ভূমি পেডনেকর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভূমি পেডনেকর
भूमी पेडणेकर
Bhumi Pednekar in Screen Awards 2019 (10) (cropped).jpg
২০১৯ সালে ভূমি পেডনেকর
জন্ম (1989-07-28) ২৮ জুলাই ১৯৮৯ (বয়স ৩১)
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন২০১৫-বর্তমান

ভূমি পেডনেকর (মারাঠি: भूमी पेडणेकर; জন্ম: ১৮ জুলাই ১৯৮৯) হলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। ছয় বছর যশ রাজ ফিল্মসের সহকারী কাস্টিং পরিচালক হিসেবে কাজ করার পর, এই কোম্পানির প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক দম লগা কে হইশা (২০১৫) চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার বড় পর্দায় অভিষেক হয়। এই ছবিতে তার কাজ সমাদৃত হয় এবং তিনি শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করেন।

পেডনেকর ২০১৭ সালে টয়লেট: এক প্রেম কথাশুভ মঙ্গল সাবধান ছবিতে একঘুঁয়ে নারী চরিত্রে অভিনয় করে প্রসিদ্ধি লাভ করেন। শুভ মঙ্গল সাবধান ছবিতে তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

পেডনেকর ১৯৮৯ সালের ১৮ই জুলাই বম্বে শহরে (বর্তমান মুম্বই) জন্মগ্রহণ করেন।[১][২] তার পিতা সতীশ ছিলেন মহারাষ্ট্রের সাবেক স্বরাষ্ট্র ও শ্রম মন্ত্রী এবং মাতা সুমিত্রা মাদক-বিরোধী আন্দোলনের সক্রিয়কর্মী।[৩][৪] পেডনেকর মুম্বইয়ের জুহুর আর্য বিদ্যা মন্দিরে পড়াশুনা করেন।[৫] তার যখন ১৫ বছর বয়স তখন তার পিতামাতা হুইসলিং উডস ইন্টারন্যাশনালে অভিনয় বিষয়ে তার পাঠগ্রহণের জন্য শিক্ষা ঋণ নেন। কিন্তু তার কম উপস্থিতির জন্য তাকে সেখান থেকে বহিষ্কার করা হয়।[৩] দেড় বছর পর তিনি যশ রাজ ফিল্মসে সহকারী পরিচালক হিসেবে যোগ দেন এবং এই ঋণের অর্থ পরিশোধ করেন।[৩] তিনি এই কোম্পানিতে শানু শর্মার সাথে সহকারী পরিচালক হিসেবে ছয় বছর কাজ করেন।[৫][৬]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

যশ রাজ ফিল্মসের সাথে পেডনেকরের তিনটি চলচ্চিত্রের চুক্তি হয়। ২০১৫ সালে দম লগা কে হইশা চলচ্চিত্র দিয়ে তার বলিউডে অভিষেক হয়। আয়ুষ্মান খুরানার বিপরীতে অভিনয় করা এই চলচ্চিত্রে তাকে স্থুলকায় তরুণী সন্ধ্যা ভার্মা চরিত্রে দেখা যায়। ডেইলি নিউ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস-এর এক প্রতিবেদনে তিনি বলেন অতিরিক্ত স্থুলকায় হওয়া সত্ত্বেও এই চলচ্চিত্রে কাজের জন্য শুটিং শুরুর পূর্বে তিনি আরও ১২ কেজি ওজন বাড়ান। চলচ্চিত্রের চিত্রায়ন শেষ হওয়ার পূর্বে তিনি ওজন কমাতে থাকেন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি সেইসব পদ্ধতি ও প্রক্রিয়া শেয়ার করেন। চলচ্চিত্রটি মুক্তির পূর্বেই তিনি অনেকাংশে তার ওজন কমিয়ে ফেলেন। ছবিটি মুক্তির পর তা স্লিপার হিট তকমা লাভ করে। রাজিব মাসান্দ এই চলচ্চিত্রের পর্যালোচনায় লিখেন, "পেডনেকর নিশ্চিতভাবে এই ছবির একটি অংশে প্রভাব বিস্তার করেছেন যা সন্ধ্যার প্রতি আপনাকে আগ্রহী করে তুলবে।" পেডনেকর তার কাজের জন্য শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করেন।[৭]

শুভ মঙ্গল সাবধান (২০১৭) ছবির প্রচারণায় ভূমি।

একই বছর পেডনেকর ওয়াই-ফিল্মসের একটি মিনি ওয়েব ধারাবাহিক ম্যান্‌স ওয়ার্ল্ড-এ অভিনয় করেন। লিঙ্গ অসমতা নিয়ে নির্মিত চার খণ্ডের ধারাবাহিকটি ২০১৫ সালের ২৯সে সেপ্টেম্বরে ইউটিউবে প্রকাশিত হয়। এতে আরও অভিনয় করেন অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া, কালকি কেকলাঁরিচা চাড্ডা। এক বছর অনুপস্থিতির পর তিনি শ্রী নারায়ণ সিংয়ের অভিষেক চলচ্চিত্র টয়লেট: এক প্রেম কথা (২০১৭) ছবিতে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে অভিনয় করেন।[৮][৯] এতে তিনি খোলা মাঠে মলত্যাগ প্রতিরোধে ভূমিকা পালনকারী এক ভারতীয় তরুণী চরিত্রে অভিনয় করেন। এনডিটিভি-র শৈবাল চ্যাটার্জি চলচ্চিত্রটি অপছন্দ করলেও "ছোটখাট একটি বিপ্লবের প্রধান অনুঘটক" হিসেবে পেডনেকরের কাজের প্রশংসা করেন। চলচ্চিত্রটি বাণিজ্যিকভাবে সফল হয় এবং ২১৬ কোটি রূপীর বেশি আয় করে।

টয়লেট: এক প্রেম কথা ছবির সফলতার পর তিনি হাস্যরসাত্মক-নাট্যধর্মী শুভ মঙ্গল সাবধান (২০১৭) ছবিতে অভিনয় করেন। পুরুষত্বহীনতা নিয়ে ব্যঙ্গধর্মী এই ছবিটি পরিচালনা করেছিন আর. এস. প্রসন্ন।[১০] এতে তিনি দ্বিতীয়বারের মত আয়ুষ্মান খুরানার বিপরীতে অভিনয় করেন।[১১] দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর শুভ্র গুপ্ত লিখেন, "পেডনেকর আবার মনে করিয়ে দিলেন ভালোবাসার জন্য সৎ তরুণী ভূমিকায় তিনি কতটুকু দৃঢ়প্রত্যয়ী হতে পারেন।" এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং বিদ্যা বালানের কাছে পরাজিত হন।[১২]

পেডনেকর পরবর্তীতে নেটফ্লিক্সের লাস্ট স্টোরিজ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র সংকলনে জোয়া আখতারের পরিচালিত অংশে অভিনয় করেন। এতে তাকে গৃহকর্তার সাথে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত এক গৃহকর্মী চরিত্রে দেখা যায়।[১৩] এনডিটিভির রাজা সেন চারটি চলচ্চিত্রের মধ্যে জোয়া আখতারের অংশের প্রশংসা করেন এবং পেডনেকরের কাজকে খুবই ভালো বলে উল্লেখ করেন।[১৪]

২০১৯ সালে পেডনেকরের মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম চলচ্চিত্র হল অভিষেক চৌবে পরিচলিত অপরাধধর্মী চলচ্চিত্র সোনচিড়িয়া। এতে তিনি সুশান্ত সিং রাজপুতমনোজ বাজপেয়ীর বিপরীতে তরুণী গৃহবধূ চরিত্রে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্রের প্রস্তুতি হিসেবে তিনি আড়াই মাস শারীরিক প্রশিক্ষণ নেন এবং বন্দুক চালনা শিখেন।[১৫] ফিল্ম কম্প্যানিয়ন-এর রাহুল দেসাই পেডনেকরের নারীত্বের অপরিহার্য জ্ঞানের ব্যবহারের প্রশংসা করেন।[১৬] এরপর তাকে তুষার হিরানন্দনির জীবনীমূলক চলচ্চিত্র ষাণ্ড কি আঁখ-এ তাপসী পান্নুর সাথে অভিনয় করতে দেখা যায়। এই চলচ্চিত্রের প্রস্তুতি হিসেবে পান্নু ও পেডনেকর দুজন নারীর সাথে সময় কাটান এবং বন্দুক চালনার প্রশিক্ষণ নেন।[১৭] তীব্র রোদে চিত্রগ্রহণের ফলে তিনি চর্ম অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হন।[১৮] মিন্ট-এর উদিতা ঝুনঝুনওয়ালা লিখেন, "পান্নু ও পেডনেকর অসাধারণ ও তেজোদ্দীপ্ত এবং তাদের শরীরী ভাষা ও অঙ্গভঙ্গি পরিবর্তনীয় হলেও তারা তাদের চরিত্রকে ধারণ করেছেন।"[১৯] এই কাজের জন্য তারা দুজন যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে স্ক্রিন পুরস্কার (সমালোচক) অর্জন করেছেন।[২০] এছাড়া পেডনেকর সোনচিড়িয়াষান্ড কি আঁখ চরিত্রে তার অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার সমালোচক পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেছেন।[২১]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্রের শিরোনাম চরিত্রের নাম পরিচালক টীকা
২০১৫ দম লগা কে হইশা সন্ধ্যা ভার্মা শরত কাটারিয়া
ম্যান্‌স ওয়ার্ল্ড নামহীন ওয়েব ধারাবাহিক
২০১৭ টয়লেট: এক প্রেম কথা জয়া শর্মা শ্রী নারায়ণ সিং
শুভ মঙ্গল সাবধান সুগন্ধা আর. এস. প্রসন্ন
২০১৮ লাস্ট স্টোরিজ সুধা জোয়া আখতার চারটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের জোয়া আখতারের অংশ
২০১৯ সঞ্চিরিয়া ইন্দুমতি তোমার অভিষেক চৌবে
ষাণ্ড কি আঁখ চন্দ্রো তোমার তুষার হিরানন্দনী
বালা লতিকা অমর কৌশিক
পতি, পত্নী অউর ওহ বেদিকা ত্রিপাঠি মুদাসসার আজিজ
২০২০ শুভ মঙ্গল জিয়াদা সাবধান হিতেশ কেবল্য বিশেষ উপস্থিতি
ভূত - পার্ট ওয়ান: দ্য হন্টেড শিপ ভানু প্রতাপ সিং নির্মাণাধীন
ডলি কিটি অউর ওহ চমকতে সিতারে কিটি অলঙ্কৃতা শ্রীবাস্তব নির্মাণাধীন
দুর্গাবতী দুর্গাবতী নির্মাণাধীন

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র পুরস্কার বিভাগ ফলাফল সূত্র.
২০১৬ দম লগা কে হইশা ফিল্মফেয়ার পুরস্কার শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিজয়ী [২২]
প্রডিউসার্স গিল্ড চলচ্চিত্র পুরস্কার শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিজয়ী
স্ক্রিন পুরস্কার শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিজয়ী [২৩]
জি সিনে পুরস্কার শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিজয়ী [২৪]
স্টারডাস্ট পুরস্কার আগামীর নারী সুপারস্টার বিজয়ী
বিগ স্টার এন্টারটেইনমেন্ট পুরস্কার সামাজিক ক্ষেত্রে সবচেয়ে বিনোদন প্রদানকারী অভিনয়শিল্পী - নারী বিজয়ী
আইফা পুরস্কার বর্ষসেরা নবাগত তারকা অভিনেত্রী বিজয়ী [২৫]
২০১৮ টয়লেট: এক প্রেম কথা জি সিনে পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনয়শিল্পী – নারী (দর্শকের পছন্দ) মনোনীত [২৬]
শ্রেষ্ঠ অভিনয়শিল্পী – নারী (জুরিদের পছন্দ) মনোনীত
শুভ মঙ্গল সাবধান স্ক্রিন পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী মনোনীত [২৭]
ফিল্মফেয়ার পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী মনোনীত [২৮]
নিউজএইটিন রিল মুভি পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী মনোনীত [২৯]
আইফা পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী মনোনীত [৩০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. সংঘবি, ভাবিক। "Movie prediction for ´Dum Laga Ke Haisha'"প্ল্যানেট বলিউড (ইংরেজি ভাষায়)। ১ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "15 women of courage share their inspiring stories"ইন্ডিয়া টুডে (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ জুন ২০১৫। ২২ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. খন্দকার, ওমকর (২৭ ডিসেম্বর ২০১৯)। "Bhumi Pednekar: 'As I get more successful, I realize how sexist the world is'"মিন্ট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 
  4. রাজা, অদিতি (৫ অক্টোবর ২০১২)। "Ex-minister's wife takes on gutka manufacturers"ইন্ডিয়া টুডে (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 
  5. "Presenting Dum Laga Ke Haisha's leading lady Bhumi Pednekar, the slim-fit version" (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 
  6. "‛Lose it' like Bhumi Pednekar!"দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ নভেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০২০ 
  7. "৬১ তম ফিল্মফেয়ার অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিজয়ীদের তালিকা"ওয়ানইন্ডিয়া। ১৬ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  8. "অক্ষয়-ভূমির 'টয়লেট' প্রেম!"আনন্দবাজার পত্রিকা। ১৪ আগস্ট ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  9. "হেভি ওয়েট থেকে এক্কেবারে স্লিম হয়ে ফিরছেন এই অভিনেত্রী"আনন্দবাজার পত্রিকা (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  10. "'মারাত্মক সমস্যা' নিয়ে বড় পর্দায় ফিরছে এই জুটি"আনন্দবাজার পত্রিকা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  11. "আয়ুষ্মানকে সঙ্গে নিয়ে ভূমির রিটার্ন"আনন্দবাজার পত্রিকা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  12. "চমকে ভরপুর ৬৩তম ফিল্মফেয়ার"দৈনিক জনকন্ঠ (us ভাষায়)। ২৫ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  13. পাল, চন্দ্রিমা (২৬ জুন ২০১৮)। "Bhumi Pednekar on 'Lust Stories': 'I was wiping floors at home for weeks. My mom loved it'"স্ক্রোল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  14. সেন, রাজা (২৯ জুলাই ২০১৮)। "Lust Stories Movie Review: 4 Directors Explore The Idea Of Lust, Without Caution"এনডিটিভি। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  15. "Vidya Balan in Ishqiya, Alia Bhatt and Kareena Kapoor in Udta Punjab, Bhumi Pednekar in Sonchiriya: Abhishek Chaubey's cinematic world of women and the actors who inhabit them"মুম্বই মিরর (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  16. "Sonchiriya Movie Review: Mind Transcends Gun In Abhishek Chaubey's Haunting Bandit Tale" (ইংরেজি ভাষায়)। ফিল্ম কম্প্যানিয়ন। ১ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  17. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; small town নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  18. "Bhumi Pednekar gets blisters on her face during Saand Ki Aankh shoot, calls them her 'battle scars'"হিন্দুস্তান টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  19. Jhunjunwala, Udita (২৫ অক্টোবর ২০১৯)। "Film review: 'Saand Ki Aankh' mostly hits the mark"মিন্ট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  20. "Star Screen Awards: Deepika Padukone, Ananya Panday add glam as Alia Bhatt, Ranveer Singh win top awards. Read complete winners list"হিন্দুস্তান টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  21. "Nominations for Filmfare Awards 2020"ফিল্মফেয়ার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  22. "Filmfare Awards 2016: Ranveer Singh bags Best Actor in leading role for Bajirao Mastani"আইবিটাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। ১৬ জানুয়ারি ২০১৬। ১৮ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  23. "Star Screen Awards 2016 winners list: Pink wins big"ইন্ডিয়া টুডে। ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  24. "ZCA 2016 Archives"জি সিনে পুরস্কার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  25. "IIFA - B-town found home in Madrid"আইফা (ইংরেজি ভাষায়)। আন্তর্জাতিক ভারতীয় চলচ্চিত্র অ্যাকাডেমি পুরস্কার। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  26. "2018 Archives - Zee Cine Awards"Zee Cine Awards (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  27. "Star Screen Awards 2018: Here's The Complete List Of Winners!"দেশিমার্টিনি (ইংরেজি ভাষায়)। এইচটি মিডিয়া। ৪ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  28. "Nominations for the 63rd Jio Filmfare Awards 2018"ফিল্মফেয়ার (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  29. "Reel Movie On Screen Awards 2018 | Best Film, Actor, Actress, Director and More"নিউজএইটিন (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  30. "IIFA Nominations 2018: Tumhari Sulu Leads With 7 Nods, Newton Follows"এনডিটিভি (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]