শাহ মোহাম্মদ ফারুক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শাহ মোহাম্মাদ ফারুক
Shah Faruque-1.jpg
জন্ম১৯৫৬
পেশাবিজ্ঞানী
জাতীয়তাবাংলাদেশী
নাগরিকত্ববাংলাদেশ Flag of Bangladesh.svg
উল্লেখযোগ্য পুরস্কারথার্ড ওয়ার্ল্ড অ্যাকাডেমী অব সায়েন্সেস পুরস্কার

ড: শাহ মোহাম্মাদ ফারুক একজন বাংলাদেশী বিজ্ঞানী এবং অধ্যাপক। তিনি কলেরার জীবাণু ভিব্রিও কলেরীর একজন অগ্রগণ্য গবেষক। তিনি খাদ্যবাহিত ও পানিবাহিত রোগসৃষ্টিকারী ব্যাক্টেরিয়া নিয়ে গবেষণা করেন। বর্তমানে তিনি Independent University, Bangladesh (IUB) এর School of Environment and Life Sciences এর ডীন। তিনি The World Academy of Sciences (TWAS) এবং বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমি এর একজন ফেলো।[১]

শৈশব[সম্পাদনা]

শাহ মোহাম্মদ ফারুক ১৯৫৬ সালে যশোর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন।

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

তিনি যশোর জিলা স্কুল ও ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজে পড়াশোনা করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৯৭৮ সালে বিএসসি ও ১৯৭৯ সালে এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৮৮ সালে যুক্তরাজ্যের রিডিং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন।[২]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তিনি ২০০৫ সালে মেডিকেল সায়েন্সে ওয়ার্ল্ড অ্যাকাডেমী অব সায়েন্সেস প্রাইজ ২০০৫ লাভ করেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১২ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১২ 
  2. http://www.supportforlife.org/images/stories/MediaCentre/AssociateFiles/shah-faruque-cv-and-biography.pdf[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি" (PDF)। ২৮ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১২ 

বহিসংযোগ[সম্পাদনা]