খালেক বিন জয়েন উদ্দীন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
খালেক বিন জয়েন উদ্দীন
জন্ম২৪ জানুয়ারি ১৯৫৪
পেশাকবি ও শিশু সাহিত্যিক
জাতীয়তাবাংলাদেশী
নাগরিকত্ব বাংলাদেশ
ধরনশিশু সাহিত্য
উল্লেখযোগ্য পুরস্কারবাংলা একাডেমি পুরস্কার, ২০১৪

খালেক বিন জয়েন উদ্দীন বাংলাদেশী কবি ও শিশু সাহিত্যিক। শিশু সাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য তিনি ২০১৪ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

খালেক বিন জয়েন উদ্দীন ২৪ জানুয়ারি ১৯৫৪ সালে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার চিত্রাপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন । তার পিতার নাম আলহাজ্জ মোঃ জয়েন উদ্দীন । বাংলা সাহিত্যে তিনি ১৯৭৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে এমএ পাস করেন। পড়াশােনা করেন ঢাকা কলেজও।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

খালেক বিন জয়েন উদ্দীন ৬ দফা আন্দোলন, ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণসহ তৎকালীন সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। যুদ্ধকালে যশােরের বারােবাজারে ধৃত হয়ে পাকিস্তানি সেনা ছাউনিতে অকথ্য নির্যাতন ভােগ করেন এবং সাতমাস বন্দী থাকেন।

প্রকাশিত বই[সম্পাদনা]

তার কয়েকটি গ্রন্থ হলো – ধান সুপারি পান সুপারি, আপিল চাপিল ঘন্টি মালা, চিরকালের ১০০ ছড়া, হৃদয় জুড়ে বঙ্গবন্ধু, নলিনীকান্ত ভট্টশীল।[২]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

সাহিত্যেচর্চার জন্য তিনি বঙ্গবন্ধু সাহিত্য পরিষদ, বাংলাদেশ লেখিকা সংঘ, অগ্রণী ব্যাংক, তরিকত মিশন, আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ স্মৃতি পরিষদ, কোটালীপাড়া গুণীজন সংবর্ধনা পরিষদ ও বাংলা একাডেমির সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ 
  2. খালেক বিন জয়েনউদ্দীন। নির্বাচিত ছড়া-কবিতা। বাংলাদেশ: সিদ্দিকীয়া পাবলিকেশন্স। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]