মোম্বাসা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মোম্বাসা
শহর
ঘড়ির কাঁটার দিকে: ফোর্ট যীশু, মোম্বাসা টাউন হল, মোম্বাসা ওল্ড টাউন, ন্যালি সৈকত, সূর্যাস্ত পরিদৃশ্, মোই অ্যাভিনিউ-এর হাতি দন্ত এবং ডাউনটাউন মোম্বাসা।
ঘড়ির কাঁটার দিকে: ফোর্ট যীশু, মোম্বাসা টাউন হল, মোম্বাসা ওল্ড টাউন, ন্যালি সৈকত, সূর্যাস্ত পরিদৃশ্, মোই অ্যাভিনিউ-এর হাতি দন্ত এবং ডাউনটাউন মোম্বাসা।
নীতিবাক্য: উত্যাঙ্গমান কব মাইন্ডেলেও
(উন্নয়ন জন্য ঐক্য)
মোম্বাসা আফ্রিকা-এ অবস্থিত
মোম্বাসা
মোম্বাসা
মোম্বাসার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৪°০৩′ দক্ষিণ ৩৯°৪০′ পূর্ব / ৪.০৫০° দক্ষিণ ৩৯.৬৬৭° পূর্ব / -4.050; 39.667স্থানাঙ্ক: ৪°০৩′ দক্ষিণ ৩৯°৪০′ পূর্ব / ৪.০৫০° দক্ষিণ ৩৯.৬৬৭° পূর্ব / -4.050; 39.667
দেশ কেনিয়া
বিভাগমোম্বাসা কাউন্টি
প্রতিষ্ঠাকাল৯০০ খ্রি.
উচ্চতা৫০ মিটার (১৬০ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১৬)
 • মূল শহর১৪,০০,০০০[১]
 • মহানগর৩০,০০,০০০
বিশেষণমোম্বাসাবাসী
সময় অঞ্চলইএটি (ইউটিসি+৩)
এলাকা কোড০২০
ওয়েবসাইটmombasa.go.ke
Skyline of Mombasa from old town
সূর্যাস্তের সময় পুরাতন শহরের আকাশ থেকে মোম্বাসা শহরের দিগন্ত দৃশ্য

মোম্বাসা (/mɒmˈbɑːsə/) কেনিয়া উপকূলের একটি শহর। ২০১৬ সালে ১.৪ মিলিয়ন[১] মানুষের আনুমানিক জনসংখ্যার সাথে এটি দেশের রাজধানী নাইরোবির পরে দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর এবং দেশের প্রাচীন শহর (প্রায় ৯০০ খ্রি.)।[২] শহরটির মহানগর অঞ্চল দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম এবং জনসংখ্যার প্রায় ৩ মিলিয়ন।[২] প্রশাসনিকভাবে, মোম্বাসা মোম্বাসা কাউন্টির কাউন্টি শহর।

মোম্বাসা একটি আঞ্চলিক সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক কেন্দ্র; শহরটিতে একটি অতিরিক্ত বড় বন্দর এবং একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আছে, এবং এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক পর্যটন কেন্দ্র। কেনিয়ার পূর্ব উপকূলে অবস্থিত শহরটিতে স্টেট হাউস আবস্থিত এবং একে দ্বিতীয় রাজধানী হিসাবে বিবেচনা করা হয়। ভারত মহাসাগরের উপকূলে মোম্বাসা কাউন্টি এবং প্রাক্তন কোস্ট প্রদেশে অবস্থিত মোম্বাসার অবস্থান শহরটিকে একটি ঐতিহাসিক বাণিজ্য কেন্দ্রে রূপান্তরিত করে[৩] এবং এটির কৌশলগত অবস্থানের কারণে এটি অনেক দেশ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়েছে।

বিবরণ[সম্পাদনা]

২০০৯ সালের আদমশুমারি অনুসারে মোম্বাসা শহরের জনসংখ্যা প্রায় ৯,৩৯,০০০ জন।[৪][৫] এটি মোম্বাসা দ্বীপে অবস্থিত এবং আশেপাশের প্রধানভূমিতে বিস্তৃত। দ্বীপটি দুটি খাল দ্বারা প্রধানভূমি থেকে পৃথক হয়েছে: টিডর খাঁড়ি এবং কিলিনদিন হারবার। এটি মূলভূমির সঙ্গে উত্তর দিকে নীলালি সেতু, দক্ষিণে লিকোনি ফেরি, এবং পশ্চিমে মকুপা কোজওয়ে দ্বারা সংযুক্ত, পাশাপাশি কেনিয়া-উগান্ডা রেলপথ চালু রয়েছে শহরটিতে। শহরের বন্দরটি কেনিয়া এবং অভ্যন্তর দেশ উভযের সমুদ্র যোগাযোগ গড়ে তোলে। শহরটির বিমান পরিষেবা মূলভূমির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহরতলি চানিতে অবস্থিত মোই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দ্বারা পরিবেশিত হয়।

মোম্বাসা শহরের একটি বিশ্বজনীন জনসংখ্যা আছে, যার মধ্যে সোহেলী জনগণ এবং মিজিকেন্ডা প্রধানত। অন্যান্য সম্প্রদায়ের মধ্যে আকাবা ও তায়তা ব্যান্তাসের পাশাপাশি ওয়েস্টার্ন কেনিয়া থেকে লুও ও লুহিয়া জনগোষ্ঠীর উল্লেখযোগ্য জনসংখ্যা রয়েছে। শহরে ইসলাম, খ্রিস্টান এবং হিন্দু ধর্ম সহ প্রধান ধর্মগুলি প্রচলিত।[৬] বহু শতাব্দী ধরে অনেক অভিবাসী ও ব্যবসায়ী মোম্বাসায় বসতি স্থাপন করেছেন, বিশেষত মধ্যপ্রাচ্য, সোমালিয়া এবং ভারতীয় উপমহাদেশ থেকে, যারা প্রধানত ব্যবসায়ী এবং দক্ষ কারিগর হিসেবে এসেছিলেন। ইতিহাস

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. , Investors fault Mombasa’s new master plan; Business Daily; retrieved 19 August 2014.
  2. The World Factbook. Cia.gov. Retrieved on 17 August 2013.
  3. History of Mombasa | Mombasa, Kenya ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে. Mombasainfo.com. Retrieved on 17 August 2013.
  4. City of Mombasa ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩ মার্চ ২০১৪ তারিখে; at Geo Hive .com; "Kenya National Bureau of Statistics and the final report by the IEBC as ratified in: National Assembly Constituencies and County Assembly Wards Order, 2012"; retrieved June 2016
  5. Kenya Census 2009 (Page 7). Total Population by county Retrieved on 19 August 2014.
  6. "Kenya 2009 Census"। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]