হাম্বানটোটা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
হাম্বানটোটা
হাম্বানটোটার প্রসাশনিক ভবন
হাম্বানটোটার প্রসাশনিক ভবন
হাম্বানটোটা শ্রীলঙ্কা-এ অবস্থিত
হাম্বানটোটা
হাম্বানটোটা
শ্রীলঙ্কায় হাম্বানটোটার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৬°০৭′ উত্তর ৮১°০৭′ পূর্ব / ০৬.১১° উত্তর ৮১.১২° পূর্ব / 06.11; 81.12
দেশ শ্রীলঙ্কা
রাজ্য বা প্রদেশ দক্ষিণ প্রদেশ
জেলা হাম্বানটোটা জেলা
উচ্চতা ১ মিটার (৩ ফুট)
জনসংখ্যা (২০০১) ১১,২১৩

হাম্বানটোটা[১] হল শ্রীলঙ্কার একটি গুরুত্ব পূর্ন শহর।এই শহরটি দেশের দক্ষিণে ভারত মহাসাগর এর তীরে দক্ষিণ প্রদেশ এর হাম্বানটোটা জেলায় অবস্থিত।এই শহরটি হাম্বানটোটা জেলার প্রধান শহর ও প্রশাসনিক সদর দপ্তর।বর্তমানে শহরটিকে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরাঞ্চল (প্রথম কলম্বো ) নির্মাণের চেষ্টা চলছে।শহরটি বর্তমানে মাগামপুরা মহিন্দ্রা রাজাপাকশে বন্দর বা হাম্বানটোটা বন্দর কে কেন্দ্র করে দ্রুত বিকাশিত হচ্ছে।এই শহরটি শ্রীলঙ্কার দক্ষিণ অংশের অর্থনীতির কেন্দ্র ভূমি।হাম্বানটোটা বন্দরকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন বন্দর এই শহরে ও শহরের উপকন্ঠে গড়ে উঠেছে।এছাড়া কিছু শিল্প কলকারখানা নির্মাণের কথা চলছে।এই সমস্ত শিল্প গুলি এখান কার কর্মসংস্থানের যোগান দিচ্ছে।শহরটি দ্রুত শ্রীলঙ্কার একটি গুরুত্ব পূর্ন শিল্প কেন্দ্রে পরিনত হচ্ছে।

অবস্থাত[সম্পাদনা]

হাম্বাটোটা শহরটি দেশের দক্ষিণ প্রান্তে সমুদ্র তীরে অবস্থিত।এটি ০৬.০৭ উত্তর ও ৮১.১২ পূর্বে অবস্থিত।সমুদ্র সমতল থেকে শহরটি মোট ১ থেকে ২ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত।হাম্বানটোটা শহর থেকে সড়ক পথে কলম্বো শহরটি ২৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

হাম্বানটোটা শহরটি একট সময় রুহুনা সাম্রাজ্য এর অধিনে ছিল।এই সাম্রাজ্যে হাম্বানটোটা একটি গুরুত্ব পূর্ন শহর ছিল।সেই সময় এই শহরে চিন, ইন্দোনেশিয়া, ভারত ,আরব প্রভূতি দেশের বনিকরা আসতো।তাদের সঙ্গে বাণিজ্য চলত এই শহরের বানিক দের সঙ্গে।১৮০১ থেকে ১৮০৩ সালের মধ্যে ইংরেজরা এই শহরে আসে।এর পর ধীরে ধীরে এই এলাকা তথা হাম্বানটোটায় চালু হয় ব্রিটিশ সাশন ও আইন।ব্রিটিশ সময়ে হাম্বানটোটা বন্দরটি ধীরে ধীরে নতুন ভাবে গড়ে ওঠে।এই সময় বন্দর থেকে জাহাজ যেত লন্ডন

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

হাম্বানটোটা জেলার বৃহত্তম শহর হল হাম্বানটোটা ।ওই শহরের জনসংখ্যা হল ২০০১ সালের জনসংখ্যা গননা অনুযায়ী ১১,২৩১ জন।বর্তমানে শহরটির জনসংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

জলবায়ু ও আবহাওয়া[সম্পাদনা]

হাম্বানটোটা শহরটি বিষুব রেখা থেকে ৬.০৭ ডিগ্রী উত্তরে অবস্থিত।ফলে এটি কার্ন্তীয় জলবায়ু এলাকার অন্তর্গত।এই এলাকার গড় তাপ মাত্রা বছরের বিভিন্ন সয়ে বিভিন্ন হয়।গ্রীষ্মের সময় হাম্বানটোটার গড় তাপমাতরা থাকে ২৬.৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং শীতের সময় এই শহরের গড় তাপ মাত্রা থাকে ১৬ থেকে ১৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

খেলাধুলা[সম্পাদনা]

হাম্বানটোটায় একটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম রয়েছে।এই স্টেডিয়ামে দর্শক ধারন ক্ষমতা ৩৫ হাজার জন।এই স্টেডিয়াম ২০১১ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছিল।হাম্বানটোটা ২০১৮ সালের কমোনওয়েল গেম এর নিলামে অংশ নিয়ে ছিল হাম্বানটোটায় কমোনওয়েল গেম উনুষ্ঠিত করার জন্য কিন্তু এইটি জিতে নেয় অস্টেলিয়ার একটি শহর।

বন্দর[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Hambantota"। সংগৃহীত ১৬-১১-২০১৬