নাইজেরিয়ার রাজ্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নাইজেরিয়া হল, ৩৬ টি রাজ্য এবং ১ টি ফেডারেল রাজধানী অঞ্চল বিশিষ্ট একটি সংযুক্ত রাজ্য। ৩৬ টি রাজ্যের প্রত্যেকটিই এক একটি আর্ধেক স্বায়ত্বশাসিত; রাজনৈতিক অংশ যা ফেডারেল প্রজাতন্ত্রী নাইজেরিয়ার সংবিধানের অধীনে গণনা করা ফেডারেল সরকারের সাথে (জনগণ) ক্ষমতা ভাগাভাগি করে। ফেডারেল অঞ্চলকে এফসিটি নামেও সম্বোধন করা হয়ে থাকে, যা নাইজেরিয়ার রাজধানী আবুজা শহরে অবস্থিত। এফসিটি কোন রাজ্যর নয় কিন্তু তা নির্বাচিত কর্মকর্তাদের দ্বারা পরিচালিত হয়। তারা ফেডারেল সরকার তত্ত্বাবধানে নিযুক্ত। প্রতিটি রাজ্য স্থানীয় সরকার এলাকায় (লোকাল গভার্নমেন্ট এরিয়া: এলজিএ) উপ-বিভক্ত। বর্তমানে নাইজেরিয়ায় মোট ৭৭৪ টি স্থানীয় সরকার এলাকা বিদ্যমান রয়েছে। [১]

সংবিধানের আওতায় ৩৬ টি রাজ্য একটি অপরটির সম-মান হলেও প্রধান নয়, কারণ সার্বভৌমত্ব ফেডারাল সরকারের আয়ত্বে থাকে। সংবিধানটি জাতীয় সংসদ দ্বারা সংশোধন করা যেতে পারে, তবে প্রতিটি সংশোধনী অবশ্যই ফেডারেশনের ৩৬ টি রাজ্যের দুই-তৃতীয়াংশ দ্বারা অনুমোদিত করা উচিত।

নাইজেরিয়া
Nigeria location map.svg
শ্রেণিফেডারেশন
অবস্থাননাইজেরিয়া
সংখ্যা৩৬
জনসংখ্যা১,৭০৪,৩৫৮ (বায়েলসা রাজ্য) – ৯,৪০১,২৮৮ (লাগোস রাজ্য)
মোট: ৫,৩০০,০০০
আয়তন৩,৫৮০ কিমি (১,৩৮১ মা) (লাগোস রাজ্য) – ৭৬,৩৬০ কিমি (২৯,৪৮৪ মা) (নাইজার রাজ্য)
মোট: ২৫,৬৬০ কিমি (৯,৯০৭ মা)
সরকাররাজ্য সরকার
বিভাগলোকাল গভার্ণমেন্ট এরিয়া - (এলজিএ)

বর্তমান রাজ্য ও ফেডারেল রাজধানী অঞ্চল[সম্পাদনা]

  1. আবিয়া
  2. আদামাওয়া
  3. আকওয়া ইবম
  4. আনাম্ব্রা
  5. বাউচি
  6. বায়েলসা
  7. বেনুয়ে
  8. বর্ন
  9. ক্রস নদ
  10. ডেলটা
  11. ইবোনি
  12. ইডো
  13. ইকিটি
  14. ইনুগু
  15. গোম্বে
  16. ইমো
  17. জিগাওয়া
  18. কাডুনা
  19. কানো
  20. কাটসিনা
  21. কেব্বি
  22. কোগি
  23. কোয়ারা
  24. লাগোস
  25. নাসারাওয়া
  26. নাইজার
  27. ওগুন
  28. ওন্ডো
  29. ওসুন
  30. ওইয়ো
  31. প্লাটেয়াও
  32. রিভার্স
  33. সোকোটো
  34. তারাবা
  35. ইয়োবে
  36. জামফারা

রাজ্যসমূহের বিবর্তন[সম্পাদনা]

তারিখ ঘটনা ম্যাপ
১৯৬০-১৯৬৩ ১৯৬০ সালে স্বাধীনতার সময়, নাইজেরিয়া তিনটি অঞ্চলের একটি ফেডারেল রাষ্ট্র ছিল: উত্তর, পশ্চিম, এবং পূর্ব। উপরন্তু, প্রদেশ যা ঔপনিবেশিক শাসন থেকে মুক্ত হয়েছিল।ঔপনিবেশিক শাসন ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। তারপর তা বিলুপ্ত হয়ে যায়।
Nigeria 1960-1963.png
১৯৬৩-১৯৬৭ ১৯৬৩ সালে পশ্চিম অঞ্চল থেকে নতুন মধ্য-পশ্চিম অঞ্চল তৈরি হয়
Nigeria 1963-1967.png
১৯৬৭-১৯৭৬ ১৯৬৭ সালে, অঞ্চলগুলো সামরিক আদেশে ১২টি রাজ্যে প্রতিস্থাপিত হয়।
Nigeria states-1967-1976.png
১৯৭৬-১৯৮৭ ১৯৭৬ সালে সাতটি নতুন রাজ্য তৈরি করা হয়, এবং এগুলো সহ মোট ১৯টি রাজ্য তৈরি হয় [১]
Nigeria states-1976-1987.png
১৯৮৭-১৯৯১ এই সময়ে, ২১টি রাজ্য এবং ফেডারেল রাজধানী অঞ্চল আবুজা তৈরি হয়
Nigeria states 1987-1991.png
১৯৯১-১৯৯৬ এই সময়ের মধ্যে, ৩০টি রাজ্য এবং ফেডারেল রাজধানী অঞ্চল তৈরি হয়ে ছিল। ফেডারেল রাজধানী অঞ্চল ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৮৭ সালে দুটি নতুন রাজ্য প্রতিষ্ঠিত হয়, ১৯৯১ সালে আরও নয়টি রাজ্য প্রতিষ্ঠা হয়, এই পর্যন্ত মোট ৩০ রাজ্য তৈরি হয়। ১৯৯৬ সালে সর্বশেষ পরিবর্তেন দ্বারা মোট ৩৬ রাজ্যে তৈরি হয়। যা বর্তমানেও বিদ্যমান
Nigeria 1991-1996.png

সরকার ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে, নাইজেরিয়ার সংবিধান একটি মাপকাঠি নির্ধারন করে দেয়। যার যে কোন উপায়ে তাদের স্বতন্ত্র সরকারকে সংগঠিত করার অধিকার আছে।

আইনষভা[সম্পাদনা]

রাজ্য স্তরের আইনসভা টি একক। তার সদস্য সংখ্যা ফেডারেল হাউস অফ রিপ্রেজেনটেটিভ হাউসে বিধায়কদের সংখ্যার তিনগুণ অধিক। এটি সমবর্তী তালিকার বিষয়গুলিতে আইন প্রণয়ন করার ক্ষমতা রাখে।

কার্যনির্বাহী[সম্পাদনা]

রাজ্য স্তরে নির্বাহী প্রধানকে গভর্নর (বা রাজ্যপাল) বলা হয়ে থাকে, যিনি রাজ্য কার্যনির্বাহী পরিষদের "স্টেট হাউস অফ অ্যাসেম্বলির" (আইনসভা) পরামর্শ ও সম্মতি সাপেক্ষে রাজ্য স্তরে কর্মকর্তা নিয়োগের ক্ষমতা রাখেন। রাজ্য স্তরের একটি মন্ত্রণালয়ের প্রধানকে কমিশনার বলা হয়, স্থায়ী সচিব তাকে সহায়তা প্রদান করে, যিনি রাজ্যের প্রবীণ বেসামরিক কর্মচারীও হন।

বিচার বিভাগ[সম্পাদনা]

বিচার বিভাগ হল রাজ্য সরকারের আইন সম্পর্কিত ব্যাখ্যার সাথে সম্পর্কিত রাজ্য সরকারের অন্যতম সমমর্যাদা সম্পন্ন বিভাগ। রাজ্যের প্রধান বিচারপতিকে বিচার সভা পরিচালনার জন্য নিযুক্ত করা হয়। তাকে নিযুক্ত করেন রাজ্যের গভর্নর। তিনি বিচারপতিকে নিযুক্ত করার জন্য স্টেট হাউজ অব অ্যাসেম্বলির অনুমোদন গ্রহণ করে থাকেন

কালক্রম[সম্পাদনা]

অঞ্চল রাজ্য
১৯৬০ ১৯৬৩ ১৯৬৮ ১৯৭৬ ১৯৮৭ ১৯৯১ ১৯৯৬
পূর্বাঞ্চল দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল ক্রস রিভার আকওয়া এবম
ক্রস রিভার
পূর্বাঞ্চল ইমো ইমো
আবিয়া আবিয়া
ইবোনি
আনামব্রা ইনুগু
ইনুগু
আনামব্রা
রিভার্স বায়েলসা
রিভার্স
পশ্চিমাঞ্চল বেন্ডেল ডেলটা
এডো
পশ্চিমাঞ্চল লাগোস
পশ্চিমাঞ্চল অগুন
ওন্ডো একিটি
ওন্ডো
ওয়ো ওসুন
ওয়ো
উত্তরাঞ্চল বেনুয়ে-প্লাটেয়াও প্লাটেয়াও নাসারাওয়া
প্লাটেয়াও
বেনুয়ে বেনুয়ে
কোগি
কোয়ারা
কোয়ারা
কানো জিগাওয়া
কানো
উত্তর সেনট্রাল কাডুনা কাডুনা
কাটসিনা
উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল নাইজার
সোকোটো কেব্বি
সোকোটো সোকোটো
জামফারা
উত্তর-পূর্বাঞ্চল বাউচি বাউচি
গোমবে
বোর্নো বোর্নো
ইয়োবে
গোঙ্গোলা আডামাওয়া
তারাবা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kraxberger, Brennan (2005) "Strangers, Indigenes and Settlers: Contested Geographies of Citizenship in Nigeria" Space and Polity 9(1): pp. 9-27, pages 10, 11, & 15