দ্গে-'দুন-রিন-ছেন-র্গ্যাল-ম্ত্শান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

দ্গে-'দুন-রিন-ছেন-র্গ্যাল-ম্ত্শান (তিব্বতি: དགེ་འདུན་རིན་ཆེན་རྒྱལ་མཚནওয়াইলি: dge 'dun rin chen rgyal mtshan) (১৫৭১-১৬৪২) তিব্বতী বৌদ্ধধর্মের দ্গে-লুগ্স ধর্মসম্প্রদায়ের দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহারের সায়ত্রিশতম দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা বা প্রধান ছিলেন।

সংক্ষিপ্ত জীবনী[সম্পাদনা]

দ্গে-'দুন-রিন-ছেন-র্গ্যাল-ম্ত্শান ১৫৭১ খ্রিষ্টাব্দে তিব্বতের খাম্স অঞ্চলের 'জাং-ঝাব্স (ওয়াইলি: 'jang zhabs) নামক স্থানে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি [[সেরা বৌদ্ধবিহার|সেরা বৌদ্ধবিহার বিশ্ববিদ্যালয় এবং গ্যুতো মহাবিদ্যালয়ে শিক্ষালাভ করেন। শিক্ষা শেষ করে তিনি গ্যুতো মহাবিদ্যালয়ে এবং দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহার বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাং-র্ত্সে (ওয়াইলি: byang rtse) মহাবিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করেন। ১৬১৯ খ্রিষ্টাব্দে তিনি থাং-রিং বৌদ্ধবিহার স্থাপন করেন। ১৬৩৮ খ্রিষ্টাব্দে দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহার বিশ্ববিদ্যালয়ের শার-র্ত্সে (ওয়াইলি: Shar-rtse) এবং ব্যাং-র্ত্সে (ওয়াইলি: byang rtse) মহাবিদ্যালয়ের ভিক্ষুদের মধ্যে বিরোধের সূত্রপাত ঘটে এবং শার-র্ত্সে মহাবিদ্যালয়ের ভিক্ষুরা বিহারের প্রশাসনিক ক্ষমতা দখল করলে দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহারের ছত্রিশতম দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা ব্স্তান-'দ্জিন-লেগ্স-ব্শাদ খাম্স অঞ্চলে পালিয়ে যেতে বাধ্য হলে তিনি পরবর্তী প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হন এবং পাঁচ বছর এই পদে থাকেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Chhosphel, Samten (অক্টোবর ২০১০)। "The Thirty-Seventh Ganden Tripa, Gendun Rinchen Gyeltsen"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৫-২৫ 
পূর্বসূরী
ব্স্তান-'দ্জিন-লেগ্স-ব্শাদ
দ্গে-'দুন-রিন-ছেন-র্গ্যাল-ম্ত্শান
সায়ত্রিশতম দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা
উত্তরসূরী
ব্স্তান-পা-র্গ্যাল-ম্ত্শান