মালয়েশিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(মালয়েশিয়ার রাজনীতি থেকে ঘুরে এসেছে)
মালয়েশিয়া
পতাকা এমব্লেম
নীতিবাক্য
"Bersekutu Bertambah Mutu"
"একতাই বল"1
জাতীয় সঙ্গীত
নেগারাকু
রাজধানী কুয়ালালামপুর2
৩°৮′ উত্তর ১০১°৪২′ পূর্ব / ৩.১৩৩° উত্তর ১০১.৭০০° পূর্ব / 3.133; 101.700
বৃহত্তম শহর কুয়ালালামপুর
রাষ্ট্রীয় ভাষাসমূহ মালয়
সরকার সংযুক্ত সাবিধানিক রাজতন্ত্র
 -  Yang di-Pertuan Agong সুলতান মিজান জাইনুল আবিদিন
 -  প্রধানমন্ত্রী আবদুল্লাহ আহমাদ বাদাবি
স্বাধীনতা
 -  যুক্তরাজ্য থেকে (কেবল মালয়)
আগস্ট ৩১ ১৯৫৭ 
 -  Federation (সাবাহ্‌, সারাওয়াক এবং সিঙ্গাপুরের সাথে সংযুক্তি 3)
সেপ্টেম্বর ১৬ ১৯৬৩ 
আয়তন
 -  মোট ৩২৯,৮৪৭ বর্গকিমি (৬৭তম)
১২৭,৩৫৫ বর্গমাইল 
 -  জলভাগ (%) ০.৩
জনসংখ্যা
 -  মার্চ ২০০৭ আনুমানিক ২৭,১৪০,০০০ (৪৫তম)
 -  ২০০০ আদমশুমারি ২৪,৮২১,২৮৬ 
 -  ঘনত্ব ৮২ /বর্গ কিমি (১০৯তম)
২১১ /বর্গমাইল
জিডিপি (পিপিপি) ২০০৬ আনুমানিক
 -  মোট $৩০৮.৮ বিলিয়ন (৩৩)
 -  মাথাপিছু $১২,৭০০ (৫৯)
এইচডিআই (২০০৬) ০.৮০৫ (উচ্চ) (৬১তম)
মুদ্রা রিংগিট (RM) (এমওয়াইআর)
সময় স্থান এমএসটি (ইউটিসি+৮)
 -  গ্রীষ্মকালীন (ডিএসটি) পর্যবেক্ষণ করা হয়নি (ইউটিসি+৮)
ইন্টারনেট টিএলডি .এমওয়াই
কলিং কোড ৬০
১. মালয়েশিয়ার পতাকা এবং ক্রেস্ট সরকারী সাইট থেকে
২. পুত্রজায়া সরকারের প্রধান আসন
৩. ১৯৬৫ সালের ৯ আগস্ট তারিখে সিঙ্গাপুর স্বাধীন হিসেবে আ্মপ্রকাশ করে।

মালয়েশিয়া তেরটি রাষ্ট্র এবং তিনটি ঐক্যবদ্ধ প্রদেশ নিয়ে গঠিত দক্ষিনপূর্ব এশিয়ার একটি দেশ। [১] যার মোট আয়তন ৩,২৯,৮৪৫ বর্গকিমি।[২] দেশটির রাজধানী শহর কুয়ালালামপুর এবং পুত্রজায়া হল ফেডারেল সরকারের রাজধানী। দক্ষিণ চীন সাগর দ্বারা দেশটি দুই ভাগে বিভক্ত, পেনিনসুলার মালয়েশিয়া এবং পূর্ব মালয়েশিয়া। মালয়েশিয়ার স্থল সীমান্তে রয়েছে থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, এবং ব্রুনাই; এর সমুদ্র সীমান্ত রয়েছে সিঙ্গাপুর, ভিয়েতনামফিলিপাইন এর সাথে। [২] মালয়েশিয়ার মোট জনসংখ্যা ২৮ মিলিয়নের অধিক।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সরকার ও রাজনীতি[সম্পাদনা]

মালয়েশিয়ার রাজনৈতিক ব্যবস্থা একটি সাংবিধানিক রাজতন্ত্রের কাঠামোতে পরিচালিত হয়। রাজা হলে রাষ্ট্রের প্রধান এবং প্রধানমন্ত্রী হলেন সরকার প্রধান। মালয়েশিয়ার সরকার ও ১১টি অঙ্গরাজ্য সরকারের হাতে নির্বাহী ক্ষমতা ন্যস্ত। সরকার এবং আইনসভার দুই কক্ষের (দেওয়ান নেগারা ও দেওয়ান রাকিয়াত) উপর যুক্তরাষ্ট্রীয় আইন প্রণয়ন ক্ষমতা ন্যস্ত। বিচার বিভাগ নির্বাহী ও আইন প্রণয়ন বিভাগ অপেক্ষা স্বাধীন, তবে নির্বাহী বিভাগ বিচারক নিয়োগদানের মাধ্যমে বিচার বিভাগের উপর কিছুটা প্রভাব বিস্তার করে থাকে।

প্রশাসনিক অঞ্চল[সম্পাদনা]

ভূগোল[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

মালয়েশিয়ার অর্থনীতি অপেক্ষাকৃত মুক্ত কিন্তু রাষ্ট্রকেন্দ্রীক। বর্তমানে মালয়েশিয়া একটি উঠতি শিল্পউন্নত বাজার অর্থনীতি বলে বিবেচিত।[৪][৫] সরকার বিভিন্ন ম্যাক্রো-অর্থনৈতিক পরিকল্পনার মাধ্যমে দেশটির অর্থনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। যদিও এই প্রভাব দিন দিন হ্রাস পাচ্ছে।

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

মালয় ভাষা মালয়েশিয়ার সরকারী ভাষা। এখানকার প্রায় অর্ধেক সংখ্যক লোক মালয় ভাষাতে কথা বলে। মাধ্যমিক পর্যায় থেকে ইংরেজি ভাষাতে শিক্ষা দেওয়া হয়। ইংরেজি ভাষা সার্বজনীন ভাষা বা লিঙ্গুয়া ফ্রাংকা হিসেবে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। আন্তর্জাতিক যোগাযোগেও ইংরেজি ভাষাই ব্যবহার করা হয়। মালয়েশিয়াতে আরও প্রায় ১৩০টি ভাষা প্রচলিত। এদের মধ্যে চীনা ভাষার বিভিন্ন উপভাষা, বুগিনীয় ভাষা, দায়াক ভাষা, জাভানীয় ভাষা এবং তামিল ভাষা উল্লেখযোগ্য। বাজার মালয় ভাষা বহুজাতিক বাজারের ভাষা হিসেবে প্রচলিত এবং সাবাহ প্রদেশে সার্বজনীন ভাষা বা লিঙ্গুয়া ফ্রাংকা হিসেবে ব্যবহৃত।

নাগরিকত্ব[সম্পাদনা]

সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

মালয়েশিয়ার প্রধান সংবাদপত্রগুলি হল উতুসান মালয়েশিয়া, দ্য স্টার এবং দ্য মালয় মেইল। এগুলির সবগুলিরই ইন্টারনেট সংস্করণ আছে। এগুলিতে স্থানীয় ইস্যু, রাজনীতি, ব্যবসা, বিনোদন এবং সংস্কৃতির উপর সংবাদ ও নিবন্ধ থাকে।

উতুসান মালয়েশিয়া ইংরেজি ও মালয় উভয় ভাষাতেই প্রকাশিত হয়। এটি ১৯৩৯ সালে সিঙ্গাপুরে যাত্রা শুরু করে। ১৯৫৮ সালে মালয়েশিয়া ব্রিটিশদের থেকে স্বাধীনতা লাভ করলে তারা কুয়ালালুম্পুরে স্থানান্তরিত হয়। এটি মালয়েশিয়ার প্রথম অনলাইন পত্রিকা হিসেবেও ইন্টারনেটে আত্মপ্রকাশ করে। বর্তমানে এটি মালয়েশিয়ার সবচেয়ে বেশি পঠিত সংবাদপত্র।

চিত্তাকর্ষক স্থান[সম্পাদনা]

পেট্রোনাস টাওয়ার, পেনাং, লংকাওয়ে , গেনটিং হাইল্যাণ্ড

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. অনুচ্ছেদ ১, মালয়েশিয়ার সংবিধান
  2. ২.০ ২.১ [১] দ্যা ওয়ার্ল্ড ফ্যাক্টবুক
  3. জনসংখ্যা, মালয়েশিয়ার পরিসংখ্যান বিভাগ(২০০৮)
  4. Boulton, WilliaM; Pecht, Michael; Tucker, William; Wennberg, Sam (May 1997)। "Electronics Manufacturing in the Pacific Rim, World Technology Evaluation Center, Chapter 4: Malaysia"। The World Technology Evaluation Center, Inc। সংগৃহীত 1 November 2010 
  5. "Malaysia, A Statist Economy"। Infernalramblings। সংগৃহীত 1 November 2010 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

মালয়েশিয়া ভ্রমণ গাইড