মাসুদ আলি খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মাসুদ আলী খান
জন্ম (1931-12-01) ১ ডিসেম্বর ১৯৩১ (বয়স ৯২)
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশাটেলিভিশন, চলচ্চিত্র এবং মঞ্চ অভিনেতা
কর্মজীবন১৯৮৫-বর্তমান

মাসুদ আলি খান একজন বাংলাদেশী টেলিভিশন, চলচ্চিত্র এবং মঞ্চ অভিনেতা[১][২] ২০২৩ সালে শিল্পকলায় অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক একুশে পদক প্রদান করা পান।[৩] ২০২৪ সালে মেরিল প্রথম আলো আজীবন সম্মাননা পুরস্কার পান।[৪]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মাসুদ আলী খান ১৯৩১ সালের ১ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে নানার বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন[৫][৬]। তিনি কলকাতায় কিছুকাল পড়াশুনার একটি অংশ শেষ করেন এরপর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে ম্যাট্রিক পাস করেন। পরে তিনি জগন্নাথ কলেজ এবং স্যার সলিমুল্লাহ কলেজে পড়াশোনা করেন।[৭]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

তিনি ছোটবেলায় ক্লাস টুতে পড়ার সময় স্বরসতী পূজায় ‘রানা প্রতাপ সিং’ নাটকে প্রথম অভিনয় করেন ১৯৫৬ সালে উচ্চ মাধ্যমিকে পড়ার সময় তিনি ‘ড্রামা সার্কেল’র সঙ্গে যুক্ত হন। তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র সাদেক খান পরিচালিত ‘নদী ও নারী’। সর্বশেষ তিনি প্রয়াত খালিদ মাহমুদ মিঠুর নির্দেশনায় ‘জোনাকীর আলো’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।[৫][৮][৯]

তাঁর টেলিভিশনের অভিষেক থিয়েটার ব্যক্তিত্ব, নাট্যকার ও পরিচালক নাট্যগুরু নুরুল মোমেন এর একটি নাটকের মধ্য দিয়ে। নাটকটির নাম ছিল ভাই ভাই শোবাই। এটি একটি শ্লোক নাটক এবং তিনি নায়ক ডঃ বশিরের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

অভিনয়[সম্পাদনা]

সিনেমা[সম্পাদনা]

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

  • এইসব দিনরাত্রি
  • কোথাও কেউ নেই
  • সুখী মানুষ প্রজেক্ট
  • দিন চলে যায়
  • মধুর ঝামেলা
  • গুলশান এভিনিউ
  • সাদা কালো মন
  • শাপমোচন
  • ফিফটি-ফিফটি
  • পৌষ ফাগুনের পালা
  • প্যাভিলিয়ান
  • একান্নবর্তী
  • ৬৯

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "অভিনয়ে ফিরলেন মাসুদ আলী খান"মানবজমিন। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মে ২০২০ 
  2. ফায়জা হক (জুলাই ২৩, ২০১০)। "A Man for All Seasons"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। মার্চ ১৫, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৬ 
  3. প্রতিবেদক, নিজস্ব। "বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনসহ ২১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পাচ্ছে একুশে পদক"Prothomalo। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০২-১৩ 
  4. Correspondent, Staff (২০২৪-০৫-২৪)। "Masud Ali Khan gets Meril-Prothom Alo Lifetime Achievement Award"Prothomalo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২৪-০৫-২৪ 
  5. "অভিনয়ে ফিরলেন মাসুদ আলী খান"দৈনিক ইনকিলাব। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মে ২০২০ 
  6. "অভিনয়ে নেই মাসুদ আলী খান | daily nayadiganta"দৈনিক নয়া দিগন্ত। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মে ২০২০ 
  7. মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম (জুলাই ১৯, ২০১৪)। "Masud Ali Khan"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৬ 
  8. "অভিনয় থেকে দূরে মাসুদ আলী খান"www.bhorerkagoj.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মে ২০২০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  9. এরশাদ কমল (মে ৫, ২০০৫)। "Favourite "father figure" on small screen"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। মার্চ ১৫, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৬ 
  10. "Tenasinas Awards Conferred Honouring the best in television"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। জুন ২৯, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]