মুহিব-আলীপুরের যুদ্ধ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
মুহিব-আলীপুরের যুদ্ধ
মূল যুদ্ধ: বর্গির হাঙ্গামা এবং বাংলায় মারাঠা আক্রমণ (১৭৪৫–১৭৪৯)
তারিখ ১৪ নভেম্বর ১৭৪৫[১]
অবস্থান মুহিব-আলীপুর, বিহার প্রদেশ, বাংলা (বর্তমান মুহিব-আলীপুর, বিহার, ভারত)
ফলাফল বাংলার নবাবের বিজয়[১][২]
বিবদমান পক্ষ
Coat of Arms of Nawabs of Bengal.PNG বাংলা Flag of the Maratha Empire.svg মারাঠা সাম্রাজ্য
নেতৃত্ব প্রদানকারী
Coat of Arms of Nawabs of Bengal.PNG আলীবর্দী খান Flag of the Maratha Empire.svg প্রথম রঘুজী ভোঁসলে[১]
Flag of the Maratha Empire.svg মীর হাবিব
শক্তিমত্তা
Coat of Arms of Nawabs of Bengal.PNG অজ্ঞাত Flag of the Maratha Empire.svg ১৪,০০০[১]
প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতি
Coat of Arms of Nawabs of Bengal.PNG অজ্ঞাত Flag of the Maratha Empire.svg অজ্ঞাত

মুহিব-আলীপুরের যুদ্ধ ১৭৪৫ সালের ১৪ নভেম্বর বর্তমান ভারতের বিহার রাজ্যের মুহিব-আলীপুর নামক স্থানে বাংলার নবাব আলীবর্দী খানের সৈন্যবাহিনী এবং প্রথম রঘুজী ভোঁসলেমীর হাবিবের নেতৃত্বাধীন মারাঠা বাহিনীর মধ্যে সংঘটিত হয়[১]। যুদ্ধে মারাঠারা শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়[১]

পটভূমি[সম্পাদনা]

১৭৪৫ সালে নাগপুরের মহারাজা প্রথম রঘুজী ভোঁসলে বাংলায় আফগান বিদ্রোহের সুযোগ নিয়ে বাংলা আক্রমণ করেন[১]। বাংলার নবাব আলীবর্দী খান এসময় আফগান বিদ্রোহ দমনে ব্যস্ত থাকায় তিনি মারাঠাদের প্রতিরোধ করতে পারেন নি[১]। এ সুযোগে রঘুজীর মারাঠা সৈন্যরা একের পর এক উড়িষ্যা, মেদিনীপুর, বর্ধমান এবং বীরভূম দখল করে নেয়[১], এবং বিহার দখল করার জন্য অগ্রসর হয়।

যুদ্ধের ঘটনাবলি[সম্পাদনা]

মারাঠাদের বিহারের দিকে অগ্রসর হওয়ার সংবাদ পেয়ে নবাব আলীবর্দীও তাদের অনুসরণ করে বিহারে আসেন[১]। বিহারের মুহিব-আলীপুর নামক স্থানে আলীবর্দীর বাহিনী মারাঠাদের ধরে ফেলতে সক্ষম হয়। নবাব মারাঠা বাহিনীকে আক্রমণ করেন এবং মারাঠারা শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়[১]

ফলাফল[সম্পাদনা]

মুহিব-আলীপুরে পরাজয়ের পর মারাঠারা বিহার থেকে পশ্চাৎপসরণ করতে বাধ্য হয়[১][২]। ফলে তাদের বিহার দখলের পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়ে যায়। এরপর মীর হাবিবের পরামর্শে রঘুজী মুর্শিদাবাদ আক্রমণের সিদ্ধান্ত নেন[১][২]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ড. মুহম্মদ আব্দুর রহিম, (বাংলাদেশের ইতিহাস), আলীবর্দী ও মারাঠা আক্রমণ, পৃ. ২৯৩–২৯৯
  2. "Maratha raids into Bengal"