সুধাত পাস্কল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সুধাত পাস্কল
සුදත් පැස්කුවල්
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামসুধাত প্রজীব পাস্কল
জন্ম১৫ অক্টোবর, ১৯৬১
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাব্যাটসম্যান, প্রশাসক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৭)
৯ জুন ১৯৭৯ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ ওডিআই১৬ জুন ১৯৭৯ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি
ম্যাচ সংখ্যা
রানের সংখ্যা ২৪ ২৫০
ব্যাটিং গড় ২৪.০০ ৩৫.৭১
১০০/৫০ ০/০ ১/০
সর্বোচ্চ রান ২৩* ১০১*
বল করেছে ২৮ ২৫৯
উইকেট
বোলিং গড় - ৭২.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ১/২২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ৩/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

সুধাত প্রজীব পাস্কল (সিংহলি: සුදත් පැස්කුවල්; জন্ম: ১৫ অক্টোবর, ১৯৬১) কলম্বো এলাকায় জন্মগ্রহণকারী ক্রিকেট প্রশাসক ও সাবেক শ্রীলঙ্কান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৭০-এর দশকের শেষদিকে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে শ্রীলঙ্কার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন সুধাত পাস্কল

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৭৯ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে সুধাত পাস্কলের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ১৯৮০ সালে সাংবার্ষিক রয়্যাল-থোমিয়ান প্রতিযোগিতায় রয়্যাল কলেজ কলম্বো দলকে নেতৃত্ব দেন ও অসাধারণ ক্রিকেটার হিসেবে বিবেচিত হয়েছিলেন।[১]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন সুধাত পাস্কল। ৯ জুন, ১৯৭৯ তারিখে নটিংহামে নিউজিল্যান্ড দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ১৬ জুন, ১৯৭৯ তারিখে ম্যানচেস্টারে ভারত দলের বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি। সবগুলো খেলাই ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ১৯৭৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসরে খেলেছিলেন। ঐ প্রতিযোগিতার পরপরই ব্রিটিশ আইলসে তিনি তার প্রথম-শ্রেণীর খেলাগুলোয় অংশ নিয়েছিলেন।

১৭ বছর ২৩৭ দিন বয়স নিয়ে শ্রীলঙ্কার সর্বকনিষ্ঠ ওডিআই ক্রিকেটারের মর্যাদা লাভ করছেন তিনি। ঐ সময়ে শ্রীলঙ্কা দল আইসিসি’র পূর্ণাঙ্গ সদস্য না থাকায় টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণের মর্যাদাপ্রাপ্ত হননি।

অবসর[সম্পাদনা]

১৯৮১ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসিত হন। ফলে, কার্যত তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট জীবনের সমাপ্তি ঘটে। বেরিয়া কলেজে অধ্যয়ন করেন। এরপর, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৯৭ থেকে ২০০৮ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে প্রশাসকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি কানাডায় বসবাস করছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]