আখতার সরফরাজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আখতার সরফরাজ
আখতার সরফরাজ.jpg
১৯৯৭ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে আখতার সরফরাজ
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৯৭৬-০২-২০)২০ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৬
পেশাওয়ার, পাকিস্তান
মৃত্যু১০ জুন ২০১৯(2019-06-10) (বয়স ৪৩)
পেশাওয়ার, পাকিস্তান
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
সম্পর্কজাফর সরফরাজ (ভাই)[১]
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১১৯)
১২ ডিসেম্বর ১৯৯৭ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ ওডিআই২৯ অক্টোবর ১৯৯৮ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯৪/৯৫ - ২০০৬/০৭পেশাওয়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১১৮ ৯৮
রানের সংখ্যা ৬৬ ৫৭২০ ২৬৩৬
ব্যাটিং গড় ১৬.৫০ ৩৬.৪৩ ৩৫.৬২
১০০/৫০ -/- ১৩/৩৩ -/২২
সর্বোচ্চ রান ২৫ ১৬২ ৯০
বল করেছে ৩৮২ ১০২
উইকেট
বোলিং গড় ৫৮.৫০ ৪২.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ২/২৭ ১/৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ৫৭/– ২১/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আখতার সরফরাজ (পশতু: اختر سرفراز; জন্ম: ২০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৬ - মৃত্যু: ১০ জুন, ২০১৯) পেশাওয়ার এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা পাকিস্তানি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন।[২] পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৭ থেকে ১৯৯৮ সময়কালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে পাকিস্তানের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[৩]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর পাকিস্তানি ক্রিকেটে পেশাওয়ার ও ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিং করতেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৪-৯৫ মৌসুম থেকে ২০০৬-০৭ মৌসুম পর্যন্ত আখতার সরফরাজের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ১৩ বছর প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন অতিবাহিত করেন। এ সময়ে ১১৮টি খেলায় অংশ নিয়ে ৫৭২০ রান তুলেন।[৪]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে চারটিমাত্র একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছেন। তবে, কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে পারেননি। ১২ ডিসেম্বর, ১৯৯৭ তারিখে শারজায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওডিআইয়ে অভিষেক ঘটে তার। ২৯ অক্টোবর, ১৯৯৮ তারিখে ঢাকায় একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি। এছাড়াও, ১৯৯৮ সালের কমনওয়েলথ গেমসে পাকিস্তান দলের অন্যতম সদস্য হিসেবে অংশ নেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর কোচের দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও, ২০১৮ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত পাকিস্তান মহিলা ক্রিকেট দলের নির্বাচকের দায়িত্বে ছিলেন।[৩]

১০ জুন, ২০১৯ তারিখে মাত্র ৪৩ বছর বয়সে পেশাওয়ারে আখতার সরফরাজের দেহাবসান ঘটে। তিনি মলাশয়ের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। লাহোরের শওকত খানম মেমোরিয়া ক্যান্সার হাসপাতালের ভর্তি হন। তার ভ্রাতা ইরফান সরফরাজ প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "করোনায় পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটারের মৃত্যু"সমকাল। ১৩ এপ্রিল ২০২০। 
  2. "Former Cricketer Akhtar Sarfraz Passes Away"উর্দুপয়েন্ট 
  3. "Former Pakistan batsman Akhtar Sarfraz dies aged 43"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৯ 
  4. "PCB shocked at the news of Akhtar Sarfaraz's passing"পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]