আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর
স্থাপিত২০১২
অবস্থানজহুরুল হক হল, ঢাকা, বাংলাদেশ

আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর বাংলাদেশের ঢাকা জেলার পলাশীতে জহুরুল হক হলের ভেতরে অবস্থিত। ২০১২ সালের ১২ মার্চ জহুরুল হক হলের ভেতরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র আবুল বরকত নামে এই স্মৃতি জাদুঘর ও সংগ্রহশালার উদ্বোধন করেন ভাষাসৈনিক ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা বিচারপতি হাবিবুর রহমান।[১]

বর্ণনা[সম্পাদনা]

বরকতের জন্ম ১৯২৮ সালে মুর্শিদাবাদে। ১৯৪৮ সালে ভর্তি হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানে। স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন ১৯৫১ সালে। বায়ান্নর একুশে ফেব্রুয়ারিতে প্রতিবাদ মিছিলে যোগ দিয়ে তিনি শহীদ হন।

পলাশীর মোড় থেকেই চোখে পড়ে দোতলা দৃষ্টিনন্দন ভবন জহুরুল হক হল যার পেছনের গেট দিয়ে ঢুকলেই হাতের বাঁয়ে এই জাদুঘর। বরকতের ব্যক্তিগত ছবি, চিঠি, ব্যবহৃত জিনিসপত্র, মরণোত্তর একুশে পদক, বিশ্ববিদ্যালয়ের সনদ ছাড়াও ভাষা আন্দোলনের নানা সংগ্রহ দিয়ে সাজানো হয়েছে জাদুঘর।[২]

দোতলায় আছে একটি পাঠাগার। সেখানে মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনের ওপর বাংলাদেশে প্রকাশিত দলিল ও বইপত্রও আছে। জাদুঘরটি দর্শনার্থীদের জন্য রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

সংগ্রহ[সম্পাদনা]

স্মৃতিফলক পার হয়ে ভেতরে ঢোকার পরে দেয়ালে বিশাল ক্যানভাসে আঁকা ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস, ‘রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই’ দাবিতে ছাত্রদের মিছিল। মিছিলে সরকারি বাহিনীর গুলিবর্ষণ। গুলিতে শহীদ ও তাঁদের স্মরণে প্রথম শহীদ মিনার এবং তারপর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, শ্রদ্ধাঞ্জলি ও প্রভাতফেরি। ডান পাশে নিদর্শন ও আলোকচিত্র। নিদর্শনের মধ্যে রয়েছে ভাষাশহীদ আবুল বরকতের ব্যবহৃত একটি খেলনা, তিনটি কাপ-পিরিচ, বাবাকে লেখা বরকতের তিনটি চিঠি, বরকতের ডিগ্রির সনদ। সংগ্রহশালায় রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চের ছাত্র আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৫২ সালের আন্দোলন, ২১ ফেব্রুয়ারি বরকতের কবরে তাঁর বাবা-মায়ের শ্রদ্ধাঞ্জলি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের প্রভাতফেরি, মাওলানা ভাসানী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রভাতফেরির ছবি, একুশের গানসহ নানা ঘটনার আলোকচিত্র রয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ভাষাশহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর স্মৃতিজাগানিয়া ভাষা জাদুঘর"। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ 
  2. "পূর্ণাঙ্গ রূপ পাচ্ছে বরকত স্মৃতি জাদুঘর"। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জানুয়ারি ২০১৯