সাঁচী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

স্থানাঙ্ক: ২৩°২৮′৪৬″ উত্তর ৭৭°৪৪′২৩″ পূর্ব / ২৩.৪৭৯৪১০° উত্তর ৭৭.৭৩৯৬১৬° পূর্ব / 23.479410; 77.739616

সাঁচীর বৌদ্ধ স্মারকসমূহ
সাঁচী স্তুপ
ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান
অবস্থান ভারত উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানদণ্ড (i)(ii)(iii)(iv)(vi)[১]
তথ্যসূত্র ৫২৪
স্থানাঙ্ক ২৩°২৮′৫১″ উত্তর ৭৭°৪৪′১১″ পূর্ব / ২৩.৪৮০৭° উত্তর ৭৭.৭৩৬৩° পূর্ব / 23.4807; 77.7363
শিলালিপির ইতিহাস ১৯৮৯ (ত্রয়োদশ সভা)

বৌদ্ধ বিহার ও অন্যান্য বৌদ্ধ স্মারকস্থলের জন্য বিখ্যাত সাঁচী (হিন্দি: सॅाची) ভারতের মধ্য প্রদেশ রাজ্যের রায়সেন জেলার সাঁচী শহরে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মৌর্য্য যুগ[সম্পাদনা]

অশোক স্তম্ভ

সাঁচীর স্তূপ মৌর্য্য সম্রাট অশোক দ্বারা খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় অব্দে নির্মিত হওয়ায় এটি ভারতের পাথর নির্মিত প্রাচীনতম স্থাপত্য হিসেবে গণ্য হয়।[২] অশোকের স্ত্রী দেবী এই স্তূপ নির্মাণের দেখাশোনা করেন। গৌতম বুদ্ধের দেহাবশেষের ওপর অর্ধগোলকাকারে এই স্তূপ নির্মিত হয়েছে। স্তূপের ওপরে একটি ছত্র এবং খ্রিস্টপূর্ব প্রথম শতাব্দীতে স্তূপের চারপাশে সুন্দর ভাবে অলঙ্কৃত তোরণ নির্মাণ করা হয়। স্তূপের নিকটে বেলেপাথর দ্বারা নির্মিত অশোক স্তম্ভ রয়েছে। এই স্তম্ভে ব্রাহ্মীশঙ্খ লিপিতে খোদাই করা রয়েছে।

শুঙ্গ যুগ[সম্পাদনা]

অশোকবদন অনুসারে, খ্রিস্টপূর্ব দ্বিতীয় শতাব্দীতে পুষ্যমিত্র শুঙ্গের রাজনৈতিক উত্থানের সময় স্তূপটির অনেকাংশ বিনষ্ট করা হয়। পুষ্যমিত্র শুঙ্গের পুত্র অগ্নিমিত্র স্তূপটির পুনর্নিমাণ করেন।[৩] পরবর্তীকালে পাথর দিয়ে স্তূপটির আয়তন দ্বিগুণ করা হয়। স্তূপের উপরিভাগকে চ্যাপটা করে তিনটি ছত্র স্থাপন করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://whc.unesco.org/en/list/524.
  2. Buddhist Art Frontline Magazine May 13–26, 1989
  3. John Marshall, A Guide to Sanchi, p. 38. Calcutta: Superintendent, Government Printing (1918).

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]