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  24. "Tanzania to bid for the 2017 Cup of Nations"। Goal.com। ২৬ আগস্ট ২০১৪। 
  25. "Kenya, Rwanda and Uganda stage joint bid for 2017 Nations Cup"। New Vision। ২৮ আগস্ট ২০১৪। ১২ অক্টোবর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০২১ 
  26. "Format of 2017 AFCON Qualifiers and 2018 World Cup"। CAFonline.com। ২২ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৫  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "draw-announcement" নামটি একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  27. "Morocco Fined, Banned From Two AFCON Tournaments"। CAF Online। ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  28. "Morocco win appeal over Afcon 2017 and 2019 bans"BBC Sport। ২ এপ্রিল ২০১৫। 
  29. "Afcon 2017: Nigeria fail to qualify after defeat by Egypt"BBC Sport। ২৯ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৬ 
  30. "Total আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স, Gabon 2017: Media guide" (PDF)। CAF।