মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন
বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানঝিনাইদহ জেলা খুলনা বিভাগ
 বাংলাদেশ
মালিকানাধীনবাংলাদেশ রেলওয়ে
পরিচালিতবাংলাদেশ রেলওয়ে
লাইনদর্শনা জংশন-খুলনা লাইন
প্ল্যাটফর্ম?
ট্রেন পরিচালকপশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংআছে
সাইকেলের সুবিধাআছে
প্রতিবন্ধী প্রবেশাধিকারআছে
ইতিহাস
চালু১৯৫১
পরিষেবা
চালু
অবস্থান

মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন বাংলাদেশের খুলনা বিভাগের ঝিনাইদহ জেলার একটি রেলওয়ে স্টেশন[১]

অবস্থান[সম্পাদনা]

মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন দর্শনা জংশন-খুলনা লাইনের দর্শনা জংশন-যশোর জংশন অংশে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি সরাসরি যাতায়াত ব্যবস্থা চালু করার জন্য বৃটিশ সরকার ১৮৭৮ সালে চিলাহাটি-পার্বতীপুর-সান্তাহার-দর্শনা লাইন এবং কলকাতা থেকে খুলনার সাথে যশোর হয়ে রেলপথ নির্মাণ করে। তবে ১৯৪৭ এ দেশ ভাগ হয়ে যাবার পর দুই দেশের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। রাজশাহী রংপুরের সাথে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের খুলনার সাথে সরাসরি রেল যোগাযোগ ব্যাহত হয়। তাই খুব দ্রুত সময়ে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সরকার দ্রুত দর্শনা জংশন থেকে যশোর জংশন পর্যন্ত নতুন রেলপথ স্থাপন করে[২] ১৯৫১ সালের মধ্যে।[৩] এসময় মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন তৈরি করা হয়।

পরিষেবা[সম্পাদনা]

মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে যেসব ট্রেন চলাচল করে নিম্নে তা উল্লেখ করা হলো:

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. FNS24। "ঝিনাইদহে ৫ টি রেল স্টেশনের জায়গা দখল"Fns24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৬ 
  2. "প্রবল চাহিদার বিপরীতে রেল কেন জনবান্ধব হতে পারল না"যুগান্তর। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৫ 
  3. "রেলওয়ে - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৬