বীর শ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান স্মৃতি জাদুঘর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

মহান মুক্তিযুদ্ধে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বীরসেনানী বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট ল্যাফটেন্যান্ট মতিউর রহমানের অনবদ্য ভূমিকাকে স্বীকার করে ও তাঁর স্মৃতিকে ধরে রাখার প্রয়াসে ২০০৮ সালের ৩১ মার্চ বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান স্মৃতি জাদুঘর স্থাপিত হয় [১][২]

অবস্থান[সম্পাদনা]

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার সাবেক রামনগর গ্রামে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান স্মৃতি জাদুঘর অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সাত বীরশ্রেষ্ঠতিন ভাষাশহীদের জন্মস্থানে জাদুঘর ও লাইব্রেরি নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ২০০৮ সালের ৩১ [৩] মার্চ উপঅধিনায়ক এ কে খন্দকার বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান স্মৃতি জাদুঘর এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন|

বিবরণ[সম্পাদনা]

বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান স্মৃতি জাদুঘর এ প্রায় ২ হাজার ৮০০ বইটি রয়েছে। তবে এই জাদুঘরে বীরশ্রেষ্ঠের ব্যবহার্য কোন স্মৃতি চিহ্ন নেয়।

সময়সূচি[সম্পাদনা]

প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকে [৪]|

কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা[সম্পাদনা]

কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা

  • তত্ত্বাবধায়ক এনামুল হক
  • গ্রন্থাগারিক আকলিমা আক্তার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। "দর্শনীয় স্থান"http://www.bangladesh.gov.bd/  |website= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  2. "নরসিংদীতে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মতিউর রহমানের মৃত্যূ বার্ষিকীতে কোন কর্মসূচী পালিত হয়নি"http://cnanews24.com। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২১, ২০১৪  |website= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  3. "মতিনগরের বাসিন্দা হতে চায় গ্রামবাসী"। দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০ অগাস্ট ২০১০  Authors list-এ |প্রথমাংশ1= এর |শেষাংশ1= নেই (সাহায্য)
  4. "বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পূর্ণাঙ্গতা পায়নি ৪ বছরেও"www.dainikdestiny.com