ভাল্লুক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ভাল্লুক
সময়গত পরিসীমা: ৩৮–০কোটি Late Eocene – Recent
Ursus arctos - Norway.jpg
Captive brown bear at the Polar Zoo.
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: Mammalia
বর্গ: মাংশাশী
উপবর্গ: Caniformia
পরিবার: Ursidae
G. Fischer de Waldheim, 1817
Genera

ভালুক বা ভল্লুক শ্বাপদ বর্গের (order carnivora) স্তন্যপায়ী প্রাণী। পৃথিবিতে আট রকম প্রজাতির ভাল্লুক পাওয়া যায় । সাধারণত ভালুকের চেহারা ভারী এবং পা ছোট আর মোটা হয় । ভালুকের মুখ লম্বাটে, গায়ে বড় বড় লোম । ভালুকের থাবায় পাঁচটি আঙ্গুল আর আঙ্গুলে নখ থাকে ।

নামকরণ[সম্পাদনা]

ভাল্লুকের নাম বিয়ার এসেছে পুরাতন ইংরেজি বেরা থেকে এবং পরিবার নাম এসেছে ভাল্লুকের জার্মান নাম থেকে।[১]

রঙ[সম্পাদনা]

সব ভাল্লুকের গায়ের রঙ একরকম নয়। যেমন, আমেরিকান কালো ভাল্লুকের গায়ের রঙ কালো, বাদামি, নীলাভ কালো ইত্যাদি হয়ে থাকে। সূর্য ভাল্লুকের (sun bear)বুকের রঙ ধূসর এবং মুখে বিভিন্ন রকমের দাগ থাকে। অন্যদিকে মেরু ভালুক হয় সাদা রঙের, তবে এদের সাদা রঙের লোম এর নিচে কালো লোম থাকে।

আচরণ[সম্পাদনা]

মা ও শাবক ছাড়া বাকি সব ভালুকই একা বাস করে। তবে মাঝে মাঝে তারা দল বেঁধে খাবার খোঁজে। খাবারের খোঁজে এরা বিশাল এলাকা ঘুরে বেড়ায়। ভালুক তার খাবার সংগ্রহের পথ ভালভাবে মনে রাখে। অধিকাংশ ভালুকই গাছে চড়তে পারে। তাদের শক্তিশালী থাবা ও ধারালো নখ এ কাজে সাহায্য করে।

ঝগড়া করার সময় ভালুক প্রতিপক্ষকে ভয় দেখানোর জন্য দুই পায়ে দাঁড়িয়ে যায়।

ভাল্লুক প্রজাতি[সম্পাদনা]

১। সূর্য ভাল্লুক

২। এশীয় কালো ভাল্লুক

৩। বাদামি ভাল্লুক

৪। মেরু ভালুক

৫। আমেরিকান কালো ভাল্লুক

৬। এশীয় কালো ভাল্লুক

৭। পান্ডা

৮। চশমাছোপ ভাল্লুক

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Pokorny (1959) indo-european.nl ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১ সেপ্টেম্বর ২০১১ তারিখে

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]