সুলতানা নুরুন নাহার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুলতানা নুরুন নাহার
Sultana Germany Talk.JPG
জার্মানীতে সুলতানা নুরুন নাহার
জন্মবাংলাদেশ
কর্মক্ষেত্রপদার্থবিদ্যা
জ্যোতির্বিদ্যা
প্রতিষ্ঠানওহাইও স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়
প্রাক্তন ছাত্রঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ওয়েন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়

সুলতানা নুরুন নাহার বাংলাদেশী-মার্কিন পারমাণবিক জ্যোতিঃপদার্থবিজ্ঞানী। তিনি সক্রিয় ছায়াপথ কেন্দ্রীন থেকে আসা লৌহ রেখার মডেল প্রণয়নের জন্য বিখ্যাত।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] বর্তমানে কর্মরত আছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওহায়ো স্টেট ইউনিভার্সিটির পরমাণবিক জ্যোতিঃপদার্থবিজ্ঞান গবেষণা বিভাগে। তার জন্ম বাংলাদেশের ঢাকায়। বর্তমানে (২০১১) তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ওহায়ো প্রদেশের কলাম্বাস শহরে বাস করেন।

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

সুলতানা নুরুন নাহার মনিজা রহমান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে লেটার মার্কসহ প্রথম শ্রেণীতে এসএসসি পাশ করেন। তিনি সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজ থেকে প্রথম শ্রেণীতে এইচএসসি পাশ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৯৭৭ সালে বিএসসি (সম্মান) ডিগ্রি অর্জন করেন।[১]। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অসাধারণ ফলাফলের জন্য কালীদাস বৃত্তি লাভ করেন। [২] উল্লেখ্য, সুলতানা নাহার প্রথম ছাত্রী যিনি পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে প্রথম শ্রেণীতে প্রথম স্থান অর্জন করেন।[৩] ১৯৭৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ থেকে এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন।[৪] ১৯৮২ সালে মিশিগানের ওয়েন স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে কোয়ান্টাম অপ্টিক্সে মাস্টার্স করেন। ১৯৮৭ সালে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেন।[১]

গবেষণা[সম্পাদনা]

নাহার, ইলেকট্রন-আয়ন পুনঃসমন্বয়[৫], ছবি-এক্সট্রিটেশন ও ডি-এক্সটেশন এবং ইলেকট্রন-আয়ন বিচ্ছুরিত-সহ অ্যাস্ট্রোফিজিক্যাল ও ল্যাবরেটরি প্লামাস-এ রেডিওটিভ এবং কলিসিনাল অ্যাটমিক প্রসেসের উপর ব্যাপকভাবে প্রকাশিত হয়েছে । বায়োমেডিক্যাল অ্যাপ্লিকেশনের জন্য তিনি ডিইলেকট্রনিক স্যাটেলাইট লাইন, তাত্ত্বিক স্পেকট্রোস্কোপি এবং গ্র্যাভিটেশনাল ন্যানোস্পেকট্রোস্কোপি-তেও কাজ করেছেন।[৬] তিনি আন্তর্জাতিক   Opacity Project" এবং "Iron Project," সহযোগিতার সদস্য।[৭]

বই[সম্পাদনা]

সুলতানা নাহার ২০১১ সালে ক্যাম্ব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস থেকে Atomic Astrophysics and Spectroscopy নামে একটি বই প্রকাশ করেন।[৮]

সদস্য[সম্পাদনা]

  • আমেরিকান ফিজিক্যাল সোসাইটি[৯][১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.astronomy.ohio-state.edu/~nahar/resm.html
  2. http://www.astronomy.ohio-state.edu/~nahar/awards.html
  3. http://www.astronomy.ohio-state.edu/~nahar/awards/snn-bsch1st-duawd.pdf
  4. http://www.astronomy.ohio-state.edu/~nahar/awards/snn-msc-pos.pdf
  5. Nahar, Sultana N.; Pradhan, Anil K. (১৯৯৭)। "Electron-Ion Recombination Rate Coefficients, Photoionization Cross Sections, and Ionization Fractions for Astrophysically Abundant Elements. I. Carbon and Nitrogen"The Astrophysical Journal Supplement Series (ইংরেজি ভাষায়)। 111 (1): 339। আইএসএসএন 0067-0049ডিওআই:10.1086/313013 
  6. "Could Black Holes Help Treat Cancer Patients?"Space.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৩-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১২ 
  7. "Atomic Data from the Iron Project"adsabs.harvard.edu। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১২ 
  8. "786"www.astronomy.ohio-state.edu। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১২ 
  9. http://www.astronomy.ohio-state.edu/~nahar/awards/snn-apsfellowcert.pdf
  10. http://www.astronomy.ohio-state.edu/~nahar/awards/snn-apsfellowletts.pdf

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]