কালিম্পং জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
কালিম্পং জেলা
कालेबुङ
জেলা
দূরবর্তী পাহাড় থেকে দেখা কালিম্পং জেলার সদর শহর কালিম্পং , পটভূমিতে হিমালয় পর্বত
দূরবর্তী পাহাড় থেকে দেখা কালিম্পং জেলার সদর শহর কালিম্পং , পটভূমিতে হিমালয় পর্বত
কালিম্পং জেলা পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
কালিম্পং জেলা
কালিম্পং জেলা
স্থানাঙ্ক: ২৭°০৪′ উত্তর ৮৮°২৮′ পূর্ব / ২৭.০৬° উত্তর ৮৮.৪৭° পূর্ব / 27.06; 88.47স্থানাঙ্ক: ২৭°০৪′ উত্তর ৮৮°২৮′ পূর্ব / ২৭.০৬° উত্তর ৮৮.৪৭° পূর্ব / 27.06; 88.47
রাষ্ট্র ভারত
প্রদেশ পশ্চিমবঙ্গ
সরকার
 • শাসক কালিম্পং পৌরসভা
আয়তন
 • মোট ১০৫৬.৫ কিমি (৪০৭.৯ বর্গমাইল)
উচ্চতা ১২৪৭ মিটার (৪০৯১ ফুট)
 • ঘনত্ব ৪০.৭০/কিমি (১০৫.৪/বর্গমাইল)
ভাষা
 • আঞ্চলিক নেপালি, তিব্বতি, ভূটিয়া, , শেরপা লেপচা, কিরান্তি
 • দাপ্তরিক নেপালি, বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি[১]
সময় অঞ্চল আইএসটি (ইউটিসি+৫:৩০)
পিন ৭৩৪ ৩০১
টেলিফোন কোড ০৩৫৫২
যানবাহন নিবন্ধন ডব্লিউ বি-৭৮, ৭৯
লোকসভা নির্বাচনী এলাকা দার্জিলিং
বিধানসভা নির্বাচনী এলাকা কালিম্পং

কালিম্পং জেলা (নেপালি: कालिम्पोङ; তিব্বতি: ཀ་སྦུག) ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে অবস্থিত জলপাইগুড়ি বিভাগের একটি জেলানিম্ন হিমালয়-এ অবস্থিত। গড় উচ্চতা ১,২৫০ মিটার (৪,১০১ ফু)।[২] দার্জিলিং জেলার কালিম্পং মহকুমা ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ সালে পৃথক ভাবে কালিম্পং জেলা হিসাবে পরিচিত হয়। কালিম্পং জেলার সদর দপ্তর কালিম্পং শহরের উপকণ্ঠে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ২৭ মাউন্টেন ডিভিশন অবস্থিত।[৩]

কালিম্পং-এর পরিচিতি রয়েছে শহরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির জন্য। এগুলির অধিকাংশ ব্রিটিশ আমলে স্থাপিত হয়।[৪] চীনের তিব্বত আগ্রাসন ও ভারত-চীন যুদ্ধের আগে পর্যন্ত এই শহর ছিল ভারত-তিব্বত বাণিজ্যদ্বার। ১৯৮০-র দশক থেকে কালিম্পং ও প্রতিবেশী দার্জিলিং পৃথক গোর্খাল্যান্ড রাজ্য আন্দোলনের প্রধান কেন্দ্র।

কালিম্পং তিস্তা নদীর ধারে একটি শৈলশিরার উপর অবস্থিত। মনোরম জলবায়ু ও সহজগম্যতা একে জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র করেছে। উদ্যানপালনে কালিম্পং বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। এখানে নানাপ্রকার অর্কিড দেখা যায়। এখানকার নার্সারিগুলিতে হিমালয়ের ফুল, স্ফীতকন্দ (tubers) ও রাইজোমের ফলন চলে। কালিম্পং-এর অর্থনীতিতে এই ফুলের বাজার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।[২] নেপালি, অন্যান্য আদিবাসী উপজাতি ও ভারতের নানা অংশ থেকে অভিনিবেশকারীরা শহরের প্রধান বাসিন্দা। কালিম্পং বৌদ্ধধর্মের একটি কেন্দ্র। এখানকার জ্যাং ঢোক পালরি ফোডাং বৌদ্ধমঠে বহু দুষ্প্রাপ্য তিব্বতি বৌদ্ধ পুঁথি রক্ষিত আছে।[৫]

নামের উৎপত্তি[সম্পাদনা]

কালিম্পং নামের সঠিক উৎস অজ্ঞাত। সর্বজনগ্রাহ্য মত হল, তিব্বতি ভাষায় কালিম্পং মানে রাজার মন্ত্রীদের সভা (বা বেড়া)। কথাটি এসেছে কালোন (রাজার মন্ত্রী) ও পং (বেড়া) শব্দদুটি থেকে। অন্য মতে, লেপচা ভাষায় কালিম্পং শব্দটির অর্থ যে শৈলশিরায় আমরা খেলা করি। অতীতে এখানে স্থানীয় আদিবাসীদের গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়ানুষ্ঠানের আসর বসত। পাহাড়ের অধিবাসীরা এই অঞ্চলকে কালিবং-ও (কালো নাল (spur)) বলে থাকেন।[৬]

দি আনটোল্ড অ্যান্ড আননোন রিয়ালিটি অ্যাবাউট দ্য লেপচাস গ্রন্থের রচয়িতা কে পি তামসাং-এর মতে, কালিম্পং কথাটি এসেছে কালেনপাং শব্দ থেকে, লেপচা ভাষায় যার অর্থ গোষ্ঠীর ছোটো পাহাড় ("Hillock of Assemblage")।[৭] শব্দটি প্রথমে হয় কালীবাং। পরে আরও বিকৃত হয়ে হয় কালিম্পং। অন্য মতে, এই অঞ্চলে বহুল প্রাপ্ত তান্তব উদ্ভিদ কাউলিম-এর নামানুসারে এই অঞ্চলের নাম হয়েছে কালিম্পং।কালিম্পং মহুকুমা নতুন জেলা হিসাবে আত্মপ্রকাশের পর জেলার নামও রাখা হয় কালিম্পং।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

এই কালিম্পং জেলা একটি মহুকুমা (কালিম্পং মহকুমা), কালিম্পং পুরসভা এবং কালিম্পং-১, কালিম্পং-২ ও গোরুবাথান ব্লক তিনটি নিয়ে গঠিত। এই ব্লকে ৪২টি গ্রাম পঞ্চায়েত রয়েছে। কালিম্পং এই মহকুমার সদর শহর। কালিম্পং পুরসভা ছাড়াও এই মহকুমা ৪২টি গ্রাম পঞ্চায়েত অবস্থিত। গ্রাম পঞ্চায়েতগুলি কালিম্পং-১, কালিম্পং-২ ও গোরুবাথান ব্লকের অধীনস্থ।[১]

ব্লক[সম্পাদনা]

কালিম্পং-১ ব্লক[সম্পাদনা]

কালিম্পং-১ ব্লক ১৮টি গ্রাম পঞ্চায়েত নিয়ে গঠিত। এগুলি হল: বং, কালিম্পং, সামালবং, তিস্তা, ড. গ্রাহামস হোমস, নিম্ন এছায়, সামথার, নিমবং, ডুংরা, উচ্চ এছায়, সেওকবির, ভালুকহোপ, ইয়াংমাকুম, পাবরিংটার, সিনডেপং, কাফের কানকে বং, পুডুং ও তাশিডিং।কালিম্পং এই ব্লকের একমাত্র থানা। ব্লকের সদর কালিম্পং।

কালিম্পং-২ ব্লক[সম্পাদনা]

কালিম্পং-২ ব্লক ১৩টি গ্রাম পঞ্চায়েত নিয়ে গঠিত। এগুলি হল: দালাপচন্দ, কাশিয়ং, লোলে, লিংসেইখা, গিতাব্লিং, লাআ-গিতাবেয়ং, পেয়ং, কাগে, লিংসে, শাংসে, পেডং স্যাকিয়ং ও শান্তুক। এই ব্লকে কোনো থানা নেই। ব্লকের সদর আলগোরা।

গোরুবাথান ব্লক[সম্পাদনা]

গোরুবাথান ব্লক ১১টি গ্রাম পঞ্চায়েত নিয়ে গঠিত। এগুলি হল: দালিম, গোরুবাথান-২, পাটেংগোডাক, টোডেটাংটা, গোরুবাথান-১, কুমাই, পোখরেবং, স্যামসিং, আহালে, নিম ও রোঙ্গো।এই ব্লকে দুটি থানা রয়েছে। যথা, গোরুবাথান ও জলঢাকা।ব্লকের সদর ফাগু।

বিধানসভা কেন্দ্র[সম্পাদনা]

সীমানা পুনর্নির্ধারণ কমিশনের সুপারিশ অনুসারে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা কেন্দ্রগুলি যে সীমানা পুনর্নির্ধারিত হয়েছে, সমগ্র মহকুমাটি নিয়ে কালিম্পং বিধানসভা কেন্দ্র গঠিত হয়েছে। এই বিধানসভা দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Report of the Commissioner for Linguistic Minorities in India: 48th report (July 2010 to June 2011)"। Commissioner for Linguistic Minorities, Ministry of Minority Affairs, Government of India। পৃ: 159–160। সংগৃহীত ২০১২-০৯-১৩ 
  2. "General Information"Tourism DepartmentDarjeeling Gorkha Hill Council। সংগৃহীত ২০০৮-১২-০৮ 
  3. "India moves over 6,000 troops to border with China"। Chennai, India: The Hindu। ১৩ ডিসেম্বর ২০০৭। সংগৃহীত ২০০৮-১২-০৮ 
  4. "Education and prospects for employment" (PDF)। Government of Sikkim। পৃ: ৩৩। সংগৃহীত ২০০৮-১২-২১ 
  5. "Special: Kalimpong, West Bengal"Rediff। সংগৃহীত ২০০৮-১২-০৮ 
  6. "Kalimpong Etymology"। Government of West Bengal। সংগৃহীত ২০০৮-১২-২২ 
  7. "History of kalimpong"Darjeelingnews.net। Darjeeling News Service। সংগৃহীত ২০০৭-০২-১৭