আমিনপুর থানা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আমিনপুর
থানা
আমিনপুর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
আমিনপুর
আমিনপুর
বাংলাদেশে আমিনপুর থানার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৫৫′ উত্তর ৮৯°৩৭′ পূর্ব / ২৩.৯২° উত্তর ৮৯.৬২° পূর্ব / 23.92; 89.62স্থানাঙ্ক: ২৩°৫৫′ উত্তর ৮৯°৩৭′ পূর্ব / ২৩.৯২° উত্তর ৮৯.৬২° পূর্ব / 23.92; 89.62
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগরাজশাহী বিভাগ
জেলাপাবনা জেলা
আসনপাবনা ০২ আসন(সংসদীয় ৬৯ আসন)
সরকার
আয়তন
 • মোট২২৩.১৩ বর্গকিলোমিটার কিমি ( বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১ আদমশুমারী অনুযায়ী)
 • মোট২,৩৪,০৬১
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট৬৩%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৬৬৮২

আমিনপুর থানা পাবনা জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা।

অবস্থান[সম্পাদনা]

আমিনপুর থানার দক্ষিনে রাজবাড়ী সদর উপজেলাগোয়ালন্দ উপজেলা পূর্বে মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর উপজেলাশিবালয় উপজেলা পশ্চিমে জেলার সুজানগর উপজেলা উত্তরে জেলার সাঁথিয়া উপজেলাবেড়া উপজেলা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

লোকমুখে প্রচলিত আছে আমিন নামের এক সাধু আমিনপুরে অবস্থান করেছিলো, এবং হজরত মুহাম্মদ এর নামের শেষে আমিন বলা হত সেইজন্য সেই সাধুর অনুরোধে গ্রামের নাম আমিনপুর নাম করন করা হয়। তবে ১৯৯৫ সালের দিকে পাবনার সন্ত্রাস কবলিত এলাকা হিসাবে ঢালারচর এলাকা পরিচিতি পায়।[১] সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রন করার জন্য তৎকালিন সরকার ১৯৯৭ সালে আমিনপুর গ্রামে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করে এবং তারই ধারাবাহিকতাই ২০১৩ সালের ২০ অক্টোবর তৎকালিন পরিকল্পনামন্ত্রী এয়ার মার্শাল অব একে খন্দকার পাবনার ১১ তম থানা হিসাবে আমিনপুর থানা উদ্ভোধন করেন।[২]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

আমিনপুর থানা মোট ৮ টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত।[২]

বেড়া উপজেলা থেকে ৫ টি ও সুজানগর উপজেলা থেকে ৩ টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত আমিনপুর থানা।[৩]

ইউনিয়নগুলো হলো:

  1. জাতসাখিনী ইউনিয়ন,
  2. রুপপুর ইউনিয়ন,
  3. পুরান ভারেঙ্গা ইউনিয়ন,
  4. আহম্মদপুর ইউনিয়ন,
  5. রানীনগর ইউনিয়ন,
  6. সাগরকান্দি ইউনিয়ন,
  7. মাশুমদিয়া ইউনিয়ন,
  8. ঢালারচর ইউনিয়ন

যোগাযোগব্যবস্থা[সম্পাদনা]

আমিনপুর হতে পাবনা জেলাশহরের দুরুত্ব ৫৫ কিঃমি বিভাগীয় শহর রাজশাহীর দুরুত্ব ২১০ কিঃমিঃ, এ ছাড়াও সড়ক পথে রাজধানী ঢাকা ১৫৫ কিলোমিটার এবং নদী পথে কাজিরহাট হয়ে দুরুত্ব ৯০ কিলোমিটার,এছাড়াও আমিনপুর হতে সকল ইউনিয়নের দুরুত্ব ১৫ কিলোমিটারের মধ্যে,রাস্তাঘাট ৭০% পাকা,২০% আধা পাকা,১০% কাচা রাস্তাঘায়াট রয়েছে।

রেল পথ

আমিনপুর থানার মধ্য দিয়ে পাবনা-ঢালারচর রেল রাস্তাটি চলে গিয়েছে। এইখানে দুটি স্টেশন রয়েছেঃ

  1. বাধেরহাট স্টেশন (কদমতলা)
  2. ঢালারচর স্টেশন

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

আমিনপুর থানার ৬০% লোক কৃষি কাজ করে,৩০% বস্ত্রশিল্পের,এবং বাকি ১০% অন্যান্য পেশায় জীবিকা নির্বাহ করে।

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

আমিনপুর থানায় উল্লেখ্যযোগ্য হাট-বাজার রয়েছে যেগুলো সাপ্তাহে ২ দিন হাট বসে এবং সব সময় কাচামাল পাওয়া যায়।

সর্বমোট হাটঃ ১৪ টি, বাজারঃ ১৯ টি।

  1. আমিনপুর বাজার
  2. আমিনপুর নতুন বাজার হাট
  3. নগরবাড়ি হাট
  4. মাশুমদিয়া বাজার
  5. বাধেরহাট বাজার
  6. সাগরকান্দী বাজার
  7. শ্যামগঞ্জ হাট
  8. কাজিরহাট বাজার(সকাল এর সব চেয়ে বড় বাজার)
  9. চব্বিশ মাইল হাট-বাজার
  10. কয়া বাজার
  11. খলিলপুর বাজার
  12. টাকিগাড়া বাজার
  13. ত্রীমোহনি বাজার
  14. মালদাহ হাট উল্লেখযোগ্য

নদীসূমহ[সম্পাদনা]

আমিনপুরের পাশ দিয়ে মৃতপ্রায় আত্রাই নদী চলে গিয়েছে, এবং পুর্বে যমুনা নদী, দক্ষিনে পদ্মা নদী প্রবাহমান। এবং গাজনার বিল প্রসিদ্ধ।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

আমিনপুর থানার শিক্ষার হার ৬২% তার মধ্যে (পুরুষ ৩৫%,মহিলা ২৭%)। আমিনপুর থানার কলেজ সংখ্যা ৮ টি,উচ্চ বিদ্যালয় ২৩ টি,প্রাথমিক বিদ্যালয় ৮০ টি,মাদ্রাসা ২০টি,ভোকেশনাল ২ টি। কলেজসমূহঃ

  1. পাবনা মেরিন একাডেমী
  2. কাশিনাথপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজ,
  3. মাসুমদিয়া কে.জে.বি. ডিগ্রি কলেজ,
  4. ধোবাকোলা করনেশন উচ্চবিদ্যালয় এবং

কলেজ:

  1. রানীগ্রাম ডিগ্রি কলেজ
  2. সৈয়দপুর স্কুল এবং কলেজ
  3. শহীদ স্বরনিকা ডিগ্রি কলেজ

উচ্চবিদ্যালয়:

  1. খলিলপুর উচ্চ বিদ্যালয় (১৯১৭)
  2. আমিনপুর আয়েন উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়
  3. হরিনাথপুর মডেল স্কুল
  4. কাশিনাথপুর বিজ্ঞান স্কুল এন্ড কলেজ
  5. রতনগঞ্জ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়
  6. কাজিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়
  7. মাশুমদিয়া কে.জি.বি উচ্চ বিদ্যালয়
  8. ঢালারচর উচ্চ বিদ্যালয়
  9. আহম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয়
  10. খানপুরা উচ্চ বিদ্যালয়
  11. ধোবাকোলা উচ্চ বিদ্যালয়
  12. ধোবাকোলা করনেশন উচ্চবিদ্যালয়
  13. সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয়
  14. রানীনগর উচ্চ বিদ্যালয়
  15. রিয়াজ উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়,সাগরকান্দী -(বর্তমান নামঃ সাগরকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়)
  16. চব্বিশ মাইল উচ্চ বিদ্যালয়

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

কৃতি ব্যাক্তিত্ব[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]