ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ
দলের লোগো
ডাকনামলান্ডস্লিদিদ
অ্যাসোসিয়েশনফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনউয়েফা (ইউরোপ)
প্রধান কোচহাকান এরিকসন
অধিনায়কহালুর হানসন
সর্বাধিক ম্যাচফ্রদি বেনিয়ামিনসেন (৯৪)
শীর্ষ গোলদাতারগবি জাকবসেন (১০)
মাঠথোশলুর
ফিফা কোডFRO
ওয়েবসাইটwww.fsf.fo
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১০৭ অপরিবর্তিত (১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ৭৪ (জুলাই ২০১৫, অক্টোবর ২০১৬)
সর্বনিম্ন১৯৮ (সেপ্টেম্বর ২০০৮)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৪৪ বৃদ্ধি(১ এপ্রিল ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ১৩৬ (মার্চ ২০১৮)
সর্বনিম্ন১৭৩ (জুন ২০০৮, সেপ্টেম্বর ২০০৮)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 আইসল্যান্ড ১–০ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ 
(আক্রানেস, আইসল্যান্ড; ২৪ আগস্ট ১৯৮৮)
বৃহত্তম জয়
 ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ৩–০ সান মারিনো 
(তোফতির, ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ; ২৫ মে ১৯৯৫)
 জিব্রাল্টার ১–৪ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ 
(জিব্রাল্টার; ১ মার্চ ২০১৪)
 ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ৩–০ লিশটেনস্টাইন 
(মারবেয়া, স্পেন; ২৫ মার্চ ২০১৮)
বৃহত্তম পরাজয়
 যুগোস্লাভিয়া ৭–০ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ 
(বেলগ্রেড, যুগোস্লাভিয়া; ১৬ মে ১৯৯১)
 রোমানিয়া ৭–০ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ 
(বুখারেস্ট, রোমানিয়া; ৬ মে ১৯৯২)
 ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ০–৭ নরওয়ে 
(তোফতির, ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ; ১১ আগস্ট ১৯৯৩)
 ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ১–৮ যুগোস্লাভিয়া 
(তোফতির, ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ; ৬ অক্টোবর ১৯৯৬)

ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ জাতীয় ফুটবল দল (ফ্যারো: Føroyska fótbóltsmanslandsliðið, ইংরেজি: Faroe Islands national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৮৮ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৯০ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা উয়েফার সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৮৮ সালের ২৪শে আগস্ট তারিখে, ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; আইসল্যান্ডের আক্রানেসে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ আইসল্যান্ডের কাছে ১–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

৫,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট থোশলুরে লান্ডস্লিদিদ নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জের রাজধানী তোশনে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন হাকান এরিকসন এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন হোসন্সের মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হালুর হানসন

ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপেও ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ এপর্যন্ত একবারও অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়নি।

ফ্রদি বেনিয়ামিনসেন, ওলি ইয়োহানেসেন, ইয়াকুপ মিকেলসেন, রগবি জাকবসেন এবং তদি ইয়নসনের মতো খেলোয়াড়গণ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০১৫ সালের জুলাই মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ তাদের ইতিহাসে সর্বপ্রথম সর্বোচ্চ অবস্থান (৭৪তম) অর্জন করে এবং ২০০৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৯৮তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১৩৬তম (যা তারা ২০১৮ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১৭৩। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১০৬ অপরিবর্তিত  মোজাম্বিক ১১৮৫
১০৭ অপরিবর্তিত  ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ১১৮৩
১০৮ বৃদ্ধি  আজারবাইজান ১১৮০
১০৮ বৃদ্ধি  এস্তোনিয়া ১১৮০
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১ এপ্রিল ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৪২ অপরিবর্তিত  তুর্কমেনিস্তান ১২৬৫
১৪৩ অপরিবর্তিত  ফরাসি গায়ানা ১২৬৪
১৪৪ বৃদ্ধি  ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ১২৬০
১৪৫ হ্রাস ২৬  মোজাম্বিক ১২৫৯
১৪৬ হ্রাস  নাইজার ১২৫৬

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ উত্তীর্ণ হয়নি ১০ ১০ ৩৮
ফ্রান্স ১৯৯৮ ১০ ১০ ৩১
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১০ ২৩
জার্মানি ২০০৬ ১০ ২৭
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১০ ২০
ব্রাজিল ২০১৪ ১০ ২৯
রাশিয়া ২০১৮ ১০ ১৬
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২৩ ৭০ ৫৬ ৩৫ ১৮৪

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১ এপ্রিল ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]