কিম ইল-সাং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কিম ইল-সাং
김일성
সরকারী ছবি
প্রজাতন্ত্রের শাশ্বত রাষ্ট্রপতি (Appellation)
দায়িত্ব
অধিকৃত অফিস
৮ জুলাই ১৯৯৪
উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা
কার্যালয়ে
৯ সেপ্টেম্বর ১৯৪৮ – ৮ জুলাই ১৯৯৪
উত্তরসূরী কিম জং ইল
উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি
কার্যালয়ে
২৮ ডিসেম্বর ১৯৭২ – ৮ জুলাই ১৯৯৪
পূর্বসূরী অবস্থান তৈরি
চয় ইয়ং-কুন, সভাপতিমণ্ডলীয় সুপ্রিম পিপলস এসেম্বলি-এর প্রধান
উত্তরসূরী অবস্থান বিলুপ্ততি
(মৃত্যুর পর শাশ্বত রাষ্ট্রপতি হিসেবে ঘোষণা)
উত্তর কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী
কার্যালয়ে
৯ সেপ্টেম্বর ১৯৪৮ – ২৮ ডিসেম্বর ১৯৭২
পূর্বসূরী অবস্থান তৈরি
উত্তরসূরী কিম ইল (প্রধানমন্ত্রী)
কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক
কার্যালয়ে
১১ অক্টোবর ১৯৬৬ – ৯ জুলাই ১৯৯৪
পূর্বসূরী নিজেকে সাধারণ সম্পাদক বানান
উত্তরসূরী কিম জং ইল
কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান
কার্যালয়ে
৩০ জুন ১৯৪৯ – ১১ অক্টোবর ১৯৬৬
পূর্বসূরী কিম টু-বং সাধারণ সম্পাদক
উত্তরসূরী নিজেকে সাধারণ সম্পাদক বানান
কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান
কার্যালয়ে
২৮ আগস্ট ১৯৪৬ – ৩০ জুন ১৯৪৯
চেয়ারম্যান কিম টু-বং
পূর্বসূরী অবস্থান তৈরি করেন
উত্তরসূরী অবস্থান বিলুপ্তি
কমিউনিস্ট পার্টি অফ কোরিয়ার উত্তর কোরীয় পৌর বিভাগের সভাপতি
কার্যালয়ে
১৭ ডিসেম্বর ১৯৪৫ – ২৮ আগস্ট ১৯৪৬
সাধারণ  সম্পাদক পাক হং ইয়াং
পূর্বসূরী কিম ইয়ং-বম
উত্তরসূরী দল ভেঙে দেয়া হয়
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম কিম ইল-সং জু
(১৯১২-০৪-১৫)১৫ এপ্রিল ১৯১২
ম্যাংইয়ং দে, হেইন-নান্দো, জাপানী কোরিয়া
মৃত্যু ৮ জুলাই ১৯৯৪(১৯৯৪-০৭-০৮) (৮২ বছর)
পিয়ং ইয়াং, গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া
সমাধিস্থল কুমসুসান থিয়াঙ্গুম চান, পিয়ং ইয়াং, গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া
জাতীয়তা উত্তর কোরীয়
রাজনৈতিক দল কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গী কিম জং-সাক (মৃত্যু।– ১৯৪৯)
কিম সং-এ
সন্তান কিম জং ইল
কিম মান-ইল
Kim Kyong-hui
Kim Kyong-jin
Kim Pyong-il
Kim Yong-il
বাসস্থান পিয়ং ইয়াং, গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া
জীবিকা প্রজাতন্ত্রের শাশ্বত রাষ্ট্রপতি
পেশা উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি
ধর্ম নেই (নাস্তিক) (formerly Presbyterian)
স্বাক্ষর
সামরিক পরিষেবা
আনুগত্য  সোভিয়েত ইউনিয়ন
উত্তর কোরিয়া গনতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া
সার্ভিস/বিভাগ সোভিয়েত সশস্ত্র বাহিনী
কোরিয়ান পিপলস আর্মি
চাকুরির বছর ১৯৪১-১৯৪৫
১৯৪৮–১৯৯৪
পদ তেঅনসু (প্রধান সেনাপতি)
নেতৃত্ব পুরো (সর্বোচ্চ অধিনায়ক)
যুদ্ধ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ
কোরীয় যুদ্ধ
কোরীয় নাম
হাঙ্গুল্
হাঞ্জা
কোরীয় রোমানীকরণ গিম ইল সেওং
MR কিম ইলসোং
জন্মের নাম
হাঙ্গুল্
হাঞ্জা
কোরীয় রোমানীকরণ Gim Seong-ju
MR Kim Sŏngchu

কিম ইল-সাং (কোরীয়: 김일성?, 金日成?) (জন্ম- ১৫ এপ্রিল ১৯১২- মৃত্যু ৮ জুলাই ১৯৯৪) ছিলেন গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়ার সাবেক নেতা। তিন দেশটিকে এর প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তিনি উত্তর কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন ১৯৪৮ সাল থেকে ১৯৭২ সাল এবং ১৯৭২ সাল থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ার প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন।[১] তিনি কোরীয় ওয়ার্কার্স পার্টিরও নেতা ছিলেন ১৯৪৯ থেকে ১৯৯৪ পর্যন্ত। তিনি ১৯৫০ সালে সমগ্র উপদ্বীপ অধিকারে আনার উদ্দেশ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় হস্তক্ষেপ করেন কিন্তু পরে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপের ফলে যাতে তিনি সফল হতে পারেননা। মাঝে মাঝে কোরীয় গৃহযুদ্ধ নামে পরিচিত কোরীয় যুদ্ধ, তিন বছর চলার পর একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে ২৫ লাখ বেসামরিক মানুষের ক্ষয়ক্ষতির পর ২৭ জুলাই ১৯৫৩-তে শেষ হয়। কিন্তু কৌশলগত দিক থেকে আজও যার সমাপ্ত হয়নি বলে ধরা হয়।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে তার অধিকার প্রয়োগ অনেক সময়-ই স্বৈরাচার হিসেবে বর্ণিত হয়, তিনি সর্বব্যাপী নিজেকে আর্চনীয় ব্যক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেন। তার দায়িত্ব পালনের সময়, ৬ জন দক্ষিণ কোরীয় রাষ্ট্রপতি, ৭ জন সোভিয়েত রাষ্ট্রনায়ক, ১০ জন মার্কিন রাষ্ট্রপতি, ১০ জন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী, ২১ জন জাপানী প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রক্ষমতায় পালাবদল করে দায়িত্ব পালন করেছে। তার মৃত্যুর পর ১৯৯৪ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে তার জ্যেষ্ঠ পুত্র দায়িত্ব গ্রহণ করে। উত্তর কোরীয় সরকার কিম ইল সাংকে মৃত্যুর পর “মহান নেতা” (কোরীয়: 위대한 수령 ওয়িডিহেং সোরিয়াং) হিসেবে ঘোষণা করে এবং ৫ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮-এ তাকে উত্তর কোরিয়ার সংবিধানে প্রজাতন্ত্রের শাশ্বত রাষ্ট্রপতি হিসবে ভূষিত করা হয়। তার জন্মদিন অর্থাৎ ১৫-ই এপ্রিল দেশটিতে সাধারণ ছুটি এবং এই দিবসটির নামকরণ করা হয় সূর্যের দিন।[২] দিবসটি নানাভাবে তা পালন করা হয়।

চিত্রসম্ভার[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "김일성, 쿠바의 ‘혁명영웅’ 체게바라를 만난 날"দৈনিক উত্তর কোরিয়া (কোরীয় ভাষায়)। ১৫ এপ্রিল ২০০৮ 
  2. "Congratulations to supreme leader on Day of the Sun"। পিয়ংইয়ং টাইমস (ইংরেজি ভাষায়) (জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি)। ২১ এপ্রিল ২০১২। পৃ: ৪। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

কিম ইল-সাং সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে হলে উইকিপিডিয়ার সহপ্রকল্পগুলোতে অনুসন্ধান করে দেখতে পারেন:

Wiktionary-logo-en.svg সংজ্ঞা, উইকিঅভিধান হতে
Wikibooks-logo.svg পাঠ্যবই, উইকিবই হতে
Wikiquote-logo.svg উক্তি, উইকিউক্তি হতে
Wikisource-logo.svg রচনা সংকলন, উইকিউৎস হতে
Commons-logo.svg ছবি ও অন্যান্য মিডিয়া, কমন্স হতে
Wikivoyage-Logo-v3-icon.svg ভ্রমণ নির্দেশিকা, উইকিভয়েজ হতে
Wikinews-logo.png সংবাদ, উইকিসংবাদ হতে

রাজনৈতিক দফতর
নতুন পদবী গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী
১৯৪৯-১৯৪২


উত্তরসূরী
কিম ইল (প্রধানমন্ত্রী হিসেবে)
পূর্বসূরী
চয় ইয়ং-কুন
গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী
(৫ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮-এ শাশ্বত রাষ্ট্রপতি হিসেবে ঘোষণা

১৯৭২–১৯৯৪


উত্তরসূরী
ইয়াং হায়ং-সোপ
পার্টির রাজনৈতিক কার্যালয়
নতুন পদবী কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির চেয়ারম্যান
১৯৪৯–১৯৬৬


নিজেকে সাধারণ-সম্পাদক করন
কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সামরিক কমিশনের চেয়ারম্যান
১৯৫০–১৯৯৪


উত্তরসূরী
কিম জং ইল
১৯৯৭ সাল পর্যন্ত খালি ছিল
কোরিয়ার ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক
১৯৬৬–১৯৯৪


সামরিক অফিস
নতুন পদবী কোরিয়ান পিপলস আর্মির সর্বোচ্চ অধিনায়ক
১৯৪৮–১৯৯১


উত্তরসূরী
কিম জং ইল