নেলসন বেটানকোর্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নেলসন বেটানকোর্ট
নেলসন বেটানকোর্ট.jpg
১৯৩০ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে নেলসন বেটানকোর্ট
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৮৮৭-০৬-০৪)৪ জুন ১৮৮৭
ত্রিনিদাদ
মৃত্যু১২ অক্টোবর ১৯৪৭(1947-10-12) (বয়স ৬০)
ত্রিনিদাদ
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন-
ভূমিকাব্যাটসম্যান, অধিনায়ক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ২৩)
১ ফেব্রুয়ারি ১৯৩০ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৮
রানের সংখ্যা ৫২ ৪৪২
ব্যাটিং গড় ২৬.০০ ১৭.০০
১০০/৫০ ০ / ০ ০ / ১
সর্বোচ্চ রান ৩৯ ৭১*
বল করেছে -
উইকেট
বোলিং গড় - ৯৮.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং - ১/৬৫
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০ / ০ ৮ / ০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭

নেলসন বেটানকোর্ট (ইংরেজি: Nelson Betancourt; জন্ম: ৪ জুন, ১৮৮৭ - মৃত্যু: ১২ অক্টোবর, ১৯৪৭) ত্রিনিদাদে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৩০ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে খেলেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে ত্রিনিদাদ ও টোবাগো দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যানের দায়িত্ব পালন করে গেছেন। এছাড়াও মাঝে-মধ্যে উইকেট-রক্ষক ও বোলার হিসেবেও খেলতেন তিনি।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

এক দৃষ্টিকোণে তাঁর খেলোয়াড়ী জীবন ১৯০৫ থেকে ১৯৩০ সাল পর্যন্ত অন্যতম দীর্ঘস্থায়ীত্ব পেয়েছিল। তবে প্রকৃত অর্থে দীর্ঘসময় বেশ বিরতিকাল কাটে তাঁর। আগস্ট, ১৯০৫ সালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ত্রিনিদাদের পক্ষে অভিষেক ঘটে নেলসন বেটানকোর্টের। কিংস্টনের সাবিনা পার্কে জ্যামাইকার বিপক্ষে ঐ খেলায় তাঁর দল জয় পেয়েছিল। এর দুই বছর পর দ্বিতীয় খেলায় অংশ নেন তিনি। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান করেন অপরাজিত ৭১। ১৯২৮-২৯ মৌসুমে আন্তঃউপনিবেশ প্রতিযোগিতায় ব্রিটিশ গায়ানার বিপক্ষে এ রানটিই একমাত্র অর্ধ-শতরান ছিল।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তাঁর। ১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩০ তারিখে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ত্রিনিদাদের পোর্ট অব স্পেনে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে অংশগ্রহণ করেন। টেস্টটিতে সফরকারী দল জয়লাভ করে। সিরিজের প্রত্যেক খেলায় আদিবাসী খেলোয়াড়েরা স্বাগতিক দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অধিনায়কত্ব করার সুযোগ পান। এ প্রেক্ষিতে তিনি টেস্টে অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন। খেলায় তিনি ৩৯ ও ১৩ রান তুলেন। ৪২ বছর ২৪২ দিন বয়সে টেস্ট অভিষেক ঘটার ফলে তিনি অদ্যাবধি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বয়োঃজ্যেষ্ঠ অভিষেক লাভকারী টেস্ট ক্রিকেটারের মর্যাদা লাভ করে আসছেন।

১২ অক্টোবর, ১৯৪৭ তারিখে ৬০ বছর বয়সে ত্রিনিদাদে নেলসন বেটানকোর্টের দেহাবসান ঘটে। তাঁর মৃত্যুর বিষয়টি নথিভূক্ত হয়নি ও উইজডেন কর্তৃপক্ষ কোন স্মরণিকা প্রকাশ করেনি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  • World Cricketers – A Biographical Dictionary by Christopher Martin-Jenkins published by Oxford University Press (1996).
  • The Wisden Book of Test Cricket, Volume 1 (1877–1977) compiled and edited by Bill Frindall published by Headline Book Publishing (1995).
  • The Complete Record of West Indian Test Cricketers by Bridgette Lawrence & Ray Goble published by ACL & Polar Publishing (UK) Ltd. (1991).

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
টেডি হোড
ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯২৯-৩০
উত্তরসূরী
মরিস ফার্নান্দেজ