২০১৯-এ ভারতে নির্বাচন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

২০১৯ সালের ভারতবর্ষের নির্বাচনে, সাধারণ নির্বাচনে, লোকসভা নির্বাচনে, রাজ্যসভা নির্বাচনে, ছয়টি রাজ্য বিধানসভা পরিষদের নির্বাচনে এবং অন্যান্য বিধানসভা পরিষদ, কাউন্সিল এবং স্থানীয় সংস্থাগুলিতে অন্যান্য উপনির্বাচনে অন্তর্ভুক্ত। [১]

Indian General Election 2019.svg

সাধারণ নির্বাচন[সম্পাদনা]

India (orthographic projection).svg

সতেরো লোকসভা গঠনের জন্য এপ্রিল থেকে মে ২০১৯ পর্যন্ত ভারতের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের ঘোষণা ঘোষণা: যেমনটা ঘটেছিল

এখানে পর্যায়ক্রমিক সময়সূচী, প্রতিটি পর্যায়ে আসন সংখ্যা এবং তাদের রাজ্যভিত্তিক ব্রেক-আপ দেওয়া হল:

পর্যায় ১, এপ্রিল ১১ :- ৯১ আসন, ২০ টি রাজ্য

অন্ধ্রপ্রদেশ.(২৫)অরুণাচল প্রদেশ (২), আসাম (৫), বিহার (৪), ছত্তিশগড় (১)

জম্মু কাশ্মীর (২), মহারাষ্ট্র (৭), মণিপুর (১), মেঘালয় (২), মিজোরাম (১), নাগাল্যান্ড (১),

উড়িষ্যায় (৪), সিকিম (১), তেলঙ্গানা (১৭), ত্রিপুরা (১), ইউপি (৮), উত্তরাখণ্ড (৫), পশ্চিমবঙ্গ(২), আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ (১), লাক্ষাদ্বীপ (১)

দ্বিতীয় পর্যায়, ১৪ এপ্রিল, ৯৭টি আসন, ১৩ টি রাজ্য

আসাম (৫), বিহার (৫), ছত্তিশগড় (৩), জে ও কে (২), কর্ণাটক (১৪) মহারাষ্ট্র (১০), মণিপুর (১), ওড়িশা (৫), টিএন (সব ৩৯), ত্রিপুরা (১) ইউপি (৮), পশ্চিমবঙ্গ (৩), পুদুচেরি (১)

পর্যায় ৩, এপ্রিল ২৩, ১১৫ আসন, ১৪ টি রাজ্য

আসাম (৪), বিহার (৫), ছত্তিশগড় (৭), গুজরাত (সব ২৬), গোয়া (সব ২), জে ও কে (১), কর্ণাটক (১৪), কেরালা (সব ২০), মহারাষ্ট্র (১৪), ওড়িশা(৬), ইউপি (১০), পশ্চিমবঙ্গ (৫), দাদরা ও নগর হাভেলি (১), দমন ও দেউ (১)

পর্যায় ৪, এপ্রিল ২৯ ৭১ আসন, ৯ টি রাজ্য

বিহার (৫), জে ও কে (১), ঝাড়খণ্ড (৩), এমপি (৬), মহারাষ্ট্র (১৭), ওড়িশা (৬), রাজস্থান (১৩), ইউপি (১৩), পশ্চিমবঙ্গ (৮)

পর্যায় ৫, ৬ মে ৫১ টি আসন, ৭ টি রাজ্য

বিহার (৫), ঝাড়খণ্ড (৪), জে ও কে (২), এমপি (৭), রাজস্থান (১২), ইউপি (১৪), পশ্চিমবঙ্গ (৭)

পর্যায় ৬, মে ১২, ৫৯ আসন, ৭ টি রাজ্য

বিহার (৮), হরিয়ানা (১০), ঝাড়খণ্ড (৪), এমপি (৮), ইউপি (১৪), পশ্চিমবঙ্গ (৮), এনসিআর (সব ৭)

পর্যায় ৭, ১৯ মে ১৯ টি আসন, ৮ টি রাজ্য

বিহার (৮), ঝাড়খণ্ড (৩), এমপি (৮), পাঞ্জাব (সব ১৩), পশ্চিমবঙ্গ (৯), চণ্ডীগড় (১), ইউপি (১৩), হিমাচল প্রদেশ (৪ টি)

গণনা তারিখ: ২৩ মে

তারিখ দেশ আগে সরকার নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী পরে সরকার নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী
এপ্রিল-মে ২০১৯ ভারত সংযুক্ত প্রগতিশীল জোট মনমোহন সিং জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট নরেন্দ্র মোদী

বিধানসভার নির্বাচন[সম্পাদনা]

অন্ধ্রপ্রদেশ, অরুণাচল প্রদেশ, ওড়িশা, সিক্কিমের বিধানসভা নির্বাচন সাধারণ নির্বাচনের সাথে সাথে একযোগে অনুষ্ঠিত হবে।

হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খন্ড ও জম্মু ও কাশ্মিরের বিধানসভা নির্বাচনে এই বছরই অনুষ্ঠিত হবে।

অন্ধ্র প্রদেশ[সম্পাদনা]

তারিখ রাজ্য আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মো সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
এপ্রিল 11 ২019 অন্ধ্র প্রদেশ তেলুগু দেশম পার্টি এন.চন্দ্রবাবু নাইডু -

উড়িষ্যায়[সম্পাদনা]

তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মো সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
এপ্রিল 11, 18, ২3, ২9, ২019 উড়িষ্যায় বিজু জনতা দল নতুন পটনাইক -

আগামী ৪ এপ্রিল, ১৮, ২৩, ২৯, ২০১৯ এ ৪ টি নির্ধারিত পর্যায়গুলিতে পরবর্তী বিধানসভা গঠন করার জন্য ওবিশায় অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন কমিশন।

জম্মু ও কাশ্মীর[সম্পাদনা]

তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
জুন 2019 [২] জম্মু ও কাশ্মীর রাষ্ট্রপতির শাসন -

২০১৯ সালের শেষের দিকে জম্মু ও কাশ্মিরে পরবর্তী বিধানসভা গঠন করার জন্য বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

মহারাষ্ট্র[সম্পাদনা]

তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মো সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
অক্টোবর 2019 মহারাষ্ট্র ভারতীয় জনতা পার্টি দেবেন্দ্র ফদনাভিস -
শিব সেনা মো
তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মো সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
এপ্রিল 11 ২019 অরুণাচল প্রদেশ ভারতীয় জনতা পার্টি পেমা খন্দু -

আগামী সংসদ নির্বাচনে আগামী ১১ এপ্রিল ২০১৯ সালে অরুণাচল প্রদেশে পরবর্তী বিধানসভা গঠন করা হবে।

তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মো সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
অক্টোবর বা নভেম্বর 2019 হরিয়ানা ভারতীয় জনতা পার্টি মনোহর লাল খট্টর

২০১৩ সালের অক্টোবরে হরিয়ানায় অনুষ্ঠিত পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচনের জন্য বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সিকিম[সম্পাদনা]

তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী
১১ এপ্রিল ২০১৯ সিকিম সিকিম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট পবন কুমার চামলিং -

আসন্ন বিধানসভা গঠনের জন্য এপ্রিল বা মে ২০১৯ সালে সিকিম অনুষ্ঠিত হবে।

ঝাড়খণ্ড[সম্পাদনা]

তারিখ রাষ্ট্র আগে সরকার নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মো সরকার পরে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মো
ডিসেম্বর 2019 ঝাড়খণ্ড ভারতীয় জনতা পার্টি রঘুবার দাস ড -

২০১৯ সালের মে মাসে ঝাড়খন্ডে পরবর্তী বিধানসভার অধিবেশনে গঠিত হওয়ার কারণে বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

উপ-নির্বাচনকে কেন্দ্র[সম্পাদনা]

জিন্দ(হরিয়ানা)[সম্পাদনা]

২০১৮সালের আগস্ট মাসে ভারতীয় জাতীয় লোকসভা বিধায়ক হরি চাঁদ মিহাদের মৃত্যুর পর উপনির্বাচনের প্রয়োজন ছিল। ২০১৮সালের ২৮ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বিজেপির প্রার্থী কৃষ্ণ লাল মিহা হরিয়ানায় জিন্দ বিধানসভা আসন জিতে ১২,৯৫৩ ভোট পেয়ে [৩]

রামগড়(রাজস্থান)[সম্পাদনা]

বিএসপি প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে আসন নির্বাচনের দাবিতে জেরা করা হয়েছিল। ২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কংগ্রেসের প্রার্থী শফিয়া জুবুর রামগড়ের বিধানসভা আসন জিতেছেন ১২,২২৮ ভোটে তার নিকটতম বিজেপি প্রার্থীকে পরাজিত করে। [৪]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]


  1. "Terms of the Houses"Election Commission of India। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৮ 
  2. "J&K assembly election may be held in June before Amarnath yatra" 
  3. India, Press Trust of (২০১৯-০১-২৭)। "Multi-cornered Jind bypoll tomorrow; BJP, Congress' prestige at stake"Business Standard India। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০১-২৭ 
  4. "Election in Ramgarh seat on January 28 - Times of India"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০১-২৮ 

বহিস্থ সংযোগ[সম্পাদনা]