জৈমিনি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

হিন্দু দর্শন

Aum
শাখা

ভক্তি · যোগ · ন্যায় · বৈশেষিক · পূর্ব মীমাংসা · বেদান্ত (অদ্বৈত · বিশিষ্টাদ্বৈত · দ্বৈত · অচিন্ত্য ভেদ অভেদ)

ব্যক্তি

প্রাচীন

গৌতম · জৈমিনী · কণাদ · কপিল · মার্কণ্ডেয় · পতঞ্জলি · বাল্মীকি · ব্যাসদেব

মধ্যযুগীয়
আদি শঙ্কর · বাসব · ধ্যানেশ্বর · চৈতন্য মহাপ্রভু · জয়ন্ত ভট্ট · কবীর · কুমারিল ভট্ট · মধুসূদন · মাধব · নামদেব · নিম্বার্ক · প্রভাকর · রঘুনাথ শিরোমণি · রামানুজ · বেদান্ত দেসিকা · সমর্থ রামদাস · তুকারাম · তুলসীদাস · বাচস্পতি মিশ্র · বল্লভাচার্য

আধুনিক
অরবিন্দ · কুমারস্বামী · চিন্ময়ানন্দ · দয়ানন্দ সরস্বতী · গান্ধী · কৃষ্ণানন্দ · নারায়ণ গুরু · প্রভুপাদ · রামকৃষ্ণ · রমনা মহর্ষি · রাধাকৃষ্ণন · শিবানন্দ · বিবেকানন্দ · যোগানন্দ

জৈমিনি বা জৈমিনী[১] ছিলেন একজন প্রাচীন ভারতীয় ঋষি। তিনি ঋষি শ্রীকৃষ্ণদ্বৈপায়ন বেদব্যাসের শিষ্য এবং ভারতীয় দর্শনের মীমাংসা শাখার এক মহান দার্শনিক।

রচনাবলী[সম্পাদনা]

পূর্ব মীমাংসা সূত্র[সম্পাদনা]

জৈমিনির খ্যাতি প্রধানত তাঁর পূর্ব মীমাংসা সূত্র গ্রন্থটির জন্য। এই গ্রন্থের অপর নাম কর্ম মীমাংসা। এই গ্রন্থে বৈদিক অনুশাসনগুলির প্রকৃতি আলোচনা করা হয়েছে। প্রাচীন ভারতীয় দর্শনের ষড় দর্শন বিভাগের পূর্ব মীমাংসা শাখাটির উদ্ভব এই গ্রন্থ থেকেই।

গ্রন্থটির রচনাকাল খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় শতাব্দী। এতে প্রায় ৩,০০০ সূত্র রয়েছে। এই বইতে কর্ম বা অনুষ্ঠান ও ধর্ম বা ধর্মীয় কর্তব্যের উপর ভিত্তি করে বেদ ব্যাখ্যা করা হয়েছে। সঙ্গে প্রাচীন উপনিষদ্‌গুলির টীকাও রয়েছে। জৈমিনীর মীমাংসা তাঁর সময়ে প্রচলিত অতীন্দ্রীয়বাদী বেদান্ত ধারার বিপরীতমুখী একটি অনুষ্ঠান-কেন্দ্রিক ভাবান্দোলন। খ্রিস্টীয় প্রথম সহস্রাব্দের কোনো এক সময়ে শবর পূর্ব মীমাংসার উপর একটি টীকাগ্রন্থ রচনা করেন।[২]

জৈমিনি-ভারত[সম্পাদনা]

জৈমিনি হিন্দু মহাকাব্য মহাভারত অবলম্বনে জৈমিনি-ভারত নামে একটি মহাকাব্য রচনা করেন। এই কাব্যের "অশ্বমেধ পর্ব"টি বিখ্যাত।[৩]

জৈমিনি সূত্র[সম্পাদনা]

জৈমিনি সূত্র বা উপদেশ সূত্র "জৈমিনি জ্যোতিষ"-এর উৎস। এ বইটি আসলে বৃহৎ পরাশর হোর শাস্ত্র-এর টীকা।[৪]

অন্যান্য উল্লেখ[সম্পাদনা]

সামবেদ[সম্পাদনা]

ঋষি শ্রীকৃষ্ণদ্বৈপায়ন বেদব্যাস বেদকে চার ভাগে ভাগ করে তাঁর চার শিষ্যের (পৈল, বৈশম্পায়ন, জৈমিনি ও সুমন্তু) এক এক জনকে এক একটি ভাগ শিক্ষা দেন। জৈমিনি সামবেদ শিক্ষা করেছিলেন।[৫]

মার্কণ্ডেয় পুরাণ[সম্পাদনা]

মহাপুরাণ মার্কণ্ডেয় পুরাণ ঋষি জৈমিনি ও মার্কণ্ডেয়ের মধ্যে কথোপকথনের আকারে লিখিত।[৬]

অন্যান্য[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. জৈমিনি ও জৈমিনী - দুটি বানানই ঠিক। জীবনীকোষ প্রথম খণ্ড, শশিভূষণ বিদ্যালঙ্কার, সদেশ, কলকাতা, ১৪১৩ সংস্করণ, পৃ. ৪৯৩ দ্রষ্টব্য
  2. Purva Mimamsa Sutras of Jaimini
  3. Mahabharata
  4. Jamini Sutras at astrojyoti
  5. জীবনীকোষ প্রথম খণ্ড, শশিভূষণ বিদ্যালঙ্কার, সদেশ, কলকাতা, ১৪১৩ সংস্করণ, পৃ. ৪৯৩ দ্রষ্টব্য
  6. Jaimini and Markandeya at Urday

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Hindu-bio-stub