দারি ভাষা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দারি
দারি ফার্সি, আফগানি ফার্সি
دری
Dari.png
উচ্চারণdaˈɾiː
দেশোদ্ভবআফগানিস্তান
মাতৃভাষী
১,২৪,৬০,০০০ (২০০০-২০১১)[১]
সরকারি, আফগানিস্তানের ৫০% জনসংখ্যার ভাষা।[২][২][৩][৪]
উপভাষাসমূহকাবুলি, মাজারি, হেরাতি, বাদাখশনি, পঞ্জশিরি, লাঘমানি, সিস্তানি, আইমাকি, হাজারাগি[৫]
ফার্সি বর্ণমালা
সরকারি অবস্থা
সরকারি ভাষা
 আফগানিস্তান
নিয়ন্ত্রক সংস্থাআফগানিস্তান বিজ্ঞান একাডেমি
ভাষা কোডসমূহ
আইএসও ৬৩৯-৩বিভিন্ন প্রকার:
prs – Dari, Afghan Persian
aiq – আইমাকি
haz – হাজারাগি
গ্লোটোলগdari1249  (Dari)[৬]
aima1241  (Aimaq)[৭]
haza1239  (Hazaragi)[৮]
লিঙ্গুয়াস্ফেরা58-AAC-ce (Dari) + 58-AAC-cdo & cdp (Hazaragi) + 58-AAC-ck (Aimaq)
আইইটিএফfa-AF

দারি (দারি: دری‎) অথবা দারি ফার্সি (فارسی دری ফার্সি-ইয়ে-দারি) অথবা ফার্সি (فارسی) আফগানিস্তানে ব্যবহৃত ফার্সি ভাষার একটি প্রকার।[৯][১০] দারি শব্দটি ১৯৬৪ সাল থেকে আফগানিস্তান সরকার কর্তৃক ফার্সি ভাষার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃত এবং প্রচারিত হয়ে আসছে।[৯][১১] এই কারণে এটি অনেক পশ্চিমা লেখায় আফগানি ফার্সি হিসাবেও পরিচিত।[২][১২] এর ফলে একটি নামকরণ বিতর্ক ঘটেছে। আফগানিস্তানে অনেক ফার্সি ভাষাভাষী "ফার্সি" নামটি ব্যবহার করতে পছন্দ করেন এবং বলেন যে ফার্সিভাষী দেশ, যেমন ইরান এবং তাজিকিস্তানের সঙ্গে আফগানদের সাংস্কৃতিক, ভাষাগত ও ঐতিহাসিক সম্পর্ক বিছিন্ন করার প্রচেষ্টা হিসাবে সেখানকার প্রভাবশালী পাঠান গোষ্ঠী দ্বারা দারিকে তাদের উপর জোড় করে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।[১৩]

আফগানিস্তানের সংবিধান অনুসারে দারি আফগানিস্তানের দুটি সরকারী ভাষার মধ্যে একটি; অন্যটি হলো পশতু[১৪] দারি আফগানিস্তানে সর্বাধিক ব্যবহৃত কথ্য ভাষা এবং জনসংখ্যার প্রায় ২৫-৫০% লোকের এটি মাতৃ ভাষা।[২][৩][৪] ফার্সি এবং দারি পারস্পরিকভাবে বোধগম্য,তবে শব্দভাণ্ডার এবং ধ্বনিবিন্যাসের দিক থেকে বিশেষভাবে পার্থক্য দেখতে পাওয়া যায়।

ইরানীয় ফার্সি এবং তাজিক ভাষার মতো দারি ভাষাও আদি নব্য-ফার্সির মধ্য দিয়ে মধ্য ফার্সি ভাষার ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে। এই মধ্য ফার্সি ভাষা ছিল সাসানীয় সাম্রাজ্যের সরকারি, ধর্মীয় এবং সাহিত্যিক ভাষা, এবং হাখমানেশি সাম্রাজ্যে ব্যবহৃত আদি ফার্সি ভাষার পূর্ববর্তী রূপ।[১৫][১৬] ঐতিহাসিকভাবে সাসানীয়দের রাজসভায় ব্যবহৃত মধ্য ফার্সিকেই দারি হিসাবে উল্লিখিত করা হতো।[১৭]

নামকরণ[সম্পাদনা]

১০ম শতাব্দি থেকে আরবি এবং ফার্সি লেখায় নব্য ফার্সি ভাষাকে দারি নাম দেওয়া হয়ে আসছে।[১৮]

১৯৬৪ সাল থেকে আফগানিস্তানে ব্যবহৃত ফার্সি ভাষাকে সরকারিভাবে দারি বলা হয়। আফগানিস্তানে প্রশাসন, সরকার, রেডিও, টেলিভিশন এবং মূদ্রণ মাধ্যমে ব্যাবহৃত প্রামান্য ভাষা দারি হলো ফার্সি ভাষার আধুনিক উপভাষা। প্রভাবশালী স্থানীয় দারি ব্যবহারকারীদের দ্বারা এই ভাষাকে ফার্সি (فارسی) হিসাবে উল্লিখিত হওয়ার ফলে কিছু পাশ্চাত্য লেখায় এটিকে আফগানি ফার্সি ও বলা হয়।[২][১২]

দারি শব্দের উৎপত্তি সম্পর্কে বিভিন্ন মতবাদ আছে। সাসানীয়দের রাজসভার আনুষ্ঠানিক ভাষা হওয়ার ফলে অধিকাংশ পণ্ডিতরা মনে করেন যে দারি শব্দটি ফার্সি শব্দ দর বা দরবার (دربار) থেকে এসেছে, যার অর্থ "রাজসভা"ইবনে আল নাদিমের কিতাব ই ফিহরিস্ত-এর উদ্ধৃতি অনুযায়ী দারি শব্দের মূল অর্থ ইবনে আল মুকাফফার একটি বিজ্ঞপ্তি থেকে পাওয়া যায়। তাঁঁর মতে পার্সি ভাষাটি যাজক, পণ্ডিতদের দ্বারা ব্যবহৃত হতো; এটি ফার্সদের ভাষা। এই ভাষাটিই মধ্য ফার্সি ভাষা[৯] দারি সম্পর্কে তিনি বলেছেন এই ভাষাটি মাদায়েনের শহরের ভাষা; রাজদরবারে যারা বসেন তারা এই ভাষাতেই কথা বলেন। এর নামটি দরবারে উপস্থিতির সঙ্গে সম্পর্কিত। খোরাসান এবং পূর্বের লোকেদের ভাষাগুলির মধ্যে বলখের লোকেদের ভাষাটিই প্রাধান্য পায়।[৯]

আফগানিস্তানের দারি ভাষা ইরানের দারি বা গাবরি ভাষার থেকে ভিন্ন। কিছু জরাথুস্ট্রীয় সম্প্রদায় এই মধ্য ইরানীয় ভাষাটি ব্যবহার করে থাকে।[১৯][২০]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সাধারণত সময়কাল অনুযায়ী ইরানীয় ভাষাসমূহকে তিনটি যুগে ভাগ করা যায়, প্রাচীন বা আদি যুগ, মধ্য যুগ এবং নব্য বা আধুনিক যুগ। এই তিনটি যুগ ইরানের ইতিহাসের তিনটি যুগের অনুরূপ। প্রাচীন যুগটির বিস্তার হাখমানেশি সাম্রাজ্যের সময়কাল এবং তার পরে ৩০০ খ্রিস্টপূর্ব অবধি। মধ্য যুগটি সাসানীয় এবং সাসানীয়োত্তর যুগ অবধি ছিল, এবং আধুনিক যুগটি এর পর থেকে বর্তমান কাল অবধি।[২১][২২][২৩]

মনে করা হয় দারি ভাষার জন্য দেরি শব্দটি ইউরোপে প্রথম ব্যবহার করেছিলেন প্রাচ্যবীদ থমাস হাইড, অক্সফোর্ডে, তার অন্যতম লেখা ১৭০০ সালের হিস্তোরিয়া রেলিগিওনিস ভেতেরুম পেরসারুমে[২৪]

বিভিন্ন লেখা থেকে দারি বা দেরির দুটি অর্থ পাওয়া যায়:

  • রাজসভার ভাষা
জন রিচার্ডসন লিখেছেন জেবানি দেরি (জেবান-ই-দের বা জবান-ই-দেরি) দেরিদের ভাষা, বা রাজসভার ভাষা, এবং জেবানি ফার্সি, মোটামুটিভাবে সমগ্র পারস্যের উপভাষা[২৫][২৬]
  • দারি (কখনও আরাকি পদ্ধতিসমূহ) আধুনিক ফার্সি সাহিত্যের দিকপাল আল রুদাকি থেকে রহস্যধর্মী সুফি সাহিত্যের পণ্ডিত ও লেখক মোল্লা জামি দ্বারা ব্যবহৃত একটি কাব্যরূপ।

১৫০০ খ্রিষ্টাব্দ নাগাদ হেরাতে ফার্সিভাষী তৈমুরি সাম্রাজ্যে এই ধরনের কাব্যের প্রথম দেখা মেলে, এবং কাদির বক্স বেদিলের মতো মুঘল সাম্রাজ্যের ভারতীয় ফার্সি ভাষার কবিরা, যারা ভারতীয় ছন্দোরীতি ব্যবহার করতেন তারা আরাকি পদ্ধতির সঙ্গে পরিচিত হয়েছিলেন। মুহাম্মদ ইকবাল এই দুই ধরনের সাহিত্য এবং গদ্য শৈলীকেই ভালোবাসতেন। তিনি লিখেছেন:

گرچہ هندی در عذوبت شکر است [২৭]

গরচে হেন্দি দর উজুবত শক্কর অস্ত

طرز گفتار دری شیرین تر است

তরজ-এ গোফতার-এ দরি শিরিন তর অস্ত

যদিও শ্রুতিমধুর হিন্দি চিনির মতো

দারির ছন্দ আরও মিষ্টি

নিচের কবিতাটি ১৪শ শতাব্দীর ফার্সি কবি হাফেজের কবিতার প্রতি কবি ইকবালের কাব্যিক বিবৃতি:

شکرشکن شوند همه طوطیان هند

শক্কর-শকন শভন্দ হম তুতিয়াঁঁ-এ হেন্দ

زین قند پارسی که به بنگاله می‌رود

জিন কন্দ-এ পার্সি কে বা বঙ্গালা মে-রাভাদ

ভারতের সব তোতারা চিনির নেশা করবে

বাংলায় যাওয়া এই ফার্সি মিষ্টির মাধ্যমে[২৮][২৯]

পূর্ব ইরানীয়দের মধ্য এশীয় ভাষাগুলির পরিবর্তে ফার্সির ব্যাবহার শুরু হয়।[৩০] সামানি সাম্রাজ্যের সময়কালের খোরেজমীয় এবং সোগদীয় ব্যবহারকারী ফেরগানা, সমরকন্দ, এবং বোখারা অঞ্চল ক্রমশ দারিভাষী হতে শুরু করে।[৩১] আরব এবং ইসলামি-আরব শাসনকালে আমু দরিয়া নদি অঞ্চল, আফগানিস্তানে এবং খোরাসানে দারি ফার্সি ছড়িয়ে পরে।[৩২][৩৩] ৯ম শতাব্দির খোরাসানে তাহিরি শাসনকালে ফার্সি লেখার জন্য পাহলভি লিপির পরিবর্তে আরবি লিপির ব্যবহার শুরু হয়।[৩৪] দারি ফার্সির বিস্তার হওয়ার ফলে ব্যাক্ট্রিয় এবং খোয়রেজমীয়র মতো পূর্ব ইরানীয় ভাষাগুলির অবলুপ্তি ঘটে। মধ্য এশিয়ায় আক্রমণকারী আরব-ইসলামী সেনাবাহিনীতে কিছু পারসিক ছিল যারা সাসানীয়দের মতো অঞ্চলটি পরিচালনা করেছিলেন, এবং এর ফলে মধ্য এশিয়ার ফার্সিভাষী তাজিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে স্বল্প পরিমানে সোগদীয় বংশোদ্ভূত ইয়ঘনবি ভাষাভাষী তখনও ছিলেন।[৩৫] সামানিরা মধ্য এশিয়ায় ফার্সিকে আরও গভিরভাবে প্রতিষ্ঠিত করে।[৩৬] সোগদীয় জায়গা করে দেয় ফার্সিকে।[৩৭] ইসলামের আগমনের পর সোগদীয়র পরিবর্তে ফার্সি হয়ে ওঠে সেই অঞ্চলের লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা বা সাধারণ ভাষা।[৩৮]

১৭ শতকের মধ্যবর্তী সময় অবধি ফার্সি ছিল শাসকবর্গ এবং কূটনীতির অন্যতম ভাষা। পরবর্তীকালে ইউরোপের শিল্পায়িত রাজ্যগুলির তুলনায় পারস্যের শক্তি হ্রাস পায়।

ভৌগলিক বন্টন[সম্পাদনা]

দারি আফগানিস্তানের দুইটি সরকারী ভাষার মধ্যে একটি; দ্বিতীয়টি পশতু। তবে কার্যত দারিই বিভিন্ন ভাষাগত জাতির লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা

দারি আফগানিস্তানের ২৫% মানুষের মাতৃভাষা এবং প্রায় ৮০% জনসংখ্যার প্রধান ভাষা।[২][৪][৩৯][৪০][৪১] তাজিক, যারা মোট জনসংখ্যার প্রায় ২৭%, দারি ভাষার প্রধান ব্যবহারকারী; এর পরে হাজারা (৯%) এবং আইমাক (৪%) জাতিরা আসে। উপরন্তু তাজিক এবং হাজারায় বসবাসকারী বহু পাঠান এই ভাষাকে প্রথম ভাষা হিসাবে ব্যবহার করেন। ইরান এবং পাকিস্তানের প্রায় ২৫ লক্ষ আফগান তাদের প্রধান ভাষা হিসাবে দারি ব্যবহার করেন।[৪২]

দারি আফগানিস্তানের উত্তর, পশ্চিম এবং মধ্যাঞ্চলের প্রভাবশালী ভাষা, এবং মাজার-ই-শরিফ, হেরাত, ফায়জাবাদ, পঞ্জশির, বামিয়ান এবং কাবুলের প্রচলিত ভাষা। আফগানিস্তানের দক্ষিণপশ্চিম এবং পূর্বের পাঠানজাতি-প্রভাবিত অঞ্চলে গাজনি, ফারাহ, জারাঞ্জ, লস্কর গাহ, কান্দাহার এবং গার্দেজের মত শহরে দারিভাষী সম্প্রদায় আছে।

সাংস্কৃতিক প্রভাব[সম্পাদনা]

দারি মুঘল সাম্রাজ্যের প্রশাসনিক, সরকারী, সাংস্কৃতিক ভাষা ছিল এবং বহু শতাব্দী ধরে দক্ষিণ এশীয় উপমহাদেশের লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে এসেছে। ফলে উর্দু, হিন্দি, পাঞ্জাবি, বাংলার মতো অন্যান্য এশীয় ভাষায় ফার্সি শব্দঋণের বেশিরভাগ অংশে দারির অবদান রয়েছে। আফগানিস্তান কেন্দ্রিক তুর্কীয় মধ্য এশীয় বিজয়ীরা ভাষাটিকে দক্ষিণ এশিয়ায় নিয়ে আসেন।[৪৩] উপমহাদেশে ফার্সি ভাষার প্রবর্তনের প্রক্রিয়া বিভিন্ন মধ্য এশীয় ফার্সি-তুর্কীয় এবং আফগান বংশগুলির মাধ্যমে শুরু হয়েছিল।[৪৪]

উর্দু এবং ইংরেজিতে ইঙ্গো-ভারতীয় শব্দঋণগুলির বড় আকারের ফার্সি উপাদান দারি উচ্চারণকে প্রতিফলিত করে। উদাহরণস্বরূপ দোপিয়াজা এবং পাজামা দারি উচ্চারণ থেকে এসেছে; ইরানীয় ফার্সিতে এই শব্দগুলির উচ্চারণ যথাক্রমে দোপিয়াজে এবং পেইজামেহ। উপরোক্ত ঋণ-এর মতো দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে অজানা ফার্সি আভিধানিক এবং কিছু রূপমূলীয় উপাদান প্রায়শই রাজনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক শব্দ তৈরির ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে। দারী ভাষার একটি সমৃদ্ধশালী এবং রঙিন প্রবাদের ঐতিহ্য রয়েছে যা গভীরভাবে আফগান সংস্কৃতি ও সম্পর্ককে প্রতিফলিত করে। মার্কিন নৌবাহিনীর ক্যাপ্টেন এডওয়ার্ড জেলেম তার আফগানি দারি প্রবাদের দ্বিভাষিক বইগুলিতে বহু উদাহরণ দিয়েছেন।[৪৫][৪৬]

ইরানি এবং আফগানি ফার্সির মধ্যে পার্থক্য[সম্পাদনা]

আফগানিস্তান ফার্সি ও ইরানী ফার্সি ভাষার মধ্যে ধ্বনিতাত্ত্বিক, আভিধানিক এবং রূপমূলীয় পার্থক্য রয়েছে। আঞ্চলিক বাগ্ধারাগত পার্থক্য ছাড়া লিখিত রূপের কোন উল্লেখযোগ্য পার্থক্য নেই।

ধ্বনিতাত্ত্বিক[সম্পাদনা]

তেহরানের উপভাষা ভিত্তিক প্রমিত ইরানীয় ফার্সি এবং কাবুলের উপভাষা ভিত্তিক আফগানি ফার্সির মধ্য প্রধান পার্থক্যগুলি হলো:

  1. ইরানীয় ফার্সিতে এ /eː/ এবং ই /iː/ স্বরধ্বনিগুলি ই হয়ে যায়, এবং ও /oː/ এবং উ /uː/ স্বরধ্বনিগুলি উ হয়ে যায়, কিন্তু দারিতে তা হয় না। উদাহরণস্বরূপ, 'সিংহ' এবং 'দুধ' দুটি শব্দের জন্যই ফার্সি লিপিতে লেখা হয় شیر, এবং ইরানীয় ফার্সিতে তার উচ্চারণ হলো শির /ʃiːr/, কিন্তু দারিতে সিংহ হলো শের /ʃeːr/ এবং দুধ হলো শির /ʃiːr/। زود "দ্রুত" and زور "শক্তি, বল" শব্দদুটির দীর্ঘস্বরটি ইরানীয় ফার্সিতে উ /uː/ হিসাবে উচ্চারিত হয়, কিন্তু দারিতে যথাক্রমে উ /uː/ এবং ও /oː/ হিসাবে উচ্চারিত হয়।
  2. ধ্রুপদী ফার্সির গোড়ার দিকের আও এবং আই দ্বিস্বরধ্বনিগুলি ইরানীয় ফার্সিতে যথাক্রমে অও [ow] এবং এই [ej] হিসাবে উচ্চারিত হয়। কিন্তু দারি এই দিক থেকে কিছুটা সাবেকি। نوروز 'নতুন বছর' এবং نخیر 'না' ইরানীয় ফার্সিতে উচ্চারণ করা হয় যথাক্রমে নওরোজ /nowruːz/ এবং নাখেইর /naχejr/, এবং দারিতে উচ্চারিত হয় যথাক্রমে নাওরোজ /nawroːz/ এবং নাখাইর /naχajr/ হিসাবে। এছাড়াও অও [ow] ফার্সিতে সরলীকরণ হয়ে উ /u/ এর সাথে একত্রিত হয়ে ও [o] হয়ে যায়। এই ঘটনাটি দারিতে দেখা যায় না।
  3. /i/ এবং উ /u/ সংবৃত হ্রস্বস্বরগুলির ফার্সিতে যথাক্রমে এ [e] এবং ও [o] হওয়ার প্রবণতা আছে, দারিতে দুই ধরনের পূরকধ্বনিই পাওয়া যায়।
  4. ফার্সিতে ওষ্ঠ্য ব্যঞ্জনধ্বনি, যেটি و দিয়ে লেখা হয়, ঘোষ দন্তৌষ্ঠ্য উষ্মধ্বনি [v] হিসাবে নিষ্পন্ন হয়, কিন্তু দারিতে ধ্রুপদীয় দন্তৌষ্ঠ্য [w] উচ্চারণ বজায় থাকে; দারিতে [β]-এর সাথে সাথে [v]-কে ঘোষ ধ্বনির পুর্বে /f/-এর পূরকধ্বনি হিসাবে, এবং কিছু ক্ষেত্রে /b/-এর প্রকার হিসাবে উচ্চারণ করা হয়।
  5. সম্ভবত আজেরি এবং তুর্কমেনীয় ভাষার মতো তুর্কীয় ভাষার প্রভাবে ফার্সিতে যে ঘোষ অলিজিহ্ব্য স্পর্শধ্বনি [ɢ] (ق) এবং ঘোষ পশ্চাত্তালব্য উষ্মধ্বনি [ɣ] (غ) অভিসৃত হয়,[৪৭] তা দারিতে আলাদা স্বতন্ত্র ধ্বনি হিসাবে থাকে।
  6. ফার্সিতে হ্রস্ব আ (ه-) শব্দান্তে এ [e] হিসাবে এবং অন্য স্থানে অ্যা [æ] হিসাবে নিষ্পন্ন হয়।
  7. দারিতে শব্দান্তে আ [a] এবং এ [e] পৃথক ধ্বনি হিসাবে থাকে, ফার্সিতে এ [e] অ্যা [æ]-এর শব্দান্ত পূরকধ্বনি হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

ঔপভাষিক[সম্পাদনা]

উত্তর, মধ্য ও পূর্ব আফগানিস্তানে কথিত দারি উপভাষায় ইরানী ফার্সির তুলনায় ভিন্ন বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তবে পশ্চিম আফগানিস্তানে কথিত দারির উপভাষার বৈশিষ্ট্য দারি ও ফার্সির মধ্যবর্তী। উদাহরণস্বরূপ, হেরাতি উপভাষাতে দারি ও ফার্সি উভয়েরই শব্দভাণ্ডার এবং ধ্বনিবিন্যাসের বৈশিষ্ট্য রয়েছে। অনুরূপভাবে, পূর্ব ইরানের ফার্সি ভাষার উপভাষা আফগানিস্তানের হেরাতি উপভাষার অনুরূপ।

তেহরানি উপভাষা যেমন আফগানিস্তানে ফার্সির আদর্শ নিদর্শন, তেমনই কাবুলি উপভাষা আফগানিস্তানে দারির আদর্শ নিদর্শন হয়ে উঠেছে। ১৯৪০ সাল থেকে রেডিও আফগানিস্তান কাবুলি দারিতে তাদের দারি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে এসেছে, যা কাবুলি উপভাষা এবং আফগানিস্তানের অন্যান্য কথিত ভাষার মধ্যেকার যৌগিকীকরণ নিশ্চিত করেছে। ২০০৩ সাল থেকে বিভিন্ন মাধ্যম, বিশেষ করে বেসরকারি রেডিও ও টেলিভিশন সম্প্রচারকারীরা তাদের দারি অনুষ্ঠান কাবুলি উপভাষায় পরিচালনা করছেন।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. এথ্‌নোলগে Dari, Afghan Persian (১৮তম সংস্করণ, ২০১৫)
    এথ্‌নোলগে আইমাকি (১৮তম সংস্করণ, ২০১৫)
    এথ্‌নোলগে হাজারাগি (১৮তম সংস্করণ, ২০১৫)
  2. "CIA – The World Factbook, "Afghanistan", Updated on 8 July 2010"। Cia.gov। ১৫ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১৩ 
  3. "Afghanistan v. Languages"Ch. M. KiefferEncyclopædia Iranica, online ed.। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১০Persian (2) is one of the most spoken languages in Afghanistan. The native tongue of twenty five percent of the population ... 
  4. "Dari"UCLA International Institute: Center for World LanguagesUniversity of California, Los Angeles। ৫ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১০ 
  5. "Iranica, "Afghanistan: v.Languages", Table 11"। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১৩ 
  6. হ্যামারস্ট্রোম, হারাল্ড; ফোরকেল, রবার্ট; হাস্পেলম্যাথ, মার্টিন, সম্পাদকগণ (২০১৭)। "Dari"গ্লোটোলগ ৩.০ (ইংরেজি ভাষায়)। জেনা, জার্মানি: মানব ইতিহাস বিজ্ঞানের জন্য ম্যাক্স প্লাংক ইনস্টিটিউট। 
  7. হ্যামারস্ট্রোম, হারাল্ড; ফোরকেল, রবার্ট; হাস্পেলম্যাথ, মার্টিন, সম্পাদকগণ (২০১৭)। "Aimaq"গ্লোটোলগ ৩.০ (ইংরেজি ভাষায়)। জেনা, জার্মানি: মানব ইতিহাস বিজ্ঞানের জন্য ম্যাক্স প্লাংক ইনস্টিটিউট। 
  8. হ্যামারস্ট্রোম, হারাল্ড; ফোরকেল, রবার্ট; হাস্পেলম্যাথ, মার্টিন, সম্পাদকগণ (২০১৭)। "Hazaragi"গ্লোটোলগ ৩.০ (ইংরেজি ভাষায়)। জেনা, জার্মানি: মানব ইতিহাস বিজ্ঞানের জন্য ম্যাক্স প্লাংক ইনস্টিটিউট। 
  9. Lazard, G. "Darī – The New Persian Literary Language", in Encyclopædia Iranica, Online Edition 2006.
  10. Afghanistan Digital Library
  11. "Declassified Airgram Department of State May 1964 Farsi-Dahri(sic) to be official language"। ২৮ আগস্ট ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০১৯ 
  12. "Documentation for ISO 639 identifier: prs"SIL International। ১৮ জানুয়ারি ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১৩ 
  13. Dari Or Farsi? Afghanistan's Long-Simmering Language Dispute, Radio Free Europe, November 7, 2017
  14. "The Afghans – Language Use"। United States: Center for Applied Linguistics (CAL)। ৩০ জুন ২০০২। ৪ মে ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১০ 
  15. Lazard, Gilbert 1975, “The Rise of the New Persian Language”
  16. in Frye, R. N., The Cambridge History of Iran, Vol. 4, pp. 595–632, Cambridge: Cambridge University Press.
  17. Frye, R. N., "Darī", The Encyclopaedia of Islam, Brill Publications, CD version
  18. "DARĪ – Encyclopaedia Iranica" 
  19. ""Parsi-Dari" Ethnologue"। Ethnologue.org। ১৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১৩ 
  20. ""Dari, Zoroastrian" Ethnologue"। Ethnologue.org। ১৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১৩ 
  21. "Farsi, the most widely spoken Persian Language, a Farsi Dictionary, Farsi English Dictionary, The spoken language in Iran, History of Farsi Language, Learn Farsi, Farsi Translation"। Farsinet.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১২ 
  22. "Persian alphabet, pronunciation and language"। Omniglot.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১২ 
  23. UCLA, Language Materials Projects। "Persian Language"। Iranchamber.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১২ 
  24. Thomas Hyde (১৭৬০)। Veterum Persarum et Parthorum et Medorum Religionis Historia। E Typographeo Clarendoniano। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৩ 
  25. John Richardson, London, 1777 pg. 15
  26. John Richardson (১৮১০)। Sir Charles Wilkins, David Hopkins, সম্পাদক। A vocabulary, Persian, Arabic, and English: abridged from the quarto edition of Richardson's dictionary। Printed for F. and C. Rivingson। পৃষ্ঠা 643। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১১ 
  27. "تمهید"Ganjoor (Persian ভাষায়)। Ganjoor। ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৩ 
  28. Jafri, Sardar (জানুয়ারি–ফেব্রুয়ারি ২০০০)। "Hafiz Shirazi (1312-1387-89)"। Social Scientist। Social Scientist। 28 (1/2): 12–31। doi:10.2307/3518055জেস্টোর 3518055 
  29. Abbadullah Farooqi (২০১৩)। "THE IMPACT OF KHAWAJA HAFIZ ON IQBAL'S THOUGHT"Iqbal। Government of Pakistan। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৩ 
  30. Kirill Nourzhanov; Christian Bleuer (৮ অক্টোবর ২০১৩)। Tajikistan: A Political and Social History। ANU E Press। পৃষ্ঠা 27–। আইএসবিএন 978-1-925021-16-5 
  31. Kirill Nourzhanov; Christian Bleuer (৮ অক্টোবর ২০১৩)। Tajikistan: A Political and Social History। ANU E Press। পৃষ্ঠা 30–। আইএসবিএন 978-1-925021-16-5 
  32. Ira M. Lapidus (২২ আগস্ট ২০০২)। A History of Islamic Societies। Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 127–। আইএসবিএন 978-0-521-77933-3 
  33. Ira M. Lapidus (২৯ অক্টোবর ২০১২)। Islamic Societies to the Nineteenth Century: A Global History। Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 255–। আইএসবিএন 978-0-521-51441-5 
  34. Ira M. Lapidus (২৯ অক্টোবর ২০১২)। Islamic Societies to the Nineteenth Century: A Global History। Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 256–। আইএসবিএন 978-0-521-51441-5 
  35. Paul Bergne (১৫ জুন ২০০৭)। The Birth of Tajikistan: National Identity and the Origins of the Republic। I.B.Tauris। পৃষ্ঠা 5–। আইএসবিএন 978-1-84511-283-7 
  36. Paul Bergne (১৫ জুন ২০০৭)। The Birth of Tajikistan: National Identity and the Origins of the Republic। I.B.Tauris। পৃষ্ঠা 6–। আইএসবিএন 978-1-84511-283-7 
  37. Josef W. Meri; Jere L. Bacharach (২০০৬)। Medieval Islamic Civilization: L-Z, index। Taylor & Francis। পৃষ্ঠা 829–। আইএসবিএন 978-0-415-96692-4 
  38. Sigfried J. de Laet; Joachim Herrmann (১ জানুয়ারি ১৯৯৬)। History of Humanity: From the seventh century B.C. to the seventh century A.D.। UNESCO। পৃষ্ঠা 468–। আইএসবিএন 978-92-3-102812-0 
  39. "AFGHANISTAN v. Languages"Ch. M. KiefferEncyclopædia Iranica, online ed.। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১০Persian (2) is the language most spoken in Afghanistan. The native tongue of twenty five percent of the population ... 
  40. "Languages of Afghanistan"SIL InternationalEthnologue: Languages of the World। ২০০৫। ৩০ জানুয়ারি ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  41. "Dari language"Encyclopædia Britannica Online। সংগ্রহের তারিখ ৭ ডিসেম্বর ২০১০ 
  42. "Dari language, alphabet and pronunciation"। Omniglot.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১২ 
  43. Bennett, Clinton; Ramsey, Charles M. (২০১২-০৩-০১)। South Asian Sufis: Devotion, Deviation, and Destinyআইএসবিএন 9781441151278। সংগ্রহের তারিখ ২৩ এপ্রিল ২০১৫ 
  44. Sigfried J. de Laet. History of Humanity: From the seventh to the sixteenth century UNESCO, 1994. আইএসবিএন ৯২৩১০২৮১৩৮ p 734
  45. Zellem, Edward. (২০১২)। "Zarbul Masalha: 151 Afghan Dari Proverbs"। Charleston: CreateSpace। 
  46. Zellem, Edward. (২০১২)। "Afghan Proverbs Illustrated"। Charleston: CreateSpace। 
  47. A. Pisowicz, Origins of the New and Middle Persian phonological systems (Cracow 1985), p. 112-114, 117.

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]