শঙ্খনিধি নাচঘর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

শঙ্খনিধি নাচঘর বাংলাদেশের ঢাকার টিপু সুলতান রোডে শঙ্খনিধি হাউজ এর পূর্বপার্শ্বে প্রায় ৫০ ফুট প্রশস্ত একটি ছোট মনোরম একতলা স্থাপনা ছিল যা শঙ্খনিধি নাচঘর নামে পরিচিত। এর কারুকাজ এবং প্রবেশমুখ দেখতে হিন্দু মন্দিরের মত হলেও এটি মূলত বিনোদন ও সাংস্কৃতিক কাজের জন্যই নির্মাণ করা হয়েছিল, ধর্মীয় উদ্দেশ্যে নয়। কেন্দ্রের মূল নাচঘরটিতে কাঠের কারুকাজসজ্জিত ছাদ এবং দেয়ালগুলো রঙিন টালিতে শোভিত ছিল। [১]

বর্তমানে এখানে গ্র্যাজুয়েটস উচ্চ বিদ্যালয় অবস্থিত

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বিশ শতকের গোড়ার দিকে লালমোহন সাহা বণিক, ভজহরি সাহা বণিক ও গৌর নিতাই সাহা বণিক ১৯২০-১৯২৬ সালের মধ্যে ঢাকার কিছু ভূসম্পত্তির মালিক হয় এবং বেশ কিছু ইমারত গড়ে তোলে। [২] এসব স্থাপনার মধ্যে শঙ্খনিধি নাচঘর অন্যতম।

স্থাপত্যকৌশল[সম্পাদনা]

এই দক্ষিণমুখী ভবনটি ভূপৃষ্ঠ হতে ৫ ফুট উঁচুতে স্থাপিত। ভবনটি কেন্দ্রীয় অক্ষের সাপেক্ষে প্রতিসম, দুইদিকের প্রান্তে দুটি অষ্টকোণী অংশ বিদ্যমান। অষ্টকোণী অংশদ্বয় দ্বিতলবিশিষ্ট এবং চূড়ায় অষ্টকোণী গম্বুজ দ্বারা আবৃত। এর বারান্দায় প্রবেশের জন্য ২০ ফুট প্রশস্ত সোপান রয়েছে। বারান্দার সম্মুখে ৪ টি সুশোভিত সরু করিন্থিয়ান স্তম্ভ আছে, যাদের মাঝখানে তিনটি বহুখাজযুক্ত অর্ধবৃত্তাকার তোরণ বিদ্যমান। অষ্টকোণী অংশদ্বয়ের জানালাগুলো সুসজ্জিত তোরণ এবং দুইপাশে সরু লম্বা করিন্থিয়ান স্তম্ভ দ্বারা বেষ্টিত। এই ভবনটিতে একটি কেন্দ্রীয় নাচঘরসহ বিভিন্ন আয়তনের মোট পাঁচটি ঘর রয়েছে। এগুলোর আয়তন ২০ফুট * ২৫ ফুট এর কাছাকাছি। মূল নাচঘরের কারুকাজশোভিত কাঠের আচ্ছাদনটি প্রায় ২৫ ফুট উঁচু।[৩]

বিলুপ্তি[সম্পাদনা]

১৯৯১ সালে শঙ্খনিধি হাউসের একাংশ ও নাচঘর ভেঙে ফেলা হয়।[১] নাচঘরের স্থানটিতে একটি স্কুল স্থাপন করা হয়। [৪]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Fascinating Bengal"। ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ অক্টোবর ২০১৬ 
  2. "ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা রক্ষা করবে কে?" 
  3. BUILDINGS OF THE BRITISH RAJ IN BANGLADESH, by Najimuddin Ahmed, edited by John Sanday, THE UNIVERSITY PRESS LIMITED, November1986 first edition, page 54
  4. http://archive.samakal.net/print_edition/details.php?news=13&view=archiev&y=2010&m=3&d=4&action=main&option=single&news_id=50509&pub_no=266[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]