২০২০ কাতারে করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কাতারে কোভিড-১৯ মহামারী
রোগকোভিড-১৯
ভাইরাসের প্রজাতিগুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি সৃষ্টিকারী করোনাভাইরাস ২
স্থানকাতার
প্রথম সংক্রমণের ঘটনাদোহা
আগমনের তারিখ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০
(৪ মাস, ৩ সপ্তাহ ও ৬ দিন)
উৎপত্তিউহান, হুপেই, চীন
নিশ্চিত আক্রান্ত৫২,৯০৭[১]
সক্রিয় আক্রান্ত৩২,২৬৭[১]
সুস্থ২০,৬০৪[১]
মৃত
৩৬[১]
প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট
www.moph.gov.qa

কাতারে কোভিড-১৯ মহামারীর প্রথম নিশ্চিত রোগী শনাক্ত হয় ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৮ মে ২০২০ পর্যন্ত কাতার হচ্ছে আরব বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বাধিক নিশ্চিতকৃত আক্রান্তের দেশ যেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫২,৯০৭ ও বিশ্বের জনসংখ্যার হারের ভিত্তিতে প্রতি ১০০,০০০ নাগরিকের মধ্যে সর্বাধিক আক্রান্ত। যেখানে শতকরা ১% নাগরিক মহামারীতে আক্রান্ত। সর্বমোট সুস্থ্য রোগী হচ্ছে ২০,৬০৪ ও মৃতের সংখ্যা ৩৬। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে সর্বমোট ২,১২,৮৯৭ জনের।[১]

পটভূমি[সম্পাদনা]

১২ জানুয়ারি ২০২০, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) নিশ্চিত করে যে, নোভেল করোনাভাইরাসে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরের একটি অংশের শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা দেখা দিয়েছিল, যা ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ এ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে অবহিত করা হয়েছিল।[২][৩]

কোভিড-১৯ এর কারণে মৃত্যুর হার সার্স ২০০৩-এর চেয়ে অনেক কম,[৪][৫] কিন্তু এর সংক্রমণের মাত্রা অত্যধিক, যা উল্লেখযোগ্যভাবে মৃত্যুর হারকে প্রভাবিত করে।[৪][৬]

সময়রেখা[সম্পাদনা]

কোভিড-১৯ - কাতার  ()
     মৃত্যু        সুস্থ        আক্রান্ত

ফেব্রু ফেব্রু মার্চ মার্চ এপ্রিল এপ্রিল মে মে জুন জুন জুলাই জুলাই গত ১৫ দিনে গত ১৫ দিনে

তারিখ
আক্রান্তের সংখ্যা
মৃত্যুর সংখ্যা
২০২০-০২-২৭ (প্র.না.)
(=)
২০২০-০৩-০১
(+২০০%)
২০২০-০৩-০২
(+১৩৩%)
২০২০-০৩-০৩
(+১৪%)
(=)
২০২০-০৩-০৬
১১(+৩৮%)
২০২০-০৩-০৭
১২(+৯.১%)
২০২০-০৩-০৮
১৫(+২৫%)
২০২০-০৩-০৯
১৮(+২০%)
২০২০-০৩-১০
২৪(+৩৩%)
২০২০-০৩-১১
২৬২(+৯৯২%)
২০২০-০৩-১২
২৬২(=)
২০২০-০৩-১৩
৩২০(+২২%)
২০২০-০৩-১৪
৩৩৭(+৫.৩%)
২০২০-০৩-১৫
৪০১(+১৯%)
২০২০-০৩-১৬
৪৩৯(+৯.৫%)
২০২০-০৩-১৭
৪৪২(+০.৬৮%)
২০২০-০৩-১৮
৪৫২(+২.৩%)
২০২০-০৩-১৯
৪৬০(+১.৮%)
২০২০-০৩-২০
৪৭০(+২.২%)
২০২০-০৩-২১
৪৮১(+২.৩%)
২০২০-০৩-২২
৪৯৪(+২.৭%)
২০২০-০৩-২৩
৫০১(+১.৪%)
২০২০-০৩-২৪
৫২৬(+৫%)
২০২০-০৩-২৫
৫৩৭(+২.১%)
২০২০-০৩-২৬
৫৪৯(+২.২%)
২০২০-০৩-২৭
৫৬২(+২.৪%)
২০২০-০৩-২৮
৫৯০(+৫%) (প্র.না.)
২০২০-০৩-২৯
৬৩৪(+৭.৫%) (=)
২০২০-০৩-৩০
৬৯৩(+৯.৩%) (=)
২০২০-০৩-৩১
৭৮১(+১৩%) (+১০০%)
২০২০-০৪-০১
৮৩৫(+৬.৯%) (=)
২০২০-০৪-০২
৯৪৯(+১৪%) (+৫০%)
২০২০-০৪-০৩
১,০৭৫(+১৩%) (=)
২০২০-০৪-০৪
১,৩২৫(+২৩%) (=)
২০২০-০৪-০৫
১,৬০৪(+২১%) (+৩৩%)
২০২০-০৪-০৬
১,৮৩২(+১৪%) (=)
২০২০-০৪-০৭
২,০৫৭(+১২%) (+৫০%)
২০২০-০৪-০৮
২,২১০(+৭.৪%) (=)
২০২০-০৪-০৯
২,৩৭৬(+৭.৫%) (=)
২০২০-০৪-১০
২,৫১২(+৫.৭%) (=)
২০২০-০৪-১১
২,৭২৮(+৮.৬%) (=)
২০২০-০৪-১২
২,৯৭৯(+৯.২%) (+১৭%)
২০২০-০৪-১৩
৩,২৩১(+৮.৫%) (=)
২০২০-০৪-১৪
৩,৪২৮(+৬.১%) (=)
২০২০-০৪-১৫
৩,৭১১(+৮.৩%) (=)
২০২০-০৪-১৬
৪,১০৩(+১১%) (=)
২০২০-০৪-১৭
৪,৬৬৩(+১৪%) (=)
২০২০-০৪-১৮
৫,০০৮(+৭.৪%) (+১৪%)
২০২০-০৪-১৯
৫,৪৪৮(+৮.৮%) (=)
২০২০-০৪-২০
৬,০১৫(+১০%) (+১২%)
২০২০-০৪-২১
৬,৫৩৩(+৮.৬%) (=)
২০২০-০৪-২২
৭,১৪১(+৯.৩%) ১০(+১১%)
২০২০-০৪-২৩
৭,৭৬৪(+৮.৭%) ১০(=)
২০২০-০৪-২৪
৮,৫২৫(+৯.৮%) ১০(=)
২০২০-০৪-২৫
৯,৩৫৮(+৯.৮%) ১০(=)
২০২০-০৪-২৬
১০,২৮৭(+৯.৯%) ১০(=)
২০২০-০৪-২৭
১১,২৪৪(+৯.৩%) ১০(=)
২০২০-০৪-২৮
১১,৯২১(+৬%) ১০(=)
২০২০-০৪-২৯
১২,৫৬৪(+৫.৪%) ১০(=)
২০২০-০৪-৩০
১৩,৪০৯(+৬.৭%) ১০(=)
২০২০-০৫-০১
১৪,০৯৬(+৫.১%) ১২(+২০%)
২০২০-০৫-০২
১৪,৮৭২(+৫.৫%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৩
১৫,৫৫১(+৪.৬%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৪
১৬,১৯১(+৪.১%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৫
১৭,১৪২(+৫.৯%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৬
১৭,৯৭২(+৪.৮%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৭
১৮,৮৯০(+৫.১%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৮
২০,২০১(+৬.৯%) ১২(=)
২০২০-০৫-০৯
২১,৩৩১(+৫.৬%) ১৩(+৮.৩%)
২০২০-০৫-১০
২২,৫২০(+৫.৬%) ১৪(+৭.৭%)
২০২০-০৫-১১
২৩,৬২৩(+৪.৯%) ১৪(=)
২০২০-০৫-১২
২৫,১৪৯(+৬.৫%) ১৪(=)
২০২০-০৫-১৩
২৬,৫৩৯(+৫.৫%) ১৪(=)
২০২০-০৫-১৪
২৮,২৭২(+৬.৫%) ১৪(=)
২০২০-০৫-১৫
২৯,৪২৫(+৪.১%) ১৪(=)
২০২০-০৫-১৬
৩০,৯৭২(+৫.৩%) ১৫(+৭.১%)
২০২০-০৫-১৭
৩২,৬০৪(+৫.৩%) ১৫(=)
২০২০-০৫-১৮
৩৩,৯৬৯(+৪.২%) ১৫(=)
২০২০-০৫-১৯
৩৫,৬০৬(+৪.৮%) ১৫(=)
২০২০-০৫-২০
৩৭,০৯৭(+৪.২%) ১৬(+৬.৭%)
২০২০-০৫-২১
৩৮,৬৫১(+৪.২%) ১৭(+৬.২%)
২০২০-০৫-২২
৪০,৪৮১(+৪.৭%) ১৯(+১২%)
২০২০-০৫-২৩
৪২,২১৩(+৪.৩%) ২১(+১১%)
২০২০-০৫-২৪
৪৩,৭১৪(+৩.৬%) ২৩(+৯.৫%)
২০২০-০৫-২৫
৪৫,৪৬৫(+৪%) ২৬(+১৩%)
২০২০-০৫-২৬
৪৭,২০৭(+৩.৮%) ২৮(+৭.৭%)
২০২০-০৫-২৭
৪৮,৯৪৭(+৩.৭%) ৩০(+৭.১%)
২০২০-০৫-২৮
৫০,৯১৪(+৪%) ৩৩(+১০%)
২০২০-০৫-২৯
৫২,৯০৭(+৩.৯%) ৩৬(+৯.১%)
২০২০-০৫-৩০
৫৫,২৬২(+৪.৫%) ৩৬(=)
২০২০-০৫-৩১
৫৬,৯১০(+৩%) ৩৮(+৫.৬%)
২০২০-০৬-০১
৫৮,৪৩৩(+২.৭%) ৪০(+৫.৩%)
২০২০-০৬-০২
৬০,২৫৯(+৩.১%) ৪৩(+৭.৫%)
২০২০-০৬-০৩
৬২,১৬০(+৩.২%) ৪৫(+৪.৭%)
২০২০-০৬-০৪
৬৩,৭৪১(+২.৫%) ৪৫(=)
২০২০-০৬-০৫
৬৫,৪৯৫(+২.৮%) ৪৯(+৮.৯%)
২০২০-০৬-০৬
৬৭,১৯৫(+২.৬%) ৫১(+৪.১%)
২০২০-০৬-০৭
৬৮,৭৯০(+২.৪%) ৫৪(+৫.৯%)
২০২০-০৬-০৮
৭০,১৫৮(+২%) ৫৭(+৫.৬%)
২০২০-০৬-০৯
৭১,৮৭৯(+২.৫%) ৬২(+৮.৮%)
২০২০-০৬-১০
৭৩,৫৯৫(+২.৪%) ৬৬(+৬.৫%)
২০২০-০৬-১১
৭৫,০৭১(+২%) ৬৯(+৪.৫%)
২০২০-০৬-১২
৭৬,৫৮৮(+২%) ৭০(+১.৪%)
২০২০-০৬-১৩
৭৮,৪১৬(+২.৪%) ৭০(=)
২০২০-০৬-১৪
৭৯,৬০২(+১.৫%) ৭৩(+৪.৩%)
২০২০-০৬-১৫
৮০,৮৭৬(+১.৬%) ৭৬(+৪.১%)
২০২০-০৬-১৬
৮২,০৭৭(+১.৫%) ৮০(+৫.৩%)
২০২০-০৬-১৭
৮৩,১৭৪(+১.৩%) ৮২(+২.৫%)
২০২০-০৬-১৮
৮৪,৪৪১(+১.৫%) ৮৬(+৪.৯%)
২০২০-০৬-১৯
৮৫,৪৬২(+১.২%) ৯৩(+৮.১%)
২০২০-০৬-২০
৮৬,৪৮৮(+১.২%) ৯৪(+১.১%)
২০২০-০৬-২১
৮৭,৩৬৯(+১%) ৯৮(+৪.৩%)
২০২০-০৬-২২
৮৮,৪০৩(+১.২%) ৯৯(+১%)
২০২০-০৬-২৩
৮৯,৫৭৯(+১.৩%) ৯৯(=)
২০২০-০৬-২৪
৯০,৭৭৮(+১.৩%) ১০৪(+৫.১%)
২০২০-০৬-২৫
৯১,৮৩৮(+১.২%) ১০৬(+১.৯%)
২০২০-০৬-২৬
৯২,৭৮৪(+১%) ১০৯(+২.৮%)
২০২০-০৬-২৭
৯৩,৬৬৩(+০.৯৫%) ১১০(+০.৯২%)
২০২০-০৬-২৮
৯৪,৪১৩(+০.৮%) ১১০(=)
২০২০-০৬-২৯
৯৫,১০৬(+০.৭৩%) ১১৩(+২.৭%)
২০২০-০৬-৩০
৯৬,০৮৮(+১%) ১১৩(=)
২০২০-০৭-০১
৯৭,০০৩(+০.৯৫%) ১১৫(+১.৮%)
২০২০-০৭-০২
৯৭,৮৯৭(+০.৯২%) ১১৮(+২.৬%)
২০২০-০৭-০৩
৯৮,৬৫৩(+০.৭৭%) ১২১(+২.৫%)
২০২০-০৭-০৪
৯৯,১৮৩(+০.৫৪%) ১২৩(+১.৭%)
২০২০-০৭-০৫
৯৯,৭৯৯(+০.৬২%) ১২৮(+৪.১%)
২০২০-০৭-০৬
১,০০,৩৪৫(+০.৫৫%) ১৩৩(+৩.৯%)
২০২০-০৭-০৭
১,০০,৯৪৫(+০.৬%) ১৩৪(+০.৭৫%)
২০২০-০৭-০৮
১,০১,৫৫৩(+০.৬%) ১৩৮(+৩%)
২০২০-০৭-০৯
১,০২,১১০(+০.৫৫%) ১৪২(+২.৯%)
২০২০-০৭-১০
১,০২,৬৩০(+০.৫১%) ১৪৬(+২.৮%)
২০২০-০৭-১১
১,০৩,১২৮(+০.৪৯%) ১৪৬(=)
২০২০-০৭-১২
১,০৩,৫৯৮(+০.৪৬%) ১৪৭(+০.৬৮%)
২০২০-০৭-১৩
১,০৪,০১৬(+০.৪%) ১৪৯(+১.৪%)
২০২০-০৭-১৪
১,০৪,৫৩৩(+০.৫%) ১৫০(+০.৬৭%)
২০২০-০৭-১৫
১,০৪,৯৮৩(+০.৪৩%) ১৫১(+০.৬৭%)
২০২০-০৭-১৬
১,০৫,৪৭৭(+০.৪৭%) ১৫২(+০.৬৬%)
২০২০-০৭-১৭
১,০৫,৮৯৮(+০.৪%) ১৫৩(+০.৬৬%)
২০২০-০৭-১৮
১,০৬,৩০৮(+০.৩৯%) ১৫৪(+০.৬৫%)
২০২০-০৭-১৯
১,০৬,৬৪৮(+০.৩২%) ১৫৭(+১.৯%)
২০২০-০৭-২০
১,০৭,০৩৭(+০.৩৬%) ১৫৯(+১.৩%)
২০২০-০৭-২১
১,০৭,৪৩০(+০.৩৭%) ১৬০(+০.৬৩%)
২০২০-০৭-২২
১,০৭,৮৭১(+০.৪১%) ১৬৩(+১.৯%)
২০২০-০৭-২৩
১,০৮,২৪৪(+০.৩৫%) ১৬৪(+০.৬১%)
উৎস: সরকারী ওয়েবসাইট


ফেব্রুয়ারি ২০২০[সম্পাদনা]

কাতারে প্রথম করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) রোগী শনাক্ত হয় ২৯ ফেব্রুয়ারি। রোগীটি ছিলেন একজন যাত্রী, যিনি কাতার এয়ারওয়েজ এর ফ্লাইটে ইরান থেকে কাতার আসেন। [৭]

মার্চ ২০২০[সম্পাদনা]

৯ মার্চ, ২০২০ তারিখে কাতারের সকল স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করে[৮] ও ১৫টি দেশের জন্য ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেঃ বাংলাদেশ, গণচীন, মিশর, ভারত, ইরান, ইরাক, ইতালি, লেবানন, নেপাল, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, দক্ষিণ কোরিয়া, শ্রীলঙ্কা, সিরিয়া, ও থাইল্যান্ড[৯]

১১ মার্চ ২০২০, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ঘোষণা করে যে, একই দিনে ২৩৮ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে, যার ফলে দেশে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা গিয়ে পৌছে ২৬২তে।[১০]

১৩ মার্চ ২০২০, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ৫৮ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্তের কথা ঘোষণা করে এবং দেশে সর্বমোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাড়ায় ৩২০। একই দিনে কাতার এয়ারওয়েজ-এর সিইও আকবর আল বাকের এক বিতর্কিত আলোড়ন তৈরি করে যে, বৈজ্ঞানিকভাবে কোন প্রমাণ তৈরি হয়নি যে, ইনকিউবেশনে থাকাকালীন সময়ে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হয়।[১১]

১৪ মার্চ ২০২০, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় নিশ্চিত করে যে, কাতারে ১৭টি নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হিসাবে পাওয়া গেছে। কাতার তাদের দেশে ভ্রমন নিষেধাজ্ঞাকে সম্প্রসারিত করে আরো তিনটি দেশের নাম সংযুক্ত করে: জার্মানি, স্পেনফ্রান্স। ১৬ মার্চ ২০২০ তারিখ গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণায় সংবাদ বিবৃতিতে পূর্বে আক্রান্তদের মধ্য থেকে চার জন সুস্থ্য হয়ে ফিরেছে এবং ১৯ মার্চ আরো আটটি নতুন আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে। ফলে কাতারে আন্ত্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাড়াল ৪৬০, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে দুই জন কাতারি এবং বাকীরা হচ্ছে অভিবাসি শ্রমিক। অধিকাংশ কেসগুলোই অভিবাসি শ্রমিকদের সাথে সম্পর্কিত, যদি সরকারিভাবে জাতীয়তা উল্লেখ করা হয়নি। ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের প্রস্তুতি চলছে নির্ধারিত সূচী অনুযায়ী।[১২]

পরের দিন ২০ মার্চ দশটি নতুন করোনাভাইরাস রোগী রিপোর্ট করা হলে মোট সংখ্যাটি দাড়ায় ৪৭০।[১৩] ২১ মার্চ আরোও ১১টি নতুন কেস শনাক্ত হলে সর্বমোট সংখ্যা গিয়ে পৌছে ৪৮১তে।[১৪] কাতার পৌরসভা ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়, করোনা ভাইরাসের বিস্তারকে ঠেকাতে সকল বিনোদন পার্ক ও গণ সমুদ্র সৈকত বন্ধ ঘোষণা করে।[১৫]

২২ মার্চ জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত আরো ১৩জন রোগীর কথা ঘোষণা করে এবং একই সাথে ছয়জন রোগী সুস্থ্য হওয়ার কথাও জানায়, ফলে সুস্থ্য হওয়া রোগীর সংখ্যা দাড়ায় ৩৩।[১৬]

২৩ মার্চ, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধ করে কাতারের পাশে দাড়ানোর জন্য স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগের ঘোষণা করে, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সুপ্রীম কমিটির পদাধিকারী ললোয়া রশিদ আল খাতের বলেন: "করোনা ভাইরাসের অবাধ বিস্তারকে রোধ করে কাতারের স্বাস্থ্য খাতকে সহায়তা করতে আমরা স্বেচ্ছাসেবক খুজছি। এই দুর্যোগের সময়ে কাতারের সরকারী ও বেসরকারী খাতকে রক্ষা করতে আমাদের সকলকে একই সমাজের একই দলের হয়ে এগিয়ে আসা উচিত।"”[১৭] একই দিনে শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণায় এক বিজ্ঞপ্তিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যে, সকল রেষ্টুরেন্ট, ক্যাফে, ফুড আউটলেট এবং খাদ্য বহনকারী যানবাহন, স্পোর্টস ক্লাব, লুসাইল মেরিনা, ফুড ট্রাকস এলাকা, দোহা করনিছ, আল খর করনিছ এবং এস্পায়ার পার্ক পরবর্তী নির্দেশ দেয়া পর্যন্ত সাময়িকভাবে বন্ধ থাকবে।[১৮]

জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় একই দিনে ৭জন নতুন করোনা শনাক্তের ও চারজন সুস্থ হওয়ার কথা ঘোষণা করে। নতুন শনাক্ত কেসগুলো সদ্য সফর করে কাতারে প্রবেশ করেছেন এবং কিছু বিদেশী শ্রমিক, যার মধ্যে দুইজন কাতারী নাগরিকও বিদ্যমান।[১৯]

এপ্রিল ২০২০[সম্পাদনা]

১ এপ্রিল, Tজনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনভাইরাস (কোভিড-১৯) এর নতুন ৫৪টি নিশ্চিত কেস এবং আরও ৯ জন রোগী ভাইরাস থেকে উদ্ধার হওয়া ঘোষণা করেছে যা কাতারে পুনরুদ্ধারের মোট সংখ্যা ৭১ এ পৌঁছেছে।[২০]

২ এপ্রিল, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) রোগের ১১৪ টি নতুন নিশ্চিত রোগীর নিবন্ধকরণ এবং কাতারে কোভিড-১৯-এর কারণে তৃতীয় মৃত্যুর ঘোষণার পাশাপাশি একজন রোগীর পুনরুদ্ধারের ঘোষণা দিয়েছে।[২১]

৩ এপ্রিল, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় করোনভাইরাস (কোভিড-১৯) রোগের ১২৬ টি নতুন নিশ্চিত রোগীর নিবন্ধকরণ এবং কাতারে ২১ জন রোগীর পুনরুদ্ধারের ঘোষণা দিয়েছে।[২২]

৪ এপ্রিল, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনভাইরাস (কোভিড-১৯) এর ২৫০ টি নতুন নিশ্চিত হওয়া মামলার নিবন্ধকরণের ঘোষণা দিয়েছে এবং বলেছে যে কোভিড-১৯ থেকে আরও ১৬ জন পুনরুদ্ধার করেছে, কাতারে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা ১০৯ হয়েছে।[২৩]

৫ এপ্রিল,কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ২৭৯ টি নতুন নিশ্চিত হওয়া মামলা নিবন্ধকরণ এবং ১৪ টি রোগী পুনরুদ্ধারের সাথে একজন করোনা রোগীর মৃত্যু ঘোষণা করে। নিহত রোগী ৩ মার্চ থেকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন ছিলেন।[২৪]

৬ এপ্রিল, ২২৮জন নতুন করোনা রোগী নিবন্ধিত সহ ৮জন সেরে উঠার কথা ঘোষণা করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।[২৫]

৭ এপ্রিল, একজন ৭৪ বছর বয়সী বাসিন্দা এবং ৫৯ বছর বয়সী বাসিন্দা - উভয়েই দীর্ঘস্থায়ী রোগে ভুগছিলেন যারা ৭ এপ্রিল কোভিড-১৯ এ মারা যান এবং কাতারে মৃত্যুর সংখ্যা ৬ এ উন্নীত হয়। এছাড়াও, আরও ২২৫ টি নতুন কোভিড-১৯ রোগী নিবন্ধকরণের পাশাপাশি ১৯ জন রোগীর সুস্থতার কথা ঘোষণা করা হয়। ফলে দেশটিত মোট ২০৫৭টি নিশ্চিত কেস এবং ১৫০ টি পুনরুদ্ধার হয়েছে।[২৬]

৮ এপ্রিল, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে যে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা সহযোগিতা দুটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে কাজ করবে, একটি উম্মে সালাল এবং একটি ঘারাফাত আল রায়য়ান, যেখানে কোভিড-১৯ রোগীদের স্ক্রিনিং, পরীক্ষা এবং চিহ্নিত রোগীদের সঙ্গনিরোধ করার কাজ করবে। এছাড়া আরও ১৫৩ জন কোভিড-১৯ ইতিবাচক নিবন্ধিতসহ ২৮টি কেস পুনরুদ্ধারের ঘোষণা করা হয়।[২৭]

৯ এপ্রিল, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ১৬৬টি নতুন কোভিড-১৯ মামলা নিবন্ধকরণ ও ২৮জন রোগী সুস্থ হওয়ার ঘোষণা করে।[২৮]

১০ এপ্রিল, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ১৩৬টি নতুন কোভিড-১৯ মামলা নিবন্ধকরণ ও ২১জন রোগী সুস্থ হওয়ার ঘোষণা করে।[২৯] সুপ্রীম কমিটি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় ঘোষণা করে যে, করোনা আক্রান্ত রোগীকে শনাক্ত করতে একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে আসছে অতি শীঘ্রই।[৩০]


মে ২০২০[সম্পাদনা]

১ মে, কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দুটি মৃত্যু, ৬৪ জন রোগী সুস্থ এবং নতুন করে ৬৮৭ জনের নতুন করে করোনায় আক্রান্তের বিষয়ে নিশ্চিত ঘোষণা দেয়।[৩১][৩২]

২ মে, ৭৭৬ জন নতুন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীকে হাসপাতালে নথিভুক্ত করে কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। একই সাথে ৯৮জন রোগী সুস্থ হওয়ার খবরও নিশ্চিত করে মন্ত্রণালয়।[৩৩]

৩ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মূখপাত্র কোভিড-১৯ এর ৬৭৯টি নতুন নিশ্চিত রোগীর নিবন্ধকরণ এবং আরও ১৩০ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।[৩৪]

৪ মে, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ৬৪০ টি নতুন কেস নিবন্ধকরণ এবং কাতারে আরও ১৪৬টি রোগীর পুনরুদ্ধারের ঘোষণা দিয়েছে।[৩৫]

৫ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ৯১১ টি নিশ্চিত রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ১১৪ জনকে রোগ থেকে পুনরুদ্ধারের ঘোষণা দিয়েছে।[৩৬]

৬ মে, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর ৮৩০ টি নতুন নিশ্চিত রোগীর নিবন্ধকরণ সহ আরও ১৪৬ জন রোগীকে কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়ে ফিরেছে জানিয়ে ঘোষণা দিয়েছে।[৩৭]

৭ মে, জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর ৯১৮ টি নতুন নিশ্চিত রোগীর নিবন্ধকরণ সহ আরও ২১৬ জন রোগীকে কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়ে ফিরেছে জানিয়ে ঘোষণা দিয়েছে।[৩৮]

৮ মে, কাতারে ১,৩১১ টি নতুন নিশ্চিত রোগী এবং আরও ৮৪ জন রোগী সুস্থ নিয়ে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর আক্রান্তের সংখ্যা ২০,০০০ ছাড়িয়েছে।[৩৯]

৯ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর ১,১৩০ টি নতুন আক্রান্ত মামলার নথিভুক্তকরণ এবং কাতারে আরও ১২৯ জন রোগীর পুনরুদ্ধারের পাশাপাশি ১ জন কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যুর ঘোষণা দিয়েছে।[৪০]

১০ মে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১,১৮৯ টি রোগীর নিবন্ধকরণ এবং আরও ২৫৪ জন রোগীর পুনরুদ্ধারের পাশাপাশি ১ জন কোভিডি-১৯ রোগীর মৃত্যুর ঘোষণা দিয়েছে।.[৪১]

১১ মে, কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১১৩৩ টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ৮৭ জন রোগীর সুস্থতার ঘোষণা দিয়েছে।[৪২]

১২ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১৫২৬টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ১৭৯ জন রোগীর সুস্থতার ঘোষণা দেয়।[৪৩]

১৩ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১৩৯০টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ১২৪ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দেয়।[৪৪]

১৪ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১৭৩৩টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ২১৩ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দেয়।[৪৫]

১৫ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১১৫৩টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ১৯০ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দেয়।[৪৬]

১৬ মে, ১,৫৪৭ টি নতুন নিশ্চিত রোগী এবং আরও ২৪২ জন রোগী সুস্থতার পাশাপাশি একজন কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যুর ঘোষণা সহ কাতারে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর আক্রান্তের সংখ্যা ৩০,০০০ ছাড়িয়ে যায়।[৪৭]

১৭ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১,৬৩২টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ৫৮২ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দেয়।[৪৮]

১৮ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন নিশ্চিত হওয়া ১,৩৬৫ টি রোগী নিবন্ধকরণসহ আরও ৫২৯ জন রোগীর সুস্থতার ঘোষণা দিয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে যে বিদ্যালয়গুলি ১ সেপ্টেম্বর ২০২০-এ খোলা হবে এবং ১ম থেকে ১২শ শ্রেণীর পূর্ববর্তী শিক্ষাবর্ষের পুনঃমূল্যায়ণ পরীক্ষাগুলো ২৩ আগস্ট,২০২০ থেকে ৩১ আগস্ট, ২০২০ পর্যন্ত পরিচালিত হবে।[৪৯][৫০]

১৯ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১,৬৩৭টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ৭৩৫ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দেয়।[৫১]

২০ মে, কাতার গণস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এর নতুন ১,৪৯১টি রোগী নিবন্ধকরণ এবং আরও ৯৬৬ জন রোগীর সুস্থ হওয়ার ঘোষণা দেয়।[৫২]

২১ মে, কাতারের জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ১,৫৫৪ নতুন নথিভুক্ত কেস ও ৬৮৮জন রোগী সুস্থ হওয়ার কথা ঘোষণা করে। [৫৩]

২২ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ঘোষণায়, ১,৮৩০ জন নতুন রোগী ভর্তি সহ কাতারে কোভিড-১৯ এর রোগীর সংখ্যা ৪০,০০০ অতিক্রম করেছে। অপরদিকে ৬০৫ জন রোগী সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন এবং দুইটি রোগীর মৃত্যুর কথাও জানায় দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।[৫৪]

২৩ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, ১,৭৩২ জন নতুন কোভিড-১৯ রোগীর রেজিষ্ট্রেশন ও ৬২০জন রোগী সুস্থ হওয়ার কথা ঘোষণা করে, সেই সাথে নতুন করে দুইজন রোগীর মৃত্যুর কথাও জানানো হয় মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে। ফলে দেশটিতে সুস্থ হওয়ার রোগীর সংখ্যা এ পর্যন্ত ৮,৫১৩ এবং মৃতের সংখ্যা ২১ এ পৌছল।[৫৫]

২৪ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, নিশ্চিতভাবে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত ১৫০১ জনকে শনাক্ত করেছে, এবং বিগত ২৪ ঘণ্টায় ৫৬৭জন রোগী সুস্থ্য হয়েছে, যার সংখ্যাটি দাড়িয়েছে বর্তমানে ৯১৭০ এ। মন্ত্রণালয়ের রিপোর্টে দুটি নতুন কোভিড রোগীর মৃত্যুর কথাও ঘোষণা করা হয়।[৫৬]

২৫ মে, কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত নতুন ১৭৫১ জন রোগী শনাক্ত করা হয়, সেই সাথে ১১৯৩ জন রোগী সুস্থ হয়ে ফিরেন। এ পর্যন্ত মোট ১০৩৬৩ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। ভাইরাসে আক্রান্ত ৩ জন রোগীর মৃত্যুর কথাও প্রকাশ করা হয় মন্ত্রণালয়ের রিপোর্টে।[৫৭]

২৬ মে, ২৪ ঘণ্টায় মোট ৩৯২৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭৪২ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়, ২ জনের মৃত্যু ও ১৪৮১ জনের সুস্থ হওয়ার খবরও প্রকাশ করা হয় মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব পোর্টালে।[৫৮]

২৭ মে, গত ২৪ ঘণ্টা সময়সীমার মধ্যে ৪৭৬৯টি নমুনা সংগ্রহ করে এবং ১৭৪০ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। এছাড়াও ১৪৩৯ জন নতুন সুস্থ হওয়া রোগী নিয়ে এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৩,২৮৩ জন এবং দুটি নতুন মৃত্যু নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাড়ায় ৩০। ১২জনকে নতুন করে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়, ফলে মোট ২০৩ জন রোগী ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় চিকিৎসাধীন। [৫৯]

২৮ মে, কাতার জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮৫৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৯৬৭ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত করা হয়েছে। ফলে দেশের মোট কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়ায় ৫০,৯১৪। একই সাথে ২১১৬ জন রোগীকে সুস্থ হিসাবে ছাড়পত্র দেয়ায় মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাড়ায় ১৫,৩৯৯। নতুন করে ৩ জনের মৃত্যু নিয়ে দেশে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মারা যায় মোট ৩৩ জন।[৬০]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

৩ জুলাই ২০২০ পর্যন্ত

  • ক্রমবর্ধিত অগ্রগতি:
  • লগ অগ্রগতি
  • প্রতিদিন নতুন মামলা;

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Coronavirus Disease 2019 - (COVID-19)"Ministry of Public Health। সংগ্রহের তারিখ ২৯ এপ্রিল ২০২০ 
  2. Elsevier। "Novel Coronavirus Information Center"Elsevier Connect। ৩০ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  3. Reynolds, Matt (৪ মার্চ ২০২০)। "What is coronavirus and how close is it to becoming a pandemic?"Wired UKআইএসএসএন 1357-0978। ৫ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০২০ 
  4. "Crunching the numbers for coronavirus"Imperial News। ১৯ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  5. "High consequence infectious diseases (HCID); Guidance and information about high consequence infectious diseases and their management in England"GOV.UK (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০২০ 
  6. "World Federation Of Societies of Anaesthesiologists – Coronavirus"www.wfsahq.org। ১২ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  7. "Qatar reports first case of coronavirus"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০২০ 
  8. "Qatar announces closure of schools, universities over coronavirus" (ইংরেজি ভাষায়)। মার্চ ৯, ২০২০। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৯, ২০২০ 
  9. "Qatar bans entry of passengers from 15 countries, including India, Pakistan" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-২৩ 
  10. "Qatar's coronavirus cases jump by 238 in one day" (ইংরেজি ভাষায়)। মার্চ ১১, ২০২০। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০২০ 
  11. "Qatar Airways CEO Causes Coronavirus Controversy"। ১৩ মার্চ ২০২০। 
  12. Coronavirus hits migrant workers in Qatar Reuters, 19 Mar 2020
  13. "Qatar reports 10 new coronavirus cases, total at 470"english.alarabiya.net (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২০ 
  14. "11 new coronavirus cases reported in Qatar taking total to 481"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২১ 
  15. "Ministry decides to end camping season from Sunday"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২১ 
  16. "6 recover as 13 more report positive for corona in Qatar"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২২ 
  17. "Volunteers urged to apply 'as quickly as possible' for MoPH campaign"www.gulf-times.com। ২৩ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  18. "Temporary closure of eateries starts at select locations"www.gulf-times.com। ২৩ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  19. "The Ministry of Public Health announced today 7 new confirmed cases of coronavirus 2019 (Covid-19) were recorded in the State of Qatar with 4 more people now recovered."www.moph.gov.qa। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  20. "54 new COVID-19 cases recorded in Qatar; 9 recovered"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০২০ 
  21. "Qatar reports 144 new coronavirus cases, total up to three deaths and 949 cases"Al Arabiya English (ইংরেজি ভাষায়)। ২ এপ্রিল ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০২০ 
  22. "Qatar reports 126 new coronavirus cases"gulfnews.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০২০ 
  23. "250 more test positive for COVID-19, 16 recover"Read Qatar Tribune on the go for unrivalled news coverage (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০২০ 
  24. "Coronavirus: Qatar reports 279 new COVID-19 cases, one death"gulfnews.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  25. report, Web। "Covid-19: Qatar confirms 228 new cases of coronavirus"Khaleej Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  26. "Qatar reports two more deaths from Covid-19; 225 new cases and 19 recoveries"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  27. "MoPH announces 28 new recovered cases, 153 new confirmed cases of COVID-19 in Qatar"www.iloveqatar.net (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  28. "166 new cases in Qatar, 28 more recover"Gulf-Times (আরবি ভাষায়)। ৯ এপ্রিল ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  29. "Ministry registers 136 new Covid-19 cases and 21 recoveries in last 24 hours"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  30. "Qatar to Launch Mobile App to Track and Control COVID-19 Cases"Marhaba l Qatar's Premier Information Guide (ইংরেজি ভাষায়)। ১০ এপ্রিল ২০২০। ২৫ মে ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০২০ 
  31. "COVID-19: Qatar announces two deaths and 687 new coronavirus cases"gulfnews.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  32. "Qatar reports 687 new COVID-19 cases on May 1, 64 recovered"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  33. "776 more people test positive for COVID-19 in Qatar as 98 recover"Read Qatar Tribune on the go for unrivalled news coverage। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  34. "679 more people test positive for COVID-19 as 130 recover"Read Qatar Tribune on the go for unrivalled news coverage। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  35. "640 new Covid-19 cases and 146 recoveries in Qatar on May 4"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  36. "Qatar reports 951 new confirmed cases, 114 new recovered cases of COVID-19"www.iloveqatar.net (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  37. "Qatar announced detection of 830 new COVID-19 cases"gulfnews.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  38. "Most of Covid-19 cases in Qatar among 29 to 34 year olds: Health official"thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  39. "Coronavirus: Qatar records 1,311 new infections, total now over 20,000"Al Arabiya English (ইংরেজি ভাষায়)। ৮ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  40. "52-year-old dies from Covid-19 in Qatar; 1130 new cases on May 9"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  41. "One more death due to Covid-19 reported in Qatar; 1189 new cases on May 10"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  42. "1103 new Covid-19 cases in Qatar as 87 recover on May 11"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  43. "1526 new Covid-19 cases reported in Qatar on May 12 as 179 recover"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  44. "1390 new Covid-19 cases reported in Qatar on May 13"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  45. "1733 new Covid-19 cases in Qatar as 213 recover on May 14"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  46. "1153 new Covid-19 cases in Qatar as 190 recover on May 15"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  47. "74-year-old dies from Covid-19 in Qatar; 1547 new cases on May 16"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  48. "582 people recover from Covid-19 in Qatar as 1632 new cases reported on May 17"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  49. "Qatar reports 1365 new Covid-19 cases; 529 recover on May 18"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  50. "Academic year 2020-21 will start from September 1"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  51. "735 people recover as Qatar reports 1637 new Covid-19 cases on May 19"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  52. "966 people recover as one more succumbs to Covid-19 in Qatar on May 20"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  53. "81-year-old dies from Covid-19 in Qatar; 1554 new cases on May 21"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  54. "Two more deaths due to Covid-19 in Qatar; 1830 new cases on May 22"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  55. "Two more deaths due to Covid-19 reported in Qatar; 1732 new cases on May 23"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০২০ 
  56. "Covid-19 death toll in Qatar goes up to 23; 1501 new cases on May 24"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-২৬ 
  57. "Three deaths, 1193 recoveries and 1751 new Covid-19 cases in Qatar on May 25"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-২৬ 
  58. "1481 recoveries, 1742 new Covid-19 cases and 2 deaths in Qatar on May 26"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  59. "Death toll from Covid-19 rises to 30 as 1740 more cases and 1439 recoveries reported in Qatar on May 27"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২০ 
  60. "More recoveries from Covid-19 than new cases for the first time in Qatar on May 28; three deaths reported"www.thepeninsulaqatar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মে ২০২০