পবন কুমার চামলিং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাননীয়
পবন কুমার চামলিং
Pawan-Kumar-Chamling.jpg
সিক্কিমের ৫ম মুখ্যমন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১২ ডিসেম্বর, ১৯৯৪
পূর্বসূরীসঞ্চমন লিম্বু
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1950-09-22) ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৫০ (বয়স ৬৯)
ইয়ানগং, সিক্কিম রাজ্য
(অধুনা সিক্কিম, ভারত)
জাতীয়তাভারতীয়
রাজনৈতিক দলসিক্কিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট
দাম্পত্য সঙ্গীধন মায়া চামলিং
টিকা মায়া চামলিং
সন্তান
জীবিকাকৃষক, ঠিকাদার
ওয়েবসাইটpawanchamling.in

পবন কুমার চামলিং (জন্ম: ২২ সেপ্টেম্বর, ১৯৫০) হলেন সিক্কিমি-বংশোদ্ভূত এক ভারতীয় রাজনীতিবিদ। তিনি ভারতের সিক্কিম রাজ্যের ৫ম তথা বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী।[১][২] পবন কুমার চামলিং হলেন সিক্কিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের প্রতিষ্ঠাতা-সভাপতি।[৩] এই দলটি ১৯৯৪ সাল থেকে একটানা পাঁচ বার নির্বাচিত হয়ে এই রাজ্যে ক্ষমতায় আসীন রয়েছে।[৪]

বর্তমানে চামলিং ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের দীর্ঘতম মেয়াদে রাজ্যশাসনকারী মুখ্যমন্ত্রী।[৫] সিক্কিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠার আগে ১৯৮৯ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত তিনি নর বাহাদুর ভাণ্ডারীর ক্যাবিনেটে শিল্প, তথ্য ও জনসংযোগ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

দক্ষিণ সিক্কিমের ইয়ানগঙে চামলিং জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম আশবাহাদুর চামলিং ও মায়ের নাম আশারানি চামলিং। চামলিং একজন সাহিত্যিকও বটে। তিনি পবন চামলিং কিরণ ছদ্মনামে নেপালি ভাষায় সাহিত্যচর্চা করেন। ২০১০ সালে সিক্কিম সাহিত্য পরিষদ তাকে ভানু পুরস্কারে ভূষিত করে। পবন কুমার চামলিং আট সন্তানের জনক। তার চার পুত্র ও চার কন্যা বর্তমান।[৬]

রাজনৈতিক কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৮২ সালে পবন কুমার চামলিং ইয়ানগং গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৮৫ সালে তিনি প্রথম সিক্কিম বিধানসভায় নির্বাচিত হয়েছিলেন। ডামথাং বিধানসভা কেন্দ্র থেকে দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হওয়ার পর ১৯৮৯ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত নর বাহাদুর ভাণ্ডারীর ক্যাবিনেট শিল্প, তথ্য ও জনসংযোগ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তারপর সিক্কিমে কিছুকাল রাজনৈতিক অস্থিরতার পর ১৯৯৩ সালের ৪ মে চামলিং সিক্কিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠা করেন।

পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু ছাড়া চামলিংই ভারতের একমাত্র মুখ্যমন্ত্রী যিনি একটানা পাঁচবার রাজ্যে সরকার গঠন করেছেন।[৭] তার দল সিক্কিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ১৯৯৪, ১৯৯৯, ২০০৪, ২০০৯ ও ২০১৪ সালের সিক্কিম বিধানসভা নির্বাচনে জয় লাভ করে। ১৯৯৪ সালের বিধানসভা নির্বাচনেই প্রথম তার দল সিক্কিমে ক্ষমতায় আসীন হয়। উন্নয়নমূলক কাজকর্ম ও শান্তিরক্ষার জন্য সিক্কিমে তার জনপ্রিয়তা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেতে থাকে। ২০০৯ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তার দল সিক্কিম বিধানসভার ৩২টি আসনের সবগুলিতেই জয় লাভ করেছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Sikkim budget session from 25 June"Zee NewsGangtokPTI। জুন ১৩, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৭, ২০১২ 
  2. "Pawan Chamling — The Fifth Chief Minister of Sikkim"National Informatics Centre। মার্চ ২৭, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৭, ২০১২ 
  3. "Sikkim CM wants BJP chief to step in" 
  4. "Sikkim CM Pawan Kumar Chamling: We have been let down by West Bengal" 
  5. "Sikkim's Pawan Chamling pips Jyoti Basu as India's longest-serving chief minister" 
  6. "Sikkim's Pawan Chamling becomes longest serving Chief Minister, surpasses former West Bengal Chief Minister Jyoti Basu" 
  7. "Chamling sworn in as Sikkim CM for record fifth time"The Indian Express। Gangtok। Press Trust of India। মে ২১, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ মে ২১, ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
সঞ্চমন লিম্বু
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী
১২ ডিসেম্বর, ১৯৯৪ – বর্তমান
উত্তরসূরী
ক্ষমতাসীন

টেমপ্লেট:সিক্কিমের মুখ্যমন্ত্রী