শুদ্ধাদ্বৈত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

হিন্দু দর্শন

Aum
শাখা

ভক্তি · যোগ · ন্যায় · বৈশেষিক · পূর্ব মীমাংসা · বেদান্ত (অদ্বৈত · বিশিষ্টাদ্বৈত · দ্বৈত · অচিন্ত্য ভেদ অভেদ)

ব্যক্তি

প্রাচীন

গৌতম · জৈমিনী · কণাদ · কপিল · মার্কণ্ডেয় · পতঞ্জলি · বাল্মীকি · ব্যাসদেব

মধ্যযুগীয়
আদি শঙ্কর · বাসব · ধ্যানেশ্বর · চৈতন্য মহাপ্রভু · জয়ন্ত ভট্ট · কবীর · কুমারিল ভট্ট · মধুসূদন · মাধব · নামদেব · নিম্বার্ক · প্রভাকর · রঘুনাথ শিরোমণি · রামানুজ · বেদান্ত দেসিকা · সমর্থ রামদাস · তুকারাম · তুলসীদাস · বাচস্পতি মিশ্র · বল্লভাচার্য

আধুনিক
অরবিন্দ · কুমারস্বামী · চিন্ময়ানন্দ · দয়ানন্দ সরস্বতী · গান্ধী · কৃষ্ণানন্দ · নারায়ণ গুরু · প্রভুপাদ · রামকৃষ্ণ · রমনা মহর্ষি · রাধাকৃষ্ণন · শিবানন্দ · বিবেকানন্দ · যোগানন্দ

শুদ্ধাদ্বৈত বেদান্ত হিন্দু দর্শনের বেদান্ত শাখার একটি অপ্রধান উপশাখা। বল্লভ সম্প্রদায় বা পুষ্টিমার্গের প্রতিষ্ঠাতা বল্লভাচার্য (১৪৭৯-১৫৩১ খ্রিস্টাব্দ) এই মতবাদের প্রধান প্রবক্তা। এটি একটি বৈষ্ণবীয় মত। এই মতাবলম্বী বল্লভ সম্প্রদায় কৃষ্ণের পূজা করে থাকে। বল্লভাচার্যের শুদ্ধ অদ্বৈতবাদ অদ্বৈত বেদান্ত মতের থেকে আলাদা।

বল্লভ সম্প্রদায়ের মতে, বল্লভাচার্য স্বয়ং কৃষ্ণের কাছ থেকে "শ্রীকৃষ্ণ শরণম্‌ মম" মন্ত্রটি পেয়েছিলেন। এই মন্ত্রটিকে "ব্রহ্মসম্বন্ধ মন্ত্র" বলা হয়। আবার কৃষ্ণের মুখনিঃসৃত বলে এটিকে "মুখাবতার" নামেও অভিহিত করা হয়। বল্লভ সম্প্রদায় বিশ্বাস করে যে, এই মন্ত্র জপ করলে আত্মা সকল দোষ ও পাপ থেকে মুক্ত হতে পারবে।[১][২]

নাথদ্বারের শ্রীনাথজি মন্দির ও সুরদাস-সহ অষ্টকবির (যাঁরা অষ্টচাপ নামে পরিচিত) রচনা বল্লভ সম্প্রদায়ের উপাসনার কেন্দ্রবিন্দু।[৩]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Beck 1993, pp. 194–195
  2. Colas, Gerard, "History of Vaiṣṇava traditions" in Flood 2003, pp. 229–270
  3. Martin, Nancy M., "North Indian Hindi devotional literature" in Flood 2003, pp. 182–198

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]