লেগোস

স্থানাঙ্ক: ৬°২৭′১৮″ উত্তর ৩°২৩′০৩″ পূর্ব / ৬.৪৫৫০২৭° উত্তর ৩.৩৮৪০৮২° পূর্ব / 6.455027; 3.384082
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(লাগোস থেকে পুনর্নির্দেশিত)
লেগোস
Èkó
মহানগর
লেগোস মহানগর অঞ্চল (Ìlú Èkó  (Yoruba))
শীর্ষ থেকে, বাম থেকে ডানে: ভিক্টোরিয়া দ্বীপের দিগন্তের দৃশ্য, টিনুবু স্কয়ার, অ্যারয়ের আকাশচুম্বী ভবনসমূহ, লেক্কি-এপ এক্সপ্রেসওয়ে, জাতীয় আর্টস থিয়েটার, তৃতীয় মেনল্যান্ড সেতু
লেগোসের পতাকা
পতাকা
ডাকনাম: Eko akete, Lasgidi[১][২]
নীতিবাক্য: Èkó ò ní bàjé o!
লেগোস রাজ্যের মধ্যে প্রদর্শিত লেগোস শহর
লেগোস রাজ্যের মধ্যে প্রদর্শিত লেগোস শহর
লুয়া ত্রুটি মডিউল:অবস্থান_মানচিত্ এর 480 নং লাইনে: নির্দিষ্ট অবস্থান মানচিত্রের সংজ্ঞা খুঁজে পাওয়া যায়নি। "মডিউল:অবস্থান মানচিত্র/উপাত্ত/নাইজেরিয়া লেগোস" বা "টেমপ্লেট:অবস্থান মানচিত্র নাইজেরিয়া লেগোস" দুটির একটিও বিদ্যমান নয়।নাইজেরিয়ায় লেগোসের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৬°২৭′১৮″ উত্তর ৩°২৩′০৩″ পূর্ব / ৬.৪৫৫০২৭° উত্তর ৩.৩৮৪০৮২° পূর্ব / 6.455027; 3.384082
রাষ্ট্র নাইজেরিয়া
রাজ্যলেগোস
এলজিএ(সমূহ)[note ১]
বসতি স্থাপন১৫তম শতক
প্রতিষ্ঠা করেনইওরুবার আওয়ারি উপগোষ্ঠী [৫]
সরকার
 • গভর্নর(APC)
 • ওবারিলওয়ান আকিওলু প্রথম
আয়তন[৩]
 • মহানগর১,১৭১.২৮ বর্গকিমি (৪৫২.২৩ বর্গমাইল)
 • স্থলভাগ৯৯৯.৬ বর্গকিমি (৩৮৫.৯ বর্গমাইল)
 • জলভাগ১৭১.৬৮ বর্গকিমি (৬৬.২৯ বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৯০৭ বর্গকিমি (৩৫০ বর্গমাইল)
 • মহানগর২,৭০৬.৭ বর্গকিমি (১,০৪৫.১ বর্গমাইল)
উচ্চতা৪১ মিটার (১৩৫ ফুট)
জনসংখ্যা (২০০৬)[note ২]
 • মহানগর৮০,৪৮,৪৩০
 • আনুমানিক (২০১৮ (এলএএসজি অনুযায়ী)[৯])২,৩৪,৩৭,৪৩৫
 • ক্রমপ্রথম
 • জনঘনত্ব৬,৮৭১/বর্গকিমি (১৭,৮০০/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা১,৪৮,৬২,০০০[৭]
 • পৌর এলাকার জনঘনত্ব১৪,৪৬৯/বর্গকিমি (৩৭,৪৭০/বর্গমাইল)
 • মহানগর২,১৩,২০,০০০ (আনুমানিক)[৬]
 • মহানগর জনঘনত্ব৭,৭৫৯/বর্গকিমি (২০,১০০/বর্গমাইল)
বিশেষণলেগোসিয়ান
এলাকা কোড০১০[১০]
জলবায়ুক্রান্তীয় সাভনা জলবায়ু
  1. Only Ikoyi-Obalande and Iru-Victoria Island LCDAs

লেগোস নাইজেরিয়ার সর্বাধিক জনবহুল শহর ও আফ্রিকার বৃহত্তম শহর। মূল শহরটিতে ২০২১ সালের হিসাবে ১,৪৮,৬২,০০০ জন জনসংখ্যার সাথে লেগোস মহানগরীর মোট জনসংখ্যা ২১.৩ মিলিয়ন। এটি কায়রোর পরে আফ্রিকার দ্বিতীয় বৃহত্তম মহানগর অঞ্চল।[১১][১২] লেগোস সমগ্র আফ্রিকার জন্য একটি প্রধান আর্থিক কেন্দ্র এবং এটি লেগোস রাজ্যের অর্থনৈতিক কেন্দ্র। অতিমহানগরীটিতে (মেগাসিটি) আফ্রিকার চতুর্থ সর্বোচ্চ জিডিপি[৪][১৩] এবং এই মহাদেশের বৃহত্তম ও ব্যস্ততম সমুদ্রবন্দর রয়েছে।[১৪][১৫][১৬] এটি বিশ্বের দ্রুত বর্ধমান শহরগুলির মধ্যে একটি।[২৪]

লেগোস প্রথমদিকে পশ্চিম আফ্রিকার ইওরুবার আওরি উপজাতির আবাসস্থল হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে এবং পরবর্তীতে দ্বীপসমূহের সমন্বয়ের ভিত্তিতে একটি বন্দর নগরী হিসাবে আবির্ভূত হয়, যা বর্তমানের লেগোস দ্বীপ, এতি-ওসা, আমুও-ওডোফিন ও আপাপায়ের স্থানীয় সরকার অঞ্চলসমূহ (এলজিএ) মধ্যে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। লেগোস লেগুনের মোহনার দক্ষিণ পশ্চিমে আটলান্টিক মহাসাগর থেকে বাধা দ্বীপ ও পূর্ব-পশ্চিমে ১০০ কিলোমিটার (৬২মাইল) পর্যন্ত প্রসারিত বার সৈকতের মতো লম্বা বালির চর দ্বারা সুরক্ষিত দ্বীপসমূহ খাঁড়ি দ্বারা পৃথক। দ্রুত নগরায়ণের কারণে, এই শহরটি লেগুনের পশ্চিমে প্রসারিত হয়ে বর্তমান লেগোস মূলভূখণ্ড, অজেরোমি-ইফেলোডুনসুরুলেরকে অন্তর্ভুক্ত করেছে। এর ফলে লেগোসকে দুটি প্রধান অঞ্চলে শ্রেণিবিন্যাস করা হয়: দ্বীপ, যা মূল ভূখণ্ড হিসাবে পরিচিত অঞ্চলে প্রসারিত হওয়ার আগে লগোসের প্রাথমিক শহর ছিল।[২৫] এই শহর অঞ্চলটি ১৯৬৭ সালে লেগোস রাজ্য গঠনের আগ পর্যন্ত সরাসরি যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকার কর্তৃক পরিচালিত হত, যার ফলে লেগোস শহরকে বর্তমান সাতটি স্থানীয় অঞ্চলে (এলজিএ) বিভক্ত করা হয়েছিল এবং তৎকালীন পশ্চিমাঞ্চলীয় অঞ্চল থেকে অন্যান্য শহর যুক্ত (যা বর্তমানে ১৩ টি এলজিএ গঠন করে) হয় এবং এই রাজ্যটি তৈরি হয়।[২৬]

১৯১৪ সালে একত্রীকরণ করার পর থেকে লোগোস শহরটি নাইজেরিয়ার রাজধানী, লেগোস রাজ্য গঠিত হওয়ার পরে শহরটি রাজ্যেরও রাজধানী হয়ে ওঠে। তবে, পরে রাজ্য রাজধানীটি ১৯৯৭ সালে ইকেজায় স্থানান্তরিত হয় এবং যুক্তরাষ্ট্রীয় রাজধানী ১৯৯১ সালে আবুজাতে স্থানান্তরিত হয়। যদিও লেগোসকে এখনও বিস্তৃতভাবে একটি শহর হিসাবে চিহ্নিত করা হয়, বর্তমানের লেগোস, "মেট্রোপলিটন লেগোস" নামে পরিচিত এবং সরকারিভাবে "লেগোস মেট্রোপলিটন অঞ্চল" নামে পরিচিত[২৭][২৮][২৯] একটি নগর সমষ্টি বা পৌরপুঞ্জ,[৩০] যা লেগোস রাজ্যের রাজ্যের রাজধানী ইকেজা সহ ১৬ টি এলজিএ নিয়ে গঠিত।[৪][৩১] এই পৌরপুঞ্জটি লেগোস রাজ্যের মোট জমি ক্ষেত্রের ৩৭%, তবে রাজ্যের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৮৫% নিয়ে গঠিত।[৪][২৬][৩২]

মেট্রোপলিটন লেগোসের সঠিক জনসংখ্যা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। ২০০৬ সালের যুক্তরাষ্ট্রীয় আদমশুমারির তথ্য অনুসারে, এই পৌরপুঞ্জের জনসংখ্যা ছিল প্রায় ৮ মিলিয়ন।[৩৩] তবে, এই পরিসংখ্যানটি লেগোস রাজ্য সরকার দ্বারা বিতর্কিত হিসাবে চিহ্নিত হয়, যার ফলে পরবর্তী সময়ে রাজ্য সরকার কর্তৃক নিজস্ব জনসংখ্যার তথ্য প্রকাশিত হয় এবং লেগোস মহানগর অঞ্চলের জনসংখ্যা প্রায় ১৬ মিলিয়ন হিসাবে নির্ধারিত হয়।[note ৩] বেসরকারী পরিসংখ্যানসমূহ ২০১৫ সালে "বৃহত্তর মহানগরীয় লেগোস"-এর জনসংখ্যাকে প্রায় ২১ মিলিয়ন নির্ধারণ করে, যার মধ্যে লেগোস ও প্রায় ওগুন রাজ্য পর্যন্ত প্রসারিত আশেপাশের মেট্রো অঞ্চল রয়েছে।[৩][২৬][৩৪][৩৫]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. Metropolitan Lagos consists of 16 of Lagos State's 20 LGAs, which excludes Badagry, Epe, Ibeju-Lekki and Ikorodu.[৩][৪]
  2. Metropolitan Lagos consists 16 out of Lagos State's 20 LGA, which excludes: Badagry, Epe, Ibeju-Lekki and Ikorodu.[৩][৮]
  3. Metropolitan Lagos consists 16 out of Lagos State's 20 LGA, which excludes Badagry, Epe, Ibeju-Lekki, and Ikorodu.[৩][৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "18th National Sports Festival: Lagos unveils Logo, mascot and website"Premium Times। Abuja, Nigeria। ১৮ জুন ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২ অক্টোবর ২০১২ 
  2. "Eko 2012: Building Branding through Sports, Articles"ThisDay। Lagos, Nigeria। ২২ আগস্ট ২০১২। ২৪ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ অক্টোবর ২০১২ 
  3. "Metro Lagos (Nigeria): Local Government Areas"। City Population। ২১ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  4. "Lagos and Its Potentials for Economic Growth"। ২ জুলাই ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  5. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; urban নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  6. "Population-Lagos State"Lagos State Government। ১৮ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  7. Demographia (জানুয়ারি ২০১৫)। Demographia World Urban Areas (PDF) (11th সংস্করণ)। সংগ্রহের তারিখ ২ মার্চ ২০১৫ 
  8. "Lagos (State, Nigeria)"। population.de। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৬ 
  9. Lagos Bureau of Statistics। "2019 Abstract of Local Government Statistics" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১, ২০২১ 
  10. Williams, Lizzie (২০০৮)। Bradt Travel Guides (3rd সংস্করণ)। Paperback। পৃষ্ঠা 87। আইএসবিএন 978-1-8416-2397-9। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৪ 
  11. "What Makes Lagos a Model City"New York Times। ৭ জানুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৫ 
  12. John Campbell (১০ জুলাই ২০১২)। "This Is Africa's New Biggest City: Lagos, Nigeria, Population 21 Million"The Atlantic। Washington DC। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  13. "These cities are the hubs of Africa's economic boom"Big Think। ২০১৮-১০-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-২৩ 
  14. "Africa's biggest shipping ports"। Businesstech। ৮ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  15. Brian Rajewski (১৯৯৮)। Africa, Volume 1 of Cities of the World: a compilation of current information on cultural, geographical, and political conditions in the countries and cities of six continents, based on the Department of State's "post reports"। Gale Research International, Limited। আইএসবিএন 978-0-810-3769-22 
  16. Loretta Lees; Hyun Bang Shin; Ernesto López Morales (২০১৫)। Global Gentrifications: Uneven Development and Displacement। Policy Press। পৃষ্ঠা 315। আইএসবিএন 978-1-447-3134-89 
  17. African Cities Driving the NEPAD Initiative। UN-HABITAT। ২০০৬। পৃষ্ঠা 202। আইএসবিএন 978-9-211318159 
  18. John Hartley; Jason Potts; Terry Flew; Stuart Cunningham; Michael Keane; John Banks (২০১২)। Key Concepts in Creative Industries। SAGE। পৃষ্ঠা 47। আইএসবিএন 978-1-446-2028-90 
  19. Helmut K Anheier; Yudhishthir Raj Isar (২০১২)। Cultures and Globalization: Cities, Cultural Policy and Governance। SAGE। পৃষ্ঠা 118। আইএসবিএন 978-1-446-2585-07 
  20. Stuart Cunningham (২০১৩)। Hidden Innovation: Policy, Industry and the Creative Sector (Creative Economy and Innovation Culture Se Series)। Univ. of Queensland Press। পৃষ্ঠা 163। আইএসবিএন 978-0-702-2509-89 
  21. Lisa Benton-Short; John Rennie Short (২০১৩)। Cities and Nature। Routledge Critical Introductions to Urbanism and the City। পৃষ্ঠা 7। আইএসবিএন 978-1-134252749 
  22. Kerstin Pinther; Larissa Förster; Christian Hanussek (২০১২)। Afropolis: City Media Art। Jacana Media। পৃষ্ঠা 18। আইএসবিএন 978-1-431-4032-57 
  23. Salif Diop; Jean-Paul Barusseau; Cyr Descamps (২০১৪)। The Land/Ocean Interactions in the Coastal Zone of West and Central Africa Estuaries of the World। Springer। পৃষ্ঠা 66। আইএসবিএন 978-3-319-0638-81 
  24. Sources:[১৭][১৮][১৯][২০][২১][২২][২৩]
  25. "CASE STUDY OF LAGOS" (PDF)। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  26. "Lagos State Information"। National Bureau of Statistics। ৯ নভেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  27. "A Flood-Free Lagos: The Regional Imperative"। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  28. Olukoju, Ayodeji (১৯৯৬)। "The Travails of Migrant and Wage Labour in the Lagos Metropolitan Area in the Inter-War Years"Labour History Review। Liverpool University Press। 61: 49–70। ডিওআই:10.3828/lhr.61.1.49। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  29. "Lagos Metropolitan Area: Scope and scale of the shelter problem"। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  30. Caprio, Charles (৬ মার্চ ২০১২)। "Lagos is wonderful and charming conurbation of Nigeria to visit"। Go Articles। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  31. "Administrative Levels - Lagos State"। Nigeria Congress। ২৫ ডিসেম্বর ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  32. "Population - Lagos State"Lagos State Government। ১৮ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৫ 
  33. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; Metropolitan_Lagos_population নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  34. "Population"। Lagos State Government। ২০১১। ১৮ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ নভেম্বর ২০১২ 
  35. Pacetti, M.; Passerini, G.; Brebbia, C.A.; Latini, G. (২০১২)। The Sustainable City VII: Urban Regeneration and Sustainabilityআইএসবিএন 9781845645786 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]