ইউতো নাগাতোমো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইউতো নাগাতোমো
Yuto Nagatomo 2011.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (১৯৮৬-০৯-১২) ১২ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ৩২)
জন্ম স্থান এহিমে , জাপান
উচ্চতা ১৭০ সেমি (৫ ফু ৭ ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান ডিফেন্ডার
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব ইন্টার মিলান
জার্সি নম্বর ৫৫
জাতীয় দল
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
২০০৮- জাপান
† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

ইউতো নাগাতোমো (জাপানি 長友 佑都) (জন্ম ১২ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬) একজন জাপানিজ ফুটবলার, যিনি ইতালীয় ক্লাব ইন্তারনাজিওনালে মিলানোর হয়ে খেলে। যা ইন্টার মিলান নামে পরিচিত।

ক্লাব জীবন[সম্পাদনা]

এফসি টোকিও[সম্পাদনা]

নাগাতোমো ২০০৮ সালে এফসি টোকিওতে যোগ দেয়। ৪ টি মৌসুম তিনি এফসি টোকিওর হয়ে খেলেছেন।

চেসেনা (লোন)[সম্পাদনা]

২০১০ সালের জুলাইয়ে নাগাতোমো ইতালীয় ক্লাব চেসেনাতে লোনে যোগ দেয় । ১ম ছয় মাস তিনি লেফট ব্যাক পজিশনে খেলেন। এরপর নাগামোতো আরেক ইতালীয় ক্লাব ইন্টার মিলানের সাথে চুক্তি করেন।

ইন্টার মিলান[সম্পাদনা]

ইতালীয় লিগে চেসেনা এবং ২০১১ এশিয়ান কাপে জাপানের হয়ে ভালো খেলার সুবাদে ইতালির শক্তিশালী ক্লাব ইন্টার মিলান ২০১১ সালের জানুয়ারিতে তাকে দলে ভেড়ায়। ১ম পুর্ব এশিয়ার খেলোয়াড় হিসেবে তিনি ইন্টার মিলানে খেলার সুযোগ পান।

৬ ফেব্রুয়ারি ২০১১ সালে নাগাতোমো ইন্টারের হয়ে ১ম ম্যাচ খেলেন। ঐ ম্যাচে তিনি ডাচ ফুটবলার ওয়েসলি স্নাইডারের বদলে খেলতে নামেন। সেই ম্যাচে রোমার বিপক্ষে ৫-৩ গোলের বিশাল জয় পায় ইন্টার মিলান। পরের ম্যাচে জুভেন্টাসের বিপক্ষে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে নামেন। ২০১১ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সাম্পোদিয়ার বিপক্ষে রাইট ব্যাক হিসেবে পুরো ৯০ মিনিট খেলেন। ২০১১ সালের ৬ মার্চ নাগাতোমো ইন্টারের হয়ে ১ম গোল দেন। ঐ ম্যাচে ইন্টার মিলান জেনোয়াকে ৫-২ গোলে হারায়।

জাপানে হয়ে যাওয়া ভয়াবহ সুনামি ও ভুমিকম্পের ঘটনায় ১৫ মার্চ চ্যাম্পিয়েন্স লিগে বায়ার্নের বিপক্ষের ম্যাচে তিনি জাপানের পতাকা নিয়ে মাঠে প্যারেড করেন।

২০১১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর চ্যাম্পিয়েন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ২য় ম্যাচে নাগাতোমোর একটি এসিস্টের সহায়তায় এওয়ে ম্যাচে সিএসকে মস্কোকে ৩-২ গোলে হারায় ইন্টার মিলান।

২০১৩-১৪ মৌসুমে নাগাতোমো ইন্টার মিলানের হয়ে নিজের সেরা ফর্মে ছিলেন। ঐ মৌসুমে তিনি ৫ টি গোল এবং ৬ টি এসিস্ট করেন।

২০১৬ সালের ৮ এপ্রিলে ইন্টার মিলানের সাথে চুক্তির মেয়াদ ২০১৯ সালের জুন পর্যন্ত বাড়ায়।

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

নাগাতোমো ২৪ মার্চ ২০০৮ সালে জাপানের হয়ে ১ম খেলার সুযোগ পায়। ১৩ নভেম্বর ২০০৮ সালে সিরিয়ার বিপক্ষে ১ম আন্তর্জাতিক গোল দেন। ২০০৮ সালে বেইজিং অলিম্পিক গেমসে জাপান ফুটবল দলের প্রতিনিধিত্ব করেন।

২০১০ ফিফা বিশ্বকাপে জাপানের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন। নাগাতোমো ২০১১ সালে এএফসি এশিয়ান কাপের জন্য জাপান জাতীয় দলে ডাক পায়। ঐ টুর্নামেন্টে তিনি জাপানের হয়ে প্রতিটি ম্যাচ খেলেন। ২০১৩ ফিফা কনফেডারেশন কাপে জাপানের হয়ে সব ম্যাচ খেলেন। জাপান ঐ আসরে গ্রুপ পর্বের ৩ টি ম্যাচ খেলার পর বাদ পরে যায়।

২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপে জাপানের খেলা ৩ টি ম্যাচে প্রতিটিতেই তিনি অংশ নেন। তবে জাপান গ্রুপ পর্বের বাধা টপকাতে পারেনি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

১. "Davide Santon è del Cesena, Nagatomo all'Inter" [Davide Santon to Cesena, Nagatomo to Inter]AC Cesena (in Italian). 31 January 2011. Retrieved 31 January 2011.

২.  "Zárate winner gets Inter going at CSKA". UEFA.com. 27 September 2011. Retrieved 3 September 2016.

৩.  Yuto Nagatomo > Club matches worldfootball.net

৪.  Japan – Yuto Nagatomo – Profile with news, career statistics and history – Soccerway

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]