মুক্তির গান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
মুক্তির গান
Muktir Gaan Porster.jpg
চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালক তারেক মাসুদ
ক্যাথরিন মাসুদ
প্রযোজক তারেক মাসুদ
ক্যাথরিন মাসুদ
রচয়িতা তারেক মাসুদ
চিত্রগ্রাহক লিয়ার লেভিন
সম্পাদক ক্যাথরিন মাসুদ
স্টুডিও আডিও ভিশন
মুক্তি ১ ডিসেম্বর, ১৯৯৫
দৈর্ঘ্য ৮০ মিনিট
দেশ বাংলাদেশ
ভাষা বাংলা

মুক্তির গান তারেক মাসুদক্যাথরিন মাসুদ পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক বাংলা প্রামাণ্য চিত্র। ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৯৫ সালে।[১] ছবিটি দক্ষিণ এশিয়া চলচ্চিত্র পুরস্কারে বিশেষ উল্লেখ পুরস্কার এবং ২০তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগে পুরস্কার লাভ করে।

নির্মাণ নেপথ্য[সম্পাদনা]

মার্কিন চলচ্চিত্র নির্মাতা লিয়ার লেভিন ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় যুদ্ধের উপর একটি ডকুমেন্টারি নির্মাণের অভিপ্রায়ে এদেশের একদল সাংস্কৃতিক কর্মীর সঙ্গ নেন। 'বাংলাদেশ মুক্তি সংগ্রামী শিল্পী সংস্থা' নামের দলের এই সদস্যরা বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে মুক্তিযোদ্ধা ও শরনার্থীদের দেশাত্মবোধক ও সংগ্রামী গান শুনিয়ে উজ্জীবিত করতেন। এই শিল্পীদের সাথে থেকে লেভিন প্রায় ২০ ঘণ্টার ফুটেজ সংগ্রহ করেন। যুদ্ধের শেষ দিকে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যান। আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে তিনি ডকুমেন্টারি তৈরি করতে পারেননি।

দীর্ঘ দুই দশক পর ১৯৯০ সালে তারেক ও ক্যাথরিন মাসুদ নিউইয়র্কে লেভিনের কাছ থেকে এই ফুটেজ সংগ্রহ করেন। এ থেকে একটি পূর্ণাঙ্গ চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য তারা আরো বিভিন্ন উৎস থেকে মুক্তিযুদ্ধের নানা সংরক্ষিত উপাদান সংগ্রহ করেন, বিশ বছর আগের সেই শিল্পীদের সাথে যোগাযোগ করেন। লেভিনের কাছ থেকে প্রাপ্ত ফুটেজের সাথে সংগৃহীত অন্যান্য উপাদান যোগ করে ছবিটি নির্মিত হয়।

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের বিভিন্ন শিল্পী মুক্তির গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন বিপুল ভট্টাচার্য, দেবব্রত চৌধুরী, দুলাল চন্দ্রশীল, লাইলা খান, লতা চৌধুরী, লুবনা মরিয়ম, মাহমুদুর রহমান বেনু, শাহীন সামাদ, শারমিন মুর্শিদ, স্বপন চৌধুরী, এবং তারিক আলী। ছবিতে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী, আমিনুল হক চৌধুরী এবং নাম না জানা অনেক মুক্তিযোদ্ধারা অংশগ্রহণ করেন।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

দক্ষিণ এশিয়া চলচ্চিত্র পুরস্কার
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. নাঈম মোহায়মেন খারিজ্কারী ইতিহাসের সমাপ্তি? দ্য ডেইলি স্টার

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]