ম্যাট রেনশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ম্যাট রেনশ
Renshaw2019a.jpg
২০১৯ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ম্যাট রেনশ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামম্যাথু টমাস রেনশ
জন্ম (1996-03-28) ২৮ মার্চ ১৯৯৬ (বয়স ২৪)
মিডলসবোরা, উত্তর ইয়র্কশায়ার, ইংল্যান্ড
ডাকনামদ্য টার্টল[১]
উচ্চতা১.৮৫ মিটার (৬ ফুট ১ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাউদ্বোধনী ব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৪৪৯)
২৪ নভেম্বর ২০১৬ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট৩০ মার্চ ২০১৮ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১৪/১৫ - বর্তমানকুইন্সল্যান্ড
২০১৭/১৮ - বর্তমানব্রিসবেন হিট
২০১৮সমারসেট (দল নং ৭৭)
২০১৯কেন্ট (দল নং ৭৭)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ১১ ৬১ ৩২ ২৪
রানের সংখ্যা ৬২৩ ৩,৭৪৮ ৯২৭ ৫৪৯
ব্যাটিং গড় ৩৩.৪৭ ৩৪.৭০ ৩৪.৩৩ ২৭.৪৫
১০০/৫০ ১/৩ ১০/১২ ১/৭ ০/৪
সর্বোচ্চ রান ১৮৪ ১৮৪ ১০৯ ৯০*
বল করেছে ২৪ ২৯৪ ১৭৪ ১৩৮
উইকেট
বোলিং গড় ৮৩.০০ ৩৬.৫০ ২৮.৮৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/১২ ২/১৭ ১/২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৮/– ৫৪/– ১৪/– ১০/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৩০ এপ্রিল ২০২০

ম্যাথু টমাস রেনশ (ইংরেজি: Matt Renshaw; জন্ম: ২৮ মার্চ, ১৯৯৬) উত্তর ইয়র্কশায়ারের মিডলসবোরা এলাকায় জন্মগ্রহণকারী ইংরেজ বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[২] অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। ২০১৬ সাল থেকে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে ব্রিসবেন হিটকুইন্সল্যান্ড দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলছেন। এছাড়াও, ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ‘দ্য টার্টল’ ডাকনামে পরিচিত ম্যাট রেনশ

শৈশবকাল[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ পাসপোর্টধারী তিনি। ইয়র্কশায়ারে জন্মগ্রহণ করেন। ৭ বছর বয়সে তার পরিবার নিউজিল্যান্ডে চলে আসে। এরপর, ১০ বছর বয়সে অস্ট্রেলিয়ায় চলে যান।

ইংল্যান্ডের মিডলসবোরায় ম্যাট রেনশয়ের জন্ম। সাত বছর বয়সে তার পরিবার নিউজিল্যান্ডে চলে যায়। এরপর দশ বছর বয়সে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করতে থাকেন।[৩] ব্রিসবেন গ্রামার স্কুলে ভর্তি হন।[৪]

মার্চ, ২০১৮ সালে ৬৮৬ রান তুললে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কর্তৃপক্ষ বর্ষসেরা শেফিল্ড শিল্ড দলে রেনশকে অন্তর্ভূক্ত করে।[৫] ডিসেম্বর, ২০১৮ সালে ব্রিসবেন সিনিয়র ক্রিকেটে রেকর্ডসংখ্যক রান তুলেন। টুম্বুলের পক্ষে ২৭৩ বলে ৩৪৮ রানের ইনিংস খেলেন। এ পর্যায়ে তিনি ৩৮টি চার ও ১২টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন।[৬]

২০১৯-২০ মৌসুমের মার্শ ওয়ান-ডে কাপকে ঘিরে ঐ প্রতিযোগিতায় ছয়জন ক্রিকেটের অন্যতম হিসেবে তাকে নজর তালিকায় রাখা হয়।[৭]

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২০১৫ সাল থেকে ম্যাট রেনশয়ের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান রয়েছে। দীর্ঘ ৬ ফুট ১ ইঞ্চি উচ্চতার অধিকারী তিনি।[৮] প্রাচীনধাঁচের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে দীর্ঘ সময়ের উপযোগী করে নিজেকে গড়ে তুলেছিলেন ম্যাট রেনশ।

ডেভিড ওয়ার্নারের ন্যায় তিনিও মাত্র স্বল্পকালীন প্রথম-শ্রেণীর অভিজ্ঞতাসমৃদ্ধ ছিলেন। এ পর্যায়ে ওয়ার্নার ১১ খেলা ও রেনশ ১২ খেলায় অংশ নিয়েছিলেন। তবে, অস্ট্রেলিয়ার দল নির্বাচকমণ্ডলী তাদের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। ১৯ বছর বয়সে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে শেফিল্ড শিল্ডে কুইন্সল্যান্ডের সদস্যরূপে সেঞ্চুরি করেন। ম্যাকের ধীরগতিসম্পন্ন ঝুঁকিপূর্ণ পিচে অত্যন্ত ধৈর্যশক্তির পরাকাষ্ঠা দেখিয়ে ৩৯৫ বল মোকাবেলান্তে ১৭০ রান তুলেন। ২০১৫-১৬ মৌসুমের ঐ আসরে তিনি শেফিল্ড শিল্ডে কুইন্সল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন। ৪৩.৪১ গড়ে ৭৩৮ রান তুলেন তিনি।

৬ ডিসেম্বর, ২০১৫ তারিখে ২০১৫-১৬ মৌসুমের শেফিল্ড শিল্ড প্রতিযোগিতায় নিউ সাউথ ওয়েলসের বিপক্ষে নিজস্ব প্রথম প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরি করেন।[৯] ৭ আগস্ট, ২০১৬ তারিখে ভারত এ দলের বিপক্ষে ন্যাশনাল পারফরমেন্স স্কোয়াডের সদস্যরূপে লিস্ট এ ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার।[১০]

২০১৭-১৮ মৌসুমের অ্যাশেজ সিরিজকে ঘিরে আটটি শেফিল্ড শিল্ডের কোন ইনিংসেই ২০ রান স্পর্শ করতে পারেননি। এরফলে, ক্যামেরন বেনক্রফটের কাছে নিজের স্থানচ্যূত হয়। এরফলে, তিনি পাল্টা জবাব দেন। ৮০৪ রান তুলে শিল্ডের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকে পরিণত হন। বড়দিনের পর তিনটি সেঞ্চুরি করেন ম্যাট রেনশ।

কাউন্টি ক্রিকেটে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় বলে আঁচড় লাগানোর ঘটনার পর দলীয় সঙ্গী ক্যামেরন বেনক্রফটকে নয় মাসের জন্যে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করা হয়।[১১] ২০১৮ সালে সমারসেটের সদস্যরূপে বেনক্রফট ছয় খেলায় তিনটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। ফলশ্রুতিতে, ২০১৮ সালের জন্যে সমারসেটের আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় হিসেবে গণ্য করে ম্যাট রেনশকে বেনক্রফটের স্থলাভিষিক্ত করার লক্ষ্যে তার সাথে চুক্তিবদ্ধ করা হয়।[১২][১৩]

২০ এপ্রিল, ২০১৮ তারিখে সমারসেটের পক্ষে তার অভিষেক ঘটে। প্রতিপক্ষীয় ওরচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে দলের প্রথম ইনিংসে সংগৃহীত ২০২ রানের বিপরীতে তিনি ১০১ রানে অপরাজিত ছিলেন। এ সংগ্রহটি দলের ঠিক অর্ধেক ছিল।[১৪][১৫] চ্যাম্পিয়নশীপে কাউন্টি দলটির পক্ষে ছয় খেলায় অংশ নিয়ে ৫১.১৩ গড়ে ৫১৩ রান তুলেন। তন্মধ্যে, নিজস্ব দ্বিতীয় খেলায় আরও একটি সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি।[১৬][১৭] এছাড়াও, সমারসেটের পক্ষ ছয়টি লিস্ট এ খেলায় অংশ নিয়ে ১৮০ রান তুলেন। কিন্তু, ভাঙ্গা আঙ্গুলের কারণে তিনি কাউন্টি দলের পক্ষে সংক্ষিপ্ত সময় অবস্থান করে দেশে ফিরে আসেন।[১৮]

অ্যাশেজ সিরিজকে ঘিরে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ মৌসুমের শুরুতে কেন্ট দলের পক্ষে খেলতে রাজী হন।[১৬][১৭] ২১ এপ্রিল, ২০১৯ তারিখে সাসেক্সের বিপক্ষে কেন্টের সদস্যরূপে খেলেন। ১১১ বলে ১০৯ রান তুলে সর্বোচ্চ সংগ্রহ গড়েন।[১৯]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

এপ্রিল, ২০২০ সাল পর্যন্ত এগারোটি টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন ম্যাট রেনশ। ২০ বছর বয়সে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলে খেলার জন্যে আমন্ত্রণ পান। ২৪ নভেম্বর, ২০১৬ তারিখে অ্যাডিলেডে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার।

২০১৬-১৭ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকা দল অস্ট্রেলিয়া গমনে আসে। নভেম্বর, ২০১৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে নিক ম্যাডিনসনপিটার হ্যান্ডসকম্বের সাথে তারও একযোগে অভিষেক ঘটে।[২০] ২৪ নভেম্বর, ২০১৬ তারিখে অভিষেক ঘটা ঐ টেস্টে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে নামেন ও কুইন্সল্যান্ডের দলীয় সঙ্গী জো বার্নসের স্থলাভিষিক্ত হন।[২১] সাবেক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ইয়ান হিলি তাকে ব্যাগি গ্রীন ক্যাপ পরিধান করান।

পাকিস্তানের মুখোমুখি[সম্পাদনা]

২০১৬-১৭ মৌসুমে পাকিস্তান দল অস্ট্রেলিয়া সফরে আসে। গাব্বায় নিজস্ব দ্বিতীয় টেস্টে সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে ৭১ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত সিরিজের তৃতীয় টেস্টে নিজস্ব চতুর্থ খেলার প্রথম দিনে ১৮৪ রান তুলে প্রথম সেঞ্চুরি’র সন্ধান পান। এরফলে, অস্ট্রেলিয়ার ১৩৩তম টেস্ট সেঞ্চুরিকারীর মর্যাদা প্রাপ্ত হন।[২২] এটিই তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ সংগ্রহ ও অস্ট্রেলীয়দের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ ছিল।

শুরুরদিকের এ সফলতা থমকে যায়। ২০১৭ সালে দলের সাথে ভারত গমন করেন। নিজস্ব প্রথম দুই টেস্টে অর্ধ-শতরানের ইনিংস খেলেন। প্রথম অস্ট্রেলীয় হিসেবে ২১ বছর পূর্তির পূর্বেই ৫০০ টেস্ট রান তুলেন। রাঁচি টেস্টে এ কৃতিত্ব অর্জন করেন। এরফলে, ১১৯ বছরের পুরনো রেকর্ডটি নিজের করে নেন।[২৩][২৪] ভারত ও বাংলাদেশে পরবর্তী চার টেস্টে আর কোন অর্ধ-শতরানের কোটা স্পর্শ করতে ব্যর্থ হন। কেবলমাত্র তিনবার ২০-এর অধিক রান তুলতে পেরেছিলেন।

২৭ মার্চ, ২০১৮ তারিখে পুণরায় তাকে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলে খেলার জন্যে আমন্ত্রণ জানানো হয়। এ পর্যায়ে তিনি ২০১৭-১৮ মৌসুমে জোহেন্সবার্গের ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ টেস্টে অংশ নেন।[২৫] সিরিজের তৃতীয় টেস্টে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ও অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে বলে আঁচড় কাটানোর সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তাদের তদন্ত কার্য সমাপ্তির পূর্বেই তাকে দলে খেলার জন্যে আমন্ত্রণ জানায়।[২৬] জোহেন্সবার্গ টেস্টে বলে আঁচড় কাটার ঘটনার পর তাকে পুণরায় টেস্ট দলে রাখা হয়।

কেন্দ্রীয় পর্যায়ে চুক্তিবদ্ধ[সম্পাদনা]

২০১৮-১৯ মৌসুমে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কর্তৃক চুক্তির আওতায় আসেন। ডেভিড ওয়ার্নারের সাথে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেন। এপ্রিল, ২০১৮ সালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কর্তৃক ২০১৮-১৯ মৌসুমকে ঘিরে তাকে জাতীয় পর্যায়ে চুক্তিবদ্ধ করা হয়।

এরফলে, ২০১৮-১৯ মৌসুমে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলার উদ্দেশ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত অভিমুখে টেস্ট দলে অন্তর্ভূক্ত হন।[২৭][২৮] এপ্রিল, ২০১৯ সালে ঘোষণা করা হয় যে, ২০১৯-২০ মৌসুমের জন্যে তাকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কর্তৃক কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আবদ্ধ করা হয়নি।[২৯] সংযুক্ত আরব আমিরাতে সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরুর পূর্বে অনুশীলনীমূলক খেলায় ফিল্ডিংকালে আঘাতপ্রাপ্ত হন। তবে, শারীরিক যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তাকে কোন টেস্টে রাখা হয়নি।

২০১৮-১৯ মৌসুমের শিল্ডের খেলায় তার ছন্দপতন লক্ষ্য করা যায়। তাসত্ত্বেও, ব্রিসবেনভিত্তিক গ্রেড ক্রিকেটে ত্রিশতক হাঁকানোর ন্যায় দূর্লভ ঘটনায় নিজেকে যুক্ত করেন। ২০১৯ সালের শুরুতে সফরকারী শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলার জন্যে তাকে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। তবে, উদ্বোধনী ব্যাটিংয়ের অবস্থান শূন্য থাকা সত্ত্বেও তিনি উপেক্ষার শিকার হন ও তারপর কেন্দ্রীয় পর্যায়ের চুক্তি থেকে তাকে বাদ দেয়া হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "No joking, it's The Turtle and the Reverend"cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৭ 
  2. "Matt Renshaw"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  3. Coverdale, Brydon। "Matt Renshaw, Cricinfo profile"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. Dorries, Ben (১৯ নভেম্বর ২০১৬)। "Matt Renshaw's parents want the world to know their boy is a true blue Aussie"The Courier-Mail। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৭ 
  5. "Our Sheffield Shield team of the year"Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৮ 
  6. "Matt Renshaw showed the selectors they made a big mistake"News.com.au। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  7. "Six players to watch in the Marsh One-Day Cup"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  8. "Matthew Renshaw"cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  9. "Renshaw's maiden ton steers Queensland"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  10. "National Performance Squad v India A 2016"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০১৬ 
  11. "Tampering trio learn their fate"। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০১৮ 
  12. "Matt Renshaw: Somerset sign Australia batsman as Cameron Bancroft replacement"BBC Sport। ১২ এপ্রিল ২০১৮। 
  13. "Somerset sign Matt Renshaw"Somerset County Cricket Club। ১২ এপ্রিল ২০১৮। 
  14. "Gabba lessons help Renshaw on county debut"। International Cricket Council। ২১ এপ্রিল ২০১৮। 
  15. "County Championship: Somerset edge ahead after Matt Renshaw's debut century"। BBC Sport। ২১ এপ্রিল ২০১৮। 
  16. Matthew Renshaw: Kent sign Australia batsman for part of 2019, BBC Sport, 8 February 2019. Retrieved 9 February 2019.
  17. Stokes M (2019) Kent sign Australian Test batsman Matt Renshaw, Kent Online, 8 February 2019. Retrieved 9 February 2019.
  18. Matt Renshaw: Injury ends Australia batsman's Somerset spell, BBC Sport, 23 June 2018. Retrieve 9 February 2019.
  19. "Kent v Sussex 21 April 2019"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৯ 
  20. "Renshaw, Maddinson, Handscomb to make Test debuts"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০ নভেম্বর ২০১৬ 
  21. "South Africa tour of Australia, 3rd Test: Australia v South Africa at Adelaide, Nov 24-28, 2016"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  22. "Pakistan tour of Australia, 3rd Test: Australia v Pakistan at Sydney, Jan 3-7, 2017"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৭ 
  23. "Renshaw breaks 119-year Aussie record"cricket.com.au। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৭ 
  24. "Matt Renshaw become Youngest Australian Batsman to Complete 500 Test Runs"। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৭ 
  25. "Renshaw added to Australia squad"। Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৮ 
  26. "CA launches ball tampering probe"। Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৮ 
  27. "Carey, Richardson gain contracts as Australia look towards World Cup"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৮ 
  28. "Five new faces on CA contract list"Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৮ 
  29. "2019-20 CA Contracts"Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]