ধর্মতত্ত্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ধর্মতত্ত্ব (ইংরেজি ভাষায়: Theology) দর্শনকেন্দ্রিক জ্ঞানের একটি ক্ষেত্র যাতে ধর্মীয় অনুমান এবং আত্মপক্ষসমর্থনবিদ্যা (apologetics) সংক্রান্ত বিষয়াদি আলোচিত হয়। উৎপত্তির প্রেক্ষাপট এবং ঐতিহাসিকভাবে ধর্মতত্ত্ব খ্রিস্টান ধর্মের সাথে বেশি সম্পৃক্ত যদিও পরবর্তীকালে সকল ধর্মের (বিশেষ করে ইসলাম এবং ইহুদি ধর্ম) অধ্যয়নই এর অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।[১] সেদিক থেকে বলা যায়, ধর্ম, ধর্মের প্রভাব এবং ধর্মীয় সত্যের প্রকৃতি নিয়ে পদ্ধতিগত ও যৌক্তিক অধ্যয়নের নামই ধর্মতত্ত্ব।[২] জ্ঞানের এই শাখার বহুল আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে ঈশ্বর, মানবতা, বিশ্বজগৎ, নির্বাণ বা মুক্তি এবং পরলোকতত্ত্ব

সংজ্ঞা[সম্পাদনা]

প্রকৃতপক্ষে ধর্মতত্ত্বের অনেক ধরণের সংজ্ঞা ও বিশ্লেষণ হতে পারে। যেমন, হিপোর আউগুস্তিন লাতিন শব্দ theologia এর সংজ্ঞা দিতে গিয়ে বলেছেন, "ঈশ্বর সম্পর্কিত আলোচনা বা যুক্তি উপস্থাপন"[৩] তবে এই একই শব্দকে জ্ঞানের বিভিন্ন শাখা এবং যুক্তির বিভিন্ন প্রকারভেদ বোঝাতে ব্যবহার করা যেতে পারে।[৪] ধর্মতাত্ত্বিকেরা দর্শন, নৃবিবরণ (এথনোগ্রাফি), ইতিহাস, আধ্যাত্মিকতা এবং আরও অনেক বিষয় থেকে ব্যাখ্যা ও যুক্তি গ্রহণ করে বিভিন্ন ধর্মীয় বিষয় ব্যাখ্যা করেন বা পরীক্ষার মাধ্যমে সমালোচনা করেন বা ক্ষেত্রবিশেষে তাদের অগ্রগতিসাধনও করেন। ধর্মতত্ত্বের মাধ্যমে একজন ধর্মতাত্ত্বিক নিচের যেকোন কাজ সাধনের চেষ্টা করতে পারেন:

  • তার নিজের ধর্ম বা প্রথাকে আরও সঠিকভাবে বোঝা[৫]
  • নিজের নয় এমন একটি ধর্ম বা প্রথাকে বোঝার চেষ্টা করা[৬]
  • বিভিন্ন ধর্মের মধ্যে তুলনা করা[৭]
  • নির্দিষ্ট একটি ধর্মীয় প্রথাকে সত্য হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা তথা আত্মপক্ষ সমর্থন।
  • কোন একটি ধর্মীয় প্রথাকে সংস্কার করা[৮]
  • একটি ধর্মীয় প্রথাকে প্রচারের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া[৯] or
  • একটি ধর্মের জ্ঞানভাণ্ডার থেকে সাহায্য নিয়ে অধুনি উদ্ভূত কোন সমস্যা সমাধানের চেষ্টা[১০]
  • ধর্মের জ্ঞানভাণ্ডার থেকে সাহায্য নিয়ে বিশ্বজগৎ ব্যাখ্যার চেষ্টা[১১]
  • নির্দিষ্ট কোন ধর্মের দিকে ইঙ্গিত না করে সাধারণভাবে ঈশ্বর বা আধ্যাত্মিকতা নিয়ে আলোচনা
  • কোন ধর্মের যুক্তিকে চ্যালেঞ্জ করা বা সার্বিকভাবে বিশ্ব সম্পর্কে ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গির বিরোধিতা করা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Andrew Louth, Helmut Thielicke, "Theology", এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা
  2. Theology - WordNet, প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি
  3. City of God Book VIII. i. "de divinitate rationem sive sermonem"
  4. McGrath, Alistair. 1998. Historical Theology: An Introduction to the History of Christian Thought. Oxford: Blackwell Publishers. pp. 1–8.
  5. See, e.g., Daniel L. Migliore, Faith Seeking Understanding: An Introduction to Christian Theology 2nd ed.(Grand Rapids: Eerdmans, 2004)
  6. See, e.g., Michael S. Kogan, 'Toward a Jewish Theology of Christianity' in The Journal of Ecumenical Studies 32.1 (Winter 1995), 89–106; available online at [১]
  7. See, e.g., David Burrell, Freedom and Creation in Three Traditions (Notre Dame: University of Notre Dame Press, 1994)
  8. See, e.g., John Shelby Spong, Why Christianity Must Change or Die (New York: Harper Collins, 2001)
  9. See, e.g., Duncan Dormor et al (eds), Anglicanism, the Answer to Modernity (London: Continuum, 2003)
  10. See, e.g., Timothy Gorringe, Crime, Changing Society and the Churches Series (London:SPCK, 2004)
  11. See e.g., Anne Hunt Overzee's gloss upon the view of Ricœur (1913–2005) as to the role of 'theologian': "Paul Ricœur speaks of the theologian as a hermeneut, whose task is to interpret the multivalent, rich metaphors arising from the symbolic bases of tradition so that the symbols may 'speak' once again to our existential situation." Anne Hunt Overzee The body divine: the symbol of the body in the works of Teilhard de Chardin and Rāmānuja, Cambridge studies in religious traditions 2 (Cambridge: Cambridge University Press, 1992), ISBN 0-521-38516-4, 9780521385169, p.4; Source: [২] (accessed: Monday April 5, 2010)