রিচা চাড্ডা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রিচা চাড্ডা
রিচা চাড্ডা
২০১৯ সালে রিচা চাড্ডা
জন্ম (1982-12-18) ১৮ ডিসেম্বর ১৯৮২ (বয়স ৩৭)[১][২]
জাতীয়তাভারতীয়
অন্যান্য নামরিচা চাঢা[৩]
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন২০০৮–বর্তমান
উচ্চতা১.৬৫ মিটার (৫ ফুট ৫ ইঞ্চি)

রিচা চাড্ডা (জন্ম: ১৮ই ডিসেম্বর ১৯৮২) হলেন একজন ভারতীয় বলিউড অভিনেত্রী, যিনি হিন্দি ছবিতে কাজ করেন।[৪] ওয়ে লাকি! ওয়ে লাকি! নামক একটি কৌতুক বিষয়ক চলচ্চিত্রের ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিষেক করার পরে তিনি বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রের পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয়ের কাজ করেছিলেন।[৫] অতঃপর তিনি গ্যাংস্টার বিষয়ক চলচ্চিত্র গ্যাংস অফ ওয়াসীপুর (২০১২)-এর একটি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন; যেখানে তিনি একজন গুন্ডার মারমুখো এবং অত্যন্ত কটুভাষী স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এই চলচ্চিত্রে তাঁর অভিনয়ের জন্য তাঁকে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার প্রদান করা হয়েছিল।[৬] অতঃপর ২০১৩ সালে তিনি গোলিয়োঁ কী রাসলীলা রাম-লীলা নামক একটি হিন্দি চলচ্চিত্রের একটি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন; যেখানে তিনি দীপিকা পাড়ুকোন এবং রণবীর সিংয়ের সাথে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন। এই চলচ্চিত্রটি তাঁর অভিনীত চলচ্চিত্রের মধ্যে অন্যতম সফল একটি চলচ্চিত্র।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০১৫ সালে, রিচা মাসাঁ নামক একটি নাটকে, নৈমিত্তিক যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার পরে ধরা পড়া একটি মেয়ের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হলে এই চলচ্চিত্রটি সকলের নজরে আসে এবং সকলেই এই চলচ্চিত্রের প্রশংসা করেছিল।[৭] এই চলচ্চিত্র রিচার অভিনয় জীবনের একটি মাইলফলক হিসাবে চিহ্নিত হয়ে থাকে এবং এটির মাধ্যমে তিনি হিন্দি চলচ্চিত্র জগতে নিজের জন্য একটি শক্ত ভিত তৈরি করেছেন বলে অনুমান করা হয়ে থাকে।[৮] হিন্দি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি রিচা মঞ্চ নাটকেও কাজ করেছেন, তাঁর মঞ্চ নাটকের কাজগুলোর মধ্যে ট্রিভিয়াল ডিজাস্টার (২০১৪) নামক নাটকটি উল্লেখযোগ্য; যেখানে তিনি দিল্লি ভিত্তিক একজন বিবাহিত মহিলার চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

২০১৬ সালের মে মাসে, রিচা এনডিটিভিকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে প্রকাশ করেছিলেন যে, তিনি বেশ কয়েক বছর ধরে বুলিমিয়া (একটি খাওয়ার ব্যাধি) রোগে ভুগছিলেন[৯] এবং তিনি ক্লিনিকাল মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে পেশাদার সহায়তা পাওয়ার পরে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন।[১০] পিতৃতন্ত্র, নারী বিদ্বেষ এবং বিনোদন ক্ষেত্রে 'পুরুষ দৃষ্টিকোণ'-এর বিস্তারে তাঁর খাওয়ার ব্যাধিটিকে চিহ্নিত করে তিনি অন্যান্য মহিলাকে তাদের নিজের খাওয়া (পুরুষতন্ত্র-প্ররোচিত) এবং মানসিক ব্যাধি নিয়ে জনসমক্ষে প্রচার করার আহবান জানিয়েছিলেন এবং এই রকম ব্যাধিগুলো বাড়ার উপায়গুলো ধ্বংসের আহবান জানিয়েছিলেন।[১১] [১২] এছাড়াও ২০১৬ সালের মে মাসে রিচাকে আত্মজীবনীমূলক চলচ্চিত্র সরবজিতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল, যেখানে তিনি সরবজিতের স্ত্রী সুখপ্রীত কৌরের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই চলচ্চিত্রটি বক্স অফিসে খুব একটা ভাল ফলাফল বয়ে আনতে পারেনি এবং সমালোচকদের কাছ থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া অর্জন করেছিল। রিচা এই চলচ্চিত্রে তাঁর অভিনয়ের জন্য সেরা সহায়ক অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। তিনি ২০১৭ সালের কৌতুক বিষয়ক চলচ্চিত্র ফাকরে রিটার্নস-এ ভোলি পাঞ্জাবান নামক চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন;[১৩] যা সমালোচকদের কাছ থেকে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া অর্জনের পাশাপাশি বাণিজ্যিকভাবে সাফল্য অর্জন করেছিল।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

তিনি ১৯৮২ সালের ১৮ই ডিসেম্বর তারিখে ভারতের পাঞ্জাবের অমৃতসর শহরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।[১] তাঁর বাবা একটি ম্যানেজমেন্ট ফার্মের মালিক এবং তাঁর মা দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পিজিডিএভি কলেজের অধ্যাপক, যিনি দুটি বই লিখেছেন এবং গান্ধী স্মৃতিতেও কাজ করেছেন।[১৪][১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Priya Gupta (৯ জুন ২০১৩)। "Dating an actor is even worse, says Richa Chadda"Times Internet। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৫ 
  2. "Richa Chadha's star-studded birthday bash"The Indian Express। ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১৬ 
  3. "Richa Chadha leaves for Amritsar to shoot for 'Sarbjit'"The Indian Express। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৩-০৯ 
  4. "I am angry with women who are ready to sleep with producers: Richa Chadha" 
  5. Desk, India.com Entertainment (২০১৫-১২-৩১)। "Richa Chadda is a stunner on Verve cover!"India.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১৭ 
  6. "'Barfi!' Sweeps India's Filmfare Awards - The Hollywood Reporter"Rewired.hollywoodreporter.com। ২০১৩-০১-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-০৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "Richa Chadda's 'Masaan' gets standing ovation at Cannes"Times Internet। ২০ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৬ 
  8. "Masaan is about morality crisis, says Richa Chadda"Hindustantimes.com/ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৭-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১৭ 
  9. "'I felt guilty every time I was hungry' - Mumbai Mirror -"Mumbai Mirror। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-১৪ 
  10. Sharma, Meghna। "#CosmoExclusive: Richa Chadha Opens Up About Struggling With an Eating Disorder Called Bulimia"Cosmopolitan (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-২৭ 
  11. "Richa Chadda: "Eating disorders are the best-kept secret of the film industry""VOGUE India (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০৫-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-১৪ 
  12. "Richa Chadha to reveal struggle with Bulimia in debut book"Mid-day.com। ২০১৭-০৪-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-১৪ 
  13. "Intense Richa"Telegraphindia.com 
  14. '+relativeTime_tweet(this.created_at)+' (২০১২-১১-৩০)। "Richa Chadda At Her Candid Best!"Magnamags.com। ২০১২-০৯-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-০৬ 
  15. "Richa Chadda enjoying newfound fame"Zeenews.india.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-০৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]