জেমস মিলনার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জেমস মিলনার
James Milner.jpg
মিলনার লিভারপুলের হয়ে খেলছেন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম জেমন ফিলিপ মিলনার[১]
জন্ম (1986-01-04) ৪ জানুয়ারি ১৯৮৬ (বয়স ৩৩)[২]
জন্ম স্থান লিডস, ইংল্যান্ড
উচ্চতা ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি (১.৭৫ মিটার)[৩]
মাঠে অবস্থান মিডফিল্ডার / উইঙ্গার / রক্ষণভাগের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব লিভারপুল
জার্সি নম্বর
যুব পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন
১৯৯৬-২০০২ লিডস ইউনাইটেড
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
২০০২–২০০৪ লিডস ইউনাইটেড ৪৮ (৫)
২০০৩সুইডন টাউন (লোন) (২)
২০০৪–২০০৮ নিউক্যাসল ইউনাইটেড ৯৪ (৬)
২০০৫–২০০৬অ্যাস্টন ভিলা (লোন) ২৭ (১)
২০০৮–২০১০ অ্যাস্টন ভিলা ৭৩ (১১)
২০১০–২০১৫ ম্যানচেস্টার সিটি ১৪৭ (১৩)
২০১৫– লিভারপুল ৯৭ (১২)
জাতীয় দল
২০০১–২০০২ ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব ১৬ (৫)
২০০২–২০০৩ ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব ১৭ ১১ (৮)
২০০৩ ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব ১৯ (০)
২০০৩–২০০৪ ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব ২০ (৪)
২০০৪–২০০৯ ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব ২১ ৪৬ (৯)
২০০৯–২০১৬ ইংল্যান্ড ৬১ (১)
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে এবং ১২ই আগস্ট ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।
† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

জেমস মিলনার (জন্ম ৪ জানুয়ারি ১৯৮৬) একজন ইংরেজ পেশাদার ফুটবলার। তিনি বর্তমানে ইংল্যান্ড জাতীয় ফুটবল দল থেকে অবসর গ্রহণ করেছেন এবং ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে লিভারপুলের হয়ে খেলেন। তিনি মধ্যমাঠ থেকে শুরু করে রক্ষণে খেলতে পারেন।

ছোটবেলা থেকেই তিনি ক্রিকেট এবং ফুটবলে বেশ প্রতিভা দেখিয়েছেন। তবে ১৯৯৬ সালে তিনি লিডস ইউনাইটেড ফুটবল ক্লাবের যুব একাডেমীতে যোগ দেন। ২০০২ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি প্রিমিয়ার লীগের সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। এরপর তিনি সুইডন টাউন, নিউক্যাসল ইউনাইটেড, অ্যাস্টন ভিলাম্যানচেস্টার সিটিতে তার ফুটবল প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন। পাঁচ বছর ম্যানচেস্টার সিটিতে থাকার পর তিনি ২০১৫ সালে লিভারপুলে পাড়ি জমান।

ইংল্যান্ড জাতীয় ফুটবল দলে জেমস মিলনার ৬১ বার ডাক পান। মলদোভা জাতীয় দলের বিরুদ্ধে তার একমাত্র গোলটি আসে। তিনি ২০১০ এবং ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে প্রতিনিধিত্ব করেন। ২০১৬ সালে তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর নেন।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

ম্যানটেস্টার সিটি

লিভারপুল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Updated squads for 2017/18 Premier League confirmed"। Premier League। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  2. "J. Milner: Summary"Soccerway। Perform Group। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১৮ 
  3. Hugman, Barry J., সম্পাদক (২০১০)। The PFA Footballers' Who's Who 2010–11। Edinburgh: Mainstream Publishing। পৃষ্ঠা 289। আইএসবিএন 978-1-84596-601-0 
  4. "James Milner: Overview"। Premier League। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  5. McNulty, Phil (১৪ মে ২০১১)। "Man City 1–0 Stoke"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  6. McNulty, Phil (২ মার্চ ২০১৪)। "Manchester City 3–1 Sunderland"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  7. Smith, Ben (১২ আগস্ট ২০১২)। "Chelsea 2–3 Man City"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  8. McNulty, Phil (১১ মে ২০১৩)। "Manchester City 0–1 Wigan Athletic"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  9. Bevan, Chris (৭ আগস্ট ২০১১)। "Manchester City 2–3 Manchester United"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  10. Sanghera, Mandeep (১০ আগস্ট ২০১৪)। "Arsenal 3–0 Manchester City"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  11. McNulty, Phil (২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Liverpool 1–1 Manchester City"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  12. McNulty, Phil (২৬ মে ২০১৮)। "Real Madrid 3–1 Liverpool"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০১৮ 
  13. McNulty, Phil (১৮ মে ২০১৬)। "Liverpool 1–3 Sevilla"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]